• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ৪ কার্তিক ১৪২৬

দাবি মানার পরও আন্দোলনের কি যৌক্তিকতা: প্রধানমন্ত্রী

দাবি মানার পরও আন্দোলনের কি যৌক্তিকতা: প্রধানমন্ত্রী

ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক১২ অক্টোবর ২০১৯, ০২:৪৪পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

বুয়েট শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নেয়ার পরও তাদের আন্দোলন প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সাধারণ ছাত্ররা যারা, তাদের ১০ দফা দাবি মেনে নিয়েছে ভিসি। তারপরও না কি তারা আন্দোলন করবে। কেন করবে, জানি না। এরপর আন্দোলন করার কি যৌক্তিকতা থাকতে পারে।

শনিবার মহিলা শ্রমিক লীগের দ্বিতীয় সম্মেলনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি এই প্রশ্ন তোলেন। ফার্মগেইটে কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে এই সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘গত কয়েকদিন আগে বুয়েটে যে ঘটনা ঘটেছে। আমরা তো পিছিয়ে থাকিনি। কোন দল করে, সেটা না, খুনিকে খুনি হিসেবে দেখি। অন্যায়কারীকে অন্যায়কারী হিসেবে দেখি। অত্যাচারীকে অত্যাচারী হিসেবে দেখি। খবরটা পাওয়ার সাথে সাথে কারও আন্দোলনের অপেক্ষা করিনি, কারও নির্দেশের অপেক্ষা করিনি, সঙ্গে সঙ্গে আমি পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছি যে এদেরকে গ্রেপ্তার করা এবং ভিডিও ফুটেজ থেকে সমস্ত তথ্য সংগ্রহ করতে।’

আবরার হত্যা সংক্রান্ত সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করতে গেলে  পুলিশ বাধার মুখে পড়ে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এই ভিডিও ফুটেজ যখন সংগ্রহ করছে তখন তারা বাধা দিয়েছিল, কেন বাধা দিয়েছিল, আমি জানি না।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমার কাছে পুলিশের আইজিপি ছুটে আসলো.. কী করব। বললাম, তারা কী চায়। বলল, কপি চায়। বললাম কপি করে তাদের দিয়ে দাও। তোমরা তাড়াতাড়ি ফুটেজটা নাও, এটা নিলেই তো আমরা আসামি চিহ্নিত করতে পারব, ধরতে পারব, দেখতে পারব এবং সাথে সাথে ব্যবস্থা নিতে পারব।’

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘এই তিন-চার ঘণ্টা সময় যদি নষ্ট না করত, তাহলে তার আগেই হয়ত অনেকে পালাতে পারত না, তারা ধরা পড়তে পারত। এখানে সন্দিহান হওয়ার কিছু ছিল না। বিষয়টা কী আমি জানি না। সন্দিহান, না কি যারা জড়িত তারা বাধা, কোত্থেকে কী করেছে, বুঝতে পারি না। মনে হলো যেন আসামিদের চলে যাওয়ার একটা সুযোগই করে দেয়ার.. না কি ছিল..ওই আন্দোলন যারা করেছে তারা বলতে পারবে।’

‘আমি কিন্তু এক মিনিট দেরি করিনি। খবর পাওয়ার সাথে সাথে আমি ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছি এই ধরনের অন্যায় করলে কখনও তা মেনে নেয়া যায় না।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘জিয়াউর রহমান, খালেদা জিয়ার আমল থেকে শুরু করে এরশাদের আমলে, সব সময় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছিল একটা অস্ত্রের ঝনঝনানি। মেধাবী ছাত্রদের হাতে অস্ত্র তুলে দেয়া হয়েছিল। হিজবুল বাহার নামে যে জাহাজে জাতির পিতা বাংলাদেশের জনগণকে হজ করতে পাঠাত, হজ করা বন্ধ করে দিয়ে সেটা হয়ে গেল প্রমোদতরী।’

২০০২ সালের ৮ জুন ছাত্রদলের দুই গ্রুপের গোলাগুলির মধ্যে পড়ে বুয়েটের কেমিকৌশল বিভাগের মেধাবী ছাত্রী সাবেকুন নাহার সনি গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হন।

এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ছাত্রদলের দুই গ্রুপ বুয়েটে। তাদের টেন্ডার নিয়ে গোলাগুলিতে মারা গেল সাবেকুন নাহার সনি। সেই হত্যার কি বিচার হয়েছে? তখন কে প্রতিবাদ করল? তখন আমাদের বুয়েটের যারা অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন, তারা তো নামে নাই। তাদেরকে তো তখন নামতে দেখিনি। তখন তো প্রতিবাদ করতে দেখিনি তাদের। তখন তো তারা কোনো কথা বলেনি। হ্যাঁ, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে সবার কথা বলার অধিকার আছে। বলতে পারে অন্তত, এই সুযোগটা আছে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কোনো অন্যায়-অবিচার আমরা সহ্য করব না, করি নাই। ভবিষ্যতেও করব না। যারাই করুক, সে যেই অপরাধী হোক তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব। কারণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষার পরিবেশ রাখতে হবে।’

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আফম বাহাউদ্দিন নাছিম, মহিলা শ্রমিক লীগের সভাপতি রওশন জাহান সাথী, সাধারণ সম্পাদক শামসন্নাহার ভূঁইয়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

 

টাইমস/এসআই

চট্টগ্রামে খাটে মেয়ের, ফ্লোরে বাবার গলাকাটা লাশ

চট্টগ্রামে খাটে মেয়ের, ফ্লোরে বাবার গলাকাটা লাশ

চট্টগ্রামের বন্দর থানাধীন নিমতলা এলাকায় নিজ বাসা থেকে বাবা-মেয়ের গলাকাটা...

