• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বুধবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২০, ১৬ মাঘ ১৪২৬

ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

নিজস্ব প্রতিবেদক০৯ অক্টোবর ২০১৯, ০৮:৪৭পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

গ্রামীণ কমিউনিকেশন্সে ট্রেড ইউনিয়ন গঠন করায় চাকরিচ্যুতের অভিযোগে দায়ের করা তিন মামলায় আদালতে উপস্থিত না হওয়ায় নোবেল বিজয়ী অর্থনীতিবিদ ড. মুহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

বুধবার ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালতের চেয়ারম্যান রহিবুল ইসলাম এ গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

৩ জুলাই ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালতে ড. মুহাম্মদ ইউনূসসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন তার প্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠান গ্রামীণ কমিউনিকেশন্সের সদ্য চাকরিচ্যুত সাবেক তিন কর্মচারী। পরে আদালত ৮ অক্টোবর তাদের হাজির হওয়ার জন্য সমন জারি করেন।

ড. ইউনূস বিদেশ থাকায় তার পক্ষ হয়ে আইনজীবী রাজু আহম্মেদ আদালতকে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি না করতে অনুরোধ জানালেও আদালত তা মঞ্জুর করেননি। তবে মামলার অপর দুই আসামি প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজনীন সুলতানা ও উপ-মহাব্যবস্থাপক খন্দকার আবু আবেদীন আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলে আদালত তা মঞ্জুর করেন।

মামলার বাদীরা হলেন, প্রস্তাবিত গ্রামীণ কমিউনিকেশন্স শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম, প্রচার সম্পাদক শাহ আলম এবং সদস্য এমরানুল হক। তারা গ্রামীণ কমিউনিকেশন্সে (স্থায়ী পদ) জুনিয়র এমআইএস অফিসার (কম্পিউটার অপারেটর) হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, নিজেদের কল্যাণে কাজ করতে ৫৫০ জন কর্মী সংগঠিত হয়ে ‘গ্রামীণ কমিউনিকেশন্স শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়ন’ (প্রস্তাবিত) নামে একটি ইউনিয়ন গঠনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। পরে তা আইন অনুযায়ী রেজিস্ট্রেশনের জন্য ১৬ এপ্রিল ঢাকার শ্রম অধিদপ্তরের ট্রেড ইউনিয়নের শাখায় আবেদন জমা দেন। এরপর প্রতিষ্ঠান থেকে তাদের চাকরিচ্যুত করা হয়।

 

টাইমস/এএইচ/এসআই

সতর্ক বাংলাদেশ, চীন ফেরত যাত্রীরা পর্যবেক্ষণে

সতর্ক বাংলাদেশ, চীন ফেরত যাত্রীরা পর্যবেক্ষণে

বাংলাদেশে কেউ এই ভাইরাসে সংক্রমিত হয়নি। চীন থেকে আসা যাত্রীদের

যশোরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুজনের প্রাণহানি

যশোরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুজনের প্রাণহানি

যশোরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুজন নিহত হয়েছেন। বুধবার ভোরে যশোর-মাগুরা

গোদাগাড়ীতে দেড় কোটি টাকার হেরোইনসহ একজন আটক

গোদাগাড়ীতে দেড় কোটি টাকার হেরোইনসহ একজন আটক

রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে অভিযান চালিয়ে ১ কেজি ৪৭৫ গ্রাম হেরোইনসহ এক

বিনোদন

আসিফের টার্গেট ১৫০

আসিফের টার্গেট ১৫০

জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী আসিফ আকবর। গত বছর ১০০ গান প্রকাশ করেছেন তিনি। তবে এবার তার টার্গেট ১৫০! এ বছর তিনি ১৫০ গানের মিশনে নেমেছেন। এর মধ্যে ইসলামী সংগীত গাওয়ারও পরিকল্পনা রয়েছে শিল্পীর।

যা কিছু প্রথম

১৮৯৫ সালে নিজের নামে পুরস্কার ঘোষণা দেন আলফ্রেড নোবেল

১৮৯৫ সালে নিজের নামে পুরস্কার ঘোষণা দেন আলফ্রেড নোবেল

ধ্বংসাত্মক ডিনামাইনের আবিষ্কারক আলফ্রেড নোবেল ঊনবিংশ শতাব্দীতে বিশ্বের কাছে নন্দিত হলেও অন্যদের মহান আবিষ্কারকে স্বীকৃতি প্রদানে তার অবদান বিংশ শতাব্দীতে তাকে বিখ্যাত করে তোলে। তার ইচ্ছানুসারে ‘নোবেল পুরস্কার’ প্রবর্তন করা হয়। যাকে বিশ্বের সবচেয়ে সম্মানজনক পুরস্কার হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

কৃষি কথা

ছাগল পালন করে স্বাবলম্বী হোন

ছাগল পালন করে স্বাবলম্বী হোন

ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার সঙ্গে তালমিলিয়ে দেশে পোলট্রি ও মৎস্য উৎপাদন দ্রুত বাড়লেও প্রযুক্তিগত জ্ঞানের অভাবে প্রাণিসম্পদ বিশেষ করে ছাগলের উৎপাদন আশানুরূপ বাড়েনি। অথচ ছাগল বাংলাদেশে অন্যতম গৃহপালিত পশু। যা অল্প পুঁজিতে বাড়ির আঙিনার পালন করা যায়। ছাগল পালনে গরু-মহিষের মতো উন্নতমানের খাদ্য আবাসন বা অন্যান্য বিশেষ যত্নের প্রয়োজন হয় না।

স্বাস্থ্য

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে জলপাইয়ের পাতা

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে জলপাইয়ের পাতা

আমরা অনেকেই জানি যে, জলপাই এবং জলপাই তেল খাদ্যতালিকায় যুক্ত করলে স্বাস্থ্যের জন্য তা অনেক উপকার বয়ে আনে। উচ্চ অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট সমৃদ্ধ এবং স্বাস্থ্যকর চর্বির পাশাপাশি এগুলি ডায়েটারি ফাইবার বা খাদ্য আঁশে পরিপূর্ণ। নতুন গবেষণায় দেখা যাচ্ছে যে, জলপাইয়ের পাতাও স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী।

জাতীয়

ফেলে যাওয়া নবজাতককে দত্তক নিলেন ডিসি

ফেলে যাওয়া নবজাতককে দত্তক নিলেন ডিসি

রাস্তার পাশে ভিক্ষুকের কাছে ফেলে যাওয়া নবজাতকের ঠিকানা ছিল অজানা। পাষণ্ড মা কোন কারণে কোলের সন্তানকে ফেলে পালিয়ে গেছেন? কে এই নবজাতক, কে এই শিশুর মা? কি পরিচয় এই নবজাতকের? এমন প্রশ্নেরই উত্তর দিলেন কিশোরগঞ্জের জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. সারওয়ার মুর্শেদ। ডিসি মো. সারওয়ার মুর্শেদ ওই শিশুকে দত্তক নিয়েছেন।

বিনোদন

মাকে নিয়ে ওমরাহ হজে যাচ্ছেন অহনা

মাকে নিয়ে ওমরাহ হজে যাচ্ছেন অহনা

এবার ওমরাহ পালনে সৌদি আরব যাচ্ছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী অহনা রহমান। ফেব্রুয়ারি মাসের মাঝামাঝি সময়ে দেশ ছাড়বেন তিনি।