• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০, ৩০ আষাঢ় ১৪২৭

এবার ব্যাংকের পরিচালক পদ হারালেন বিতর্কিত এমপি পাপুল

এবার ব্যাংকের পরিচালক পদ হারালেন বিতর্কিত এমপি পাপুল

নিজস্ব প্রতিবেদক২৯ জুন ২০২০, ০৩:৩৫পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

মানবপাচার ও অবৈধ মুদ্রাপাচারের অভিযোগে কুয়েতে গ্রেপ্তার বাংলাদেশের সংসদ সদস্য শহিদ ইসলাম পাপুলকে এনআরবি কমার্শিয়াল (এনআরবিসি) ব্যাংকের পরিচালক পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে ব্যাংকটির ভাইস চেয়ারম্যান ও এনআরবিসি ব্যাংক সিকিউরিটিজের চেয়ারম্যান পদ থেকেও বাদ পড়েছেন তিনি। প্রবাসীদের উদ্যোগে গঠিত এ ব্যাংকটির পরিচালনা পর্ষদের শনিবারের সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।

জানা গেছে, শহিদ ইসলাম পাপুল ছিলেন এনআরবিসি ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাকালীন উদ্যোক্তাদের একজন। অনিয়ম ও জালিয়াতির কারণে ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে ব্যাংকটির পরিচালনা এবং ব্যবস্থাপনায় পরিবর্তন আসে। তখনই ব্যাংকটির বিভিন্ন দায়িত্বে আসেন পাপুল।

এদিকে কুয়েতে গ্রেপ্তারের পর বিতর্কিত সংসদ সদস্য পাপুলকে পরিচালনা পর্ষদ থেকে বাদ দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংকের চেয়ারম্যান তমাল পারভেজ। তিনি জানান, ফৌজদারি অপরাধের সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে পাপুলকে বাদ দেয়া হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ২০১৩ সালে ব্যাংকটি প্রতিষ্ঠার সময় পাপুল ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের দুই কোটি শেয়ারের মালিকানা কেনেন। বর্তমানে তার শেয়ার রয়েছে প্রায় দুই কোটি ৩২ লাখ। এটি ব্যাংকটির মোট শেয়ারের সাড়ে ৪ শতাংশ। কাজেই তাকে পরিচালক পদ থেকে সরিয়ে দেয়া হলেও দোষী সাব্যস্ত না হওয়া পর্যন্ত ব্যাংকটিতে তার শেয়ার থাকবে।

এদিকে কুয়েতের একটি সূত্রে জানা গেছে, রিমান্ড শেষে পাপুলকে গত বৃহস্পতিবার কুয়েতের কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে। সেখানে ২১ দিন অবস্থান করবেন তিনি। এরই মধ্যে পাপুলের বিরুদ্ধে ঘুষ লেনদেন, মানব ও অবৈধ মুদ্রাপাচার এবং রেসিডেন্ট পারমিট বিক্রির অভিযোগ এনেছে কুয়েত কর্তৃপক্ষ। এরই পরিপ্রেক্ষিতে এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংক থেকে তিনি বাদ পড়লেন।

 

টাইমস/এসএন

আক্রান্ত ১ লাখ ৯০ হাজার ছাড়ালো, আরও ৩৩ জনের মৃত্যু

আক্রান্ত ১ লাখ ৯০ হাজার ছাড়ালো, আরও ৩৩ জনের মৃত্যু

দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

রিজেন্ট কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জাল সার্টিফিকেট দিতেন সাহেদ

রিজেন্ট কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জাল সার্টিফিকেট দিতেন সাহেদ

এবার রিজেন্ট কলেজ এবং রিজেন্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে জাল সার্টিফিকেট দেয়ার তথ্য

স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠক সাবেক মন্ত্রী শাহজাহান সিরাজের মৃত্যু

স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠক সাবেক মন্ত্রী শাহজাহান সিরাজের মৃত্যু

স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠকারী, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও বিএনপি সরকারের সাবেক বন

জাতীয়

চট্টগ্রাম বন্দর হয়ে ত্রিপুরা আসামে যাবে ভারতীয় মালামাল

চট্টগ্রাম বন্দর হয়ে ত্রিপুরা আসামে যাবে ভারতীয় মালামাল

চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহার করে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য ত্রিপুরা ও আসামে পণ্য পরিবহনের ‘ট্রায়াল রান’ শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার কলকাতা বন্দর থেকে চট্টগ্রাম বন্দরের উদ্দেশে কনটেইনার নিয়ে যাত্রা শুরু করেছে ‘এমভি সেঁজুতি’। মালবাহী জাহাজটি আগামী বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম বন্দরে পৌঁছবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

খেলাধুলা

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীতে বিয়ে করলেন ক্রিকেটার শান্ত

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীতে বিয়ে করলেন ক্রিকেটার শান্ত

এবার বিয়ের পিঁড়িতে বসলেন দেশের উদীয়মান ক্রিকেটার নাজমুল হোসেন শান্ত। পাত্রী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগের তৃতীয় বর্ষে ছাত্রী। নাম সাবরিন সুলতানা রত্না। তাদের দুজনের বাড়িই রাজশাহীতে।

জাতীয়

বগুড়া-যশোরের উপনির্বাচনের ভোট সুন্দর হয়েছে: ইসি সচিব

বগুড়া-যশোরের উপনির্বাচনের ভোট সুন্দর হয়েছে: ইসি সচিব

নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব মো. আলমগীর বলেছেন, বগুড়া-১ ও যশোর-৬ আসনের উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণ সুন্দরভাবে সম্পন্ন হয়েছে। কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেনি।

জাতীয়

বাড়ছে নদ-নদীর পানি, টাঙ্গাইলে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি

বাড়ছে নদ-নদীর পানি, টাঙ্গাইলে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি

টাঙ্গাইলে ফের বাড়তে শুরু করেছে যমুনা, ধলেশ্বরীসহ অন্যান্য নদ-নদীর পানি। গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় যমুনা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপৎসীমার ৩৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

জাতীয়

অবৈধ পথে সীমান্ত অতিক্রম: ঝিনাইদহে পাঁচদিনে নারী শিশুসহ ৩৫ জন আটক

অবৈধ পথে সীমান্ত অতিক্রম: ঝিনাইদহে পাঁচদিনে নারী শিশুসহ ৩৫ জন আটক

ঝিনাইদহের মহেশপুর সীমান্ত দিয়ে অবৈধপথে ভারতে যাওয়া-আসার চেষ্টাকালে ৫ দিনে অন্তত ৩৫ জনকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। আটকদের মধ্যে ১৬ জন পুরুষ, ১৫ জন নারী এবং ৪ জন শিশু রয়েছে।

মতামত

সঙ্গীকে নিয়ে সুখে থাকার দার্শনিক ব্যাখ্যা

সঙ্গীকে নিয়ে সুখে থাকার দার্শনিক ব্যাখ্যা

আমরা পৃথিবীতে এসেছি সুখে শান্তিতে থাকার জন্য। এই মানব জীবনের একমাত্র উদ্দেশ্য হলো ভালো থাকা। এই ভালো থাকার সবচেয়ে বড় উপাদান হলো সঙ্গী। সবাই সঙ্গী চায়, নারী পুরুষের সঙ্গ পেতে চায়, পুরুষ নারীর সঙ্গ চায়, প্রেমিক প্রেমিকার সঙ্গ চায়, প্রেমিকা প্রেমিকের সঙ্গ চাই।