ঝিনাইদহে মাহেন্দ্রের ‍পিছনে ট্রাকের ধাক্কায় দুই নারী নিহত

ঝিনাইদহে মাহেন্দ্রের ‍পিছনে ট্রাকের ধাক্কায় দুই নারী নিহত

ঝিনাইদহ শহরের লাউদিয়া এলাকায় মাহেন্দ্রের ‍পিছনের ট্রাকের ধাক্কায় দুই নারী...

চট্টগ্রামে আগুনে পুড়ল দুই মার্কেটের শতাধিক দোকান

চট্টগ্রামে আগুনে পুড়ল দুই মার্কেটের শতাধিক দোকান

চট্টগ্রাম নগরীর নিউ মার্কেট সংলগ্ন জহুর হকার্স মার্কেট ও জালালাবাদ...

জাতীয়

শিশু হত্যাকারীদের কঠোরতম সাজা পেতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

শিশু হত্যাকারীদের কঠোরতম সাজা পেতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আজকে যারা শিশু নির্যাতন বা শিশু হত্যা করবে তাদের কঠোর থেকে কঠোরতম সাজা পেতে হবে, অবশ্যই পেতে হবে। এ ধরনের অন্যায়-অবিচার কখনই বরদাশত করা হবে না। শুক্রবার বিকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছোট ছেলে শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে ‘শেখ রাসেল জাতীয় শিশু–কিশোর পরিষদ’ আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

জাতীয়

বরণ্যে চিত্রশিল্পী কালিদাস কর্মকার আর নেই

বরণ্যে চিত্রশিল্পী কালিদাস কর্মকার আর নেই

একুশে পদক বিজয়ী বরণ্যে চিত্রশিল্পী কালিদাস কর্মকার রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে মারা গেছেন। এই খবর নিশ্চিত করেছেন তার ছোট ভাই শিল্পী প্রশান্ত কর্মকার। কালিদাস কর্মকারের বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর। শুক্রবার দুপুরে তাকে ঢাকার বাসা থেকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ল্যাবএইড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে চিকিৎসকরা কালিদাসকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিনোদন

প্রেম নেই অথচ শপিং মলে আদনানের হাতে হাত মেহজাবিনের! (ভিডিও)

প্রেম নেই অথচ শপিং মলে আদনানের হাতে হাত মেহজাবিনের! (ভিডিও)

জনপ্রিয় মডেল-অভিনেত্রী মেহজাবিন। বহুদিন ধরে তাকে নিয়ে গুঞ্জন, নাট্যনির্মাতা আদনান আল রাজিবের সাথে চুটিয়ে প্রেম করছেন তিনি। এমনকি এর আগে তারা দুজনই দেশ-বিদেশ ঘুরে বেরিয়েছেন বলেও খবর পাওয়া গেছে।

আন্তর্জাতিক

আফগানিস্তানে জুমার নামাজে বোমা বিস্ফোরণ, নিহত ৬২

আফগানিস্তানে জুমার নামাজে বোমা বিস্ফোরণ, নিহত ৬২

আফগানিস্তানের নানগারহার প্রদেশের হাসকা মিনা জেলায় একটি মসজিদের ভেতরে বোমা বিস্ফোরণে কমপক্ষে ৬২ জন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন শতাধিক মানুষ। খবর আল জাজিরার। শুক্রবার জুমার নামাজের সময় এই ঘটনা ঘটে। প্রাদেশিক সরকারের মুখপাত্র আতাউল্লাহ খোগিয়ানি বলেছেন, কমপক্ষে ৬২ জন নিহত হয়েছেন। বোমা বিস্ফোরণের সময় পুরো মসজিদটি প্রকম্পিত হয়ে উঠে।

রাজনীতি

‘যুবলীগ করার বয়স নিয়ে গণভবনে আলোচনা হবে’

‘যুবলীগ করার বয়স নিয়ে গণভবনে আলোচনা হবে’

অবৈধ ক্যাসিনো ব্যবসা ও টেন্ডারবাজির অভিযোগে সম্প্রতি যুবলীগের বেশ কয়েকজন নেতা গ্রেপ্তার হওয়ার পর যুবলীগের চেয়ারম্যান ওমর ফারুকের বিষয়টি আলোচনায় এসেছে। তার ব্যাংক হিসাব তলব করার পাশাপাশি বিদেশ যাওয়ার ওপরও নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে। ওমর ফারুকের বর্তমান বয়স ৭১। এই বয়সে যুবলীগের দায়িত্বে থাকা নিয়ে বেশ সমালোচনাও হচ্ছে। যদিও সংগঠনটির গঠনতন্ত্রে নির্দিষ্ট কোনো বয়স সীমা বেঁধে দেয়া নেই। আগামী ২৩ নভেম্বর যুবলীগের কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে। এই কাউন্সিলে সংগঠনটি পরিচালনার জন্য নতুন নেতৃত্ব আসতে পারে বলে আলোচনা আছে।

লাইফস্টাইল

হৃদরোগে আক্রান্ত বয়স্কদের ক্ষেত্রে শরীরচর্চা উপকারী

হৃদরোগে আক্রান্ত বয়স্কদের ক্ষেত্রে শরীরচর্চা উপকারী

বর্তমান সময়ে হৃদরোগ একটি মারাত্মক সমস্যা হিসেবে দেখা দিয়েছে। শুধু যুক্তরাষ্ট্রেই প্রতিবছর ৬,১০,০০০ জন হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন, আর হার্ট অ্যাটাক হয় ৭,৩৫,০০০ লোকের। যাদের বয়স ৬৫ বছরের বেশি, তরুণদের তুলনায় তাদের হৃদরোগে আক্রান্ত হবার আশঙ্কা বেশি।