• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ২১ আষাঢ় ১৪২৭

নোয়াখালীতে সন্ধ্যায় গ্রেপ্তার, ভোরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

নোয়াখালীতে সন্ধ্যায় গ্রেপ্তার, ভোরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, নোয়াখালী২৮ নভেম্বর ২০১৯, ১২:৪৩পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

নোয়াখালীতে গ্রেপ্তারের পর গোয়েন্দা পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১৬ মামলার এক আসামি নিহত হয়েছেন। নিহতের নাম ইব্রাহিম খলিল ওরফে ভাণ্ডারি রুবেল (২৭)।

বৃহস্পতিবার ভোর ৪টার দিকে সদর উপজেলার পশ্চিম মহদুরীপুর গ্রামে গোলাগুলির ওই ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি কামরুজ্জামান সিকদার।

নিহত ইব্রাহিম খলিল সদর উপজেলার আইউবপুর গ্রামের আবুল কাশেম ভাণ্ডারির ছেলে।

পুলিশের দাবি, নিহতের বিরুদ্ধে হত্যা, ডাকাতি, চাঁদাবাজি, মাদক চোরাকারবারসহ বিভিন্ন অভিযোগে ১৬টি মামলা রয়েছে। গোলাগুলির পর ঘটনাস্থল থেকে একটি এলজি, একটি পাইপগান, ছয় রাউন্ড গুলি, দুটি চাইনিজ কুড়াল, একটি ছোরা ও তিনটি রামদা উদ্ধার করা হয়েছে। সেই সঙ্গে ডিবির ওসিসহ পাঁচ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

ওসি (ডিবি) কামরুজ্জামান সিকদার জানান, বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার পূর্ব মহদুরীপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে ৬০ পিস ইয়াবাসহ একাধিক মামলার আসামি ভাণ্ডারি রুবেলকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ভোর রাতে তাকে নিয়ে অভিযানে বের হয় পুলিশ। তাকে নিয়ে পশ্চিম মহদুরীপুর গ্রামে সাফা মিয়ার বাগানবাড়ির কাছে পৌঁছালে রুবেলের সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। গোলাগুলিতে রুবেল নিহত হয়।

ওসি আরও জানান, গোলাগুলিতে তিনি নিজেসহ পুলিশের আরও চার সদস্য আহত হয়েছেন। বাকি চারজন হলেন- উপপরিদর্শক সায়েদ মিয়া, ওমর ফারুক, সহকারী উপপরিদর্শক মাসুদ আলম ও কনস্টেবল দেলোয়ার হোসেন।

 

টাইমস/এইচইউ

বন্ধুকে বাঁচিয়ে পানিতে ডুবে গেল তিন মেধাবী ছাত্র!

বন্ধুকে বাঁচিয়ে পানিতে ডুবে গেল তিন মেধাবী ছাত্র!

বিলে গোসলে গিয়েছিলেন বন্ধুরা। এসময় এক বন্ধু পানিতে তলিয়ে যাচ্ছিল।

দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা দুই হাজার ছাড়াল

দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা দুই হাজার ছাড়াল

দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৫৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

লাদাখ সীমান্তের দুই পারেই চলছে যুদ্ধের প্রস্তুতি

লাদাখ সীমান্তের দুই পারেই চলছে যুদ্ধের প্রস্তুতি

ভারত-চীন সীমান্তের কাছে যুদ্ধবিমান দিয়ে মহড়া চালিয়েছে ভারতীয় বিমান বাহিনী।

রাজনীতি

সরকারের নতজানু নীতির কারণেই সীমান্ত হত্যা বাড়ছে: রিজভী

সরকারের নতজানু নীতির কারণেই সীমান্ত হত্যা বাড়ছে: রিজভী

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেছেন, সীমান্তে প্রতিনিয়ত বাংলাদেশিদের হত্যা করছে বিএসএফ। বাংলাদেশের ভেতর থেকে ধরে নিয়ে গিয়ে নির্যাতনও চালাচ্ছে তারা। গত তিন মাসে ২৫ জন বাংলাদেশিকে হত্যা করেছে বিএসএফ। কিন্তু সরকার এসব নিয়ে একদম চুপ। সরকারের এই নতজানু নীতি বাংলাদেশের জন্য লজ্জার।

জাতীয়

গণস্বাস্থ্যকে ফের আবেদন করার পরামর্শ ওষুধ প্রশাসনের

গণস্বাস্থ্যকে ফের আবেদন করার পরামর্শ ওষুধ প্রশাসনের

করোনাভাইরাসের অ্যান্টিবডি কিটের অনুমোদন পেতে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রকে আবারো আবেদনের পরামর্শ দিয়েছে জাতীয় ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর। গণস্বাস্থ্যের কিট প্রকল্পের প্রধান সমন্বয়ক ডা. মুহিব উল্লাহ খোন্দকার এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

জাতীয়

করোনায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালকের মৃত্যু

করোনায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালকের মৃত্যু

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও এক চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। তার নাম অধ্যাপক ডা. এ কে এম নুরুল আনোয়ার (৭৮)। তিনি একসময় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

জাতীয়

অপরাধীর কোনো রাজনৈতিক পরিচয় নেই: কাদের

অপরাধীর কোনো রাজনৈতিক পরিচয় নেই: কাদের

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ত্রাণ চুরিসহ নানা অপরাধে যারা গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের পরিচয় হলো- তারা অপরাধী। তাদের কোনো রাজনৈতিক পরিচয় নেই। তাদের বিরুদ্ধে আইন আদালত ব্যবস্থা নেবে।

আন্তর্জাতিক

‘হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন’ করোনায় মৃত্যুঝুঁকি বাড়ায়: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

‘হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন’ করোনায় মৃত্যুঝুঁকি বাড়ায়: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

করোনার চিকিৎসায় মালেরিয়ার ওষুধ হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইনের ব্যবহার বন্ধ করার পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। একদল গবেষকের প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করে গত মে মাস থেকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসায় এই ওষুধ ব্যবহার হয়ে আসছিল।

স্বাস্থ্য

মাস্কে অস্বস্তি এড়ানোর কৌশল

মাস্কে অস্বস্তি এড়ানোর কৌশল

বিশ্বের বহু দেশেই করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকানোর একটি জনপ্রিয় ব্যবস্থা হচ্ছে মাস্ক ব্যবহার। বিশেষ করে চীনে, যেখান থেকে শুরু হয়েছে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ঘটনা, সেখানেও মানুষ বায়ুর দূষণের হাত থেকে বাঁচতে হরহামেশা নাক আর মুখ ঢাকা মুখোশ পরে ঘুরে বেড়ায়। কিন্তু, অনেকক্ষণ ধরে মাস্ক ব্যবহার করলে কিংবা একাধিক মাস্ক একসঙ্গে একটির ওপর আরেকটি রেখে ব্যবহার করলে অক্সিজেনের ঘাটতি হতে পারে।