• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বৃহস্পতিবার, ০২ জুলাই ২০২০, ১৮ আষাঢ় ১৪২৭

রাজশাহীতে করোনা উপসর্গে সাংবাদিকের মৃত্যু

রাজশাহীতে করোনা উপসর্গে সাংবাদিকের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী২৯ জুন ২০২০, ০৭:২৫পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে রাজশাহীতে তবিবুর রহমান মাসুম (৫২) নামে এক সাংবাদিকের মৃত্যু হয়েছে। রোববার রাত ৯ টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি মারা যান। সোমবার দুপুরে নগরীর হযরত শাহ মখদুম মসজিদে জানাজা শেষে রাজশাহী মহানগরীর হেতেমখাঁ কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়।

তবিবুর রহমান মাসুম রাজশাহীর দৈনিক সোনালী সংবাদের প্রধান প্রতিবেদক ছিলেন। দীর্ঘ ২৬ বছর এ পত্রিকায় তিনি দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া তিনি বাংলাদেশ বেতারের রাজশাহী জেলা সংবাদদাতা ছিলেন। তিনি বাংলাদেশ স্পোর্টস প্রেস অ্যাসোসিয়েশনের রাজশাহী শাখার সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। মাসুম সাংবাদিকতার পাশাপাশি নগরীর বঙ্গবন্ধু কলেজে শিক্ষকতা করতেন।

জানা গেছ, প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে তবিবুর রহমান মাসুম জ্বর ও কাশিতে ভুগছিলেন। নগরীর পাঠানপাড়া এলাকায় বাড়িতেই তার চিকিৎসা চলছিল। নানা রকম পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হলেও তার সুনির্দিষ্ট কোনো অসুখ ধরা পড়েনি। শেষে করোনা সন্দেহে গেল শুক্রবার তিনি এবং তার স্ত্রী রেবেকা সুলতানা নমুনা দেন। কিন্তু রোববার রাতে মাসুমের মৃত্যুর পর দেওয়া রিপোর্টে তাদের দুজনেরই করোনা নেগেটিভ এসেছে।

তবিবুর রহমান মাসুমের স্ত্রী রেবেকা সুলতানা জানিয়েছেন, প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে জ্বর ও কাশি ছিল মাসুমের। কোনোভাবেই জ্বর কমছিল না। হঠাৎ রোববার সন্ধ্যার পর তার শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। করোনা সন্দেহে দ্রুত তাকে রাজশাহীর খ্রিস্টিয়ান মিশন হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে অক্সিজেন দেওয়া হয়। কিন্তু শারীরিক অবস্থা ভালো ছিল না বলে মিশন হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। এরপর দ্রুত তাকে রামেক হাসপাতালের ২৯ নম্বর ওয়ার্ডে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

 

টাইমস/এইচইউ

সর্বোচ্চ শনাক্তের দিনে আক্রান্ত ছাড়াল দেড় লাখ

সর্বোচ্চ শনাক্তের দিনে আক্রান্ত ছাড়াল দেড় লাখ

দেশে প্রতিদিনই বেড়ে চলছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। দেশে

‘হীনমন্যতায় প্রতি রাতেই কেঁদেছি, অবশেষে পররাষ্ট্র ক্যাডার’

‘হীনমন্যতায় প্রতি রাতেই কেঁদেছি, অবশেষে পররাষ্ট্র ক্যাডার’

আমি সফল কেউ নই। অন্তত এখনো নই। তাই সফলতার গাঁথা

৩৭তম বিসিএসে শিক্ষা, এবার প্রশাসন ক্যাডার ঢাবি ছাত্রের

৩৭তম বিসিএসে শিক্ষা, এবার প্রশাসন ক্যাডার ঢাবি ছাত্রের

হুছাইন মুহাম্মদ। ৩৮ তম বিসিএসে প্রশাসন ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছেন। মেধাক্রম

জাতীয়

করোনা উপসর্গে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপকের মৃত্যু

করোনা উপসর্গে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপকের মৃত্যু

করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) অবসরপ্রাপ্ত ইমেরিটাস অধ্যাপক ডা. ফকরুল ইসলামের (৮৬) মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

চাকরি

৩৮তম বিসিএসে পুলিশ ক্যাডারে ১৭তম বুয়েটের সনদ বড়ুয়া

৩৮তম বিসিএসে পুলিশ ক্যাডারে ১৭তম বুয়েটের সনদ বড়ুয়া

চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল থেকে এসএসসি পাস করার পর ভর্তি হন চট্টগ্রাম কলজে। সেখানেও কৃতিত্বের সঙ্গে এইচএসসি পাস করেন তিনি।

স্বাস্থ্য

এবার করোনায় হলি ফ্যামিলি মেডিকেল চিকিৎসকের মৃত্যু

এবার করোনায় হলি ফ্যামিলি মেডিকেল চিকিৎসকের মৃত্যু

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও এক চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। তিনি হলেন হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের

চাকরি

সংসার সামলে প্রথম বিসিএসেই এএসপি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী!

সংসার সামলে প্রথম বিসিএসেই এএসপি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী!

নুসরাত ইয়াছমিন তিসা। পড়াশোনা করেছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগে। দ্বিতীয় বর্ষেই তাকে বিয়ে দিয়ে দেয়া হয়।

চাকরি

শাবিতে পড়াশোনা, একসঙ্গে বিসিএস ক্যাডার হওয়ার গল্প দুই বোনের

শাবিতে পড়াশোনা, একসঙ্গে বিসিএস ক্যাডার হওয়ার গল্প দুই বোনের

ফাতেমাতুজ জুহরা চাঁদনী ও সাদিয়া আফরিন তারিন পড়াশোনা করেছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে। ৩৮তম বিসিএসে তারা দুই বোনই

স্বাস্থ্য

স্ট্রেস আমাদের দেহের প্রতিরোধ ব্যবস্থা ধ্বংস করে দিতে পারে

স্ট্রেস আমাদের দেহের প্রতিরোধ ব্যবস্থা ধ্বংস করে দিতে পারে

স্ট্রেস মানব জীবনের অঙ্গ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ক্যারিয়ার বা কাজের চাপ থেকে শুরু করে ব্যক্তিগত-সামাজিক ইস্যু, হালের মহামারীসহ একাধিক কারণে স্ট্রেস বা মানসিক চাপ সৃষ্টি হতে পারে। স্ট্রেস বা মানসিক চাপ নানাভাবে আমাদের দেহের উপর বিরূপ প্রভাব ফেলে। তবে, অনেকে স্ট্রেসের নেতিবাচক প্রভাব সম্পর্কে সচেতন নয়, ফলে সময়মতো প্রতিকার বা চিকিৎসা গ্রহণ করেন না।