• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

গাঁজা কম পেয়ে পুলিশকে ফোন দিলেন নারী!

গাঁজা কম পেয়ে পুলিশকে ফোন দিলেন নারী!

কান্ট্রি ডেস্ক২৮ জানুয়ারি ২০১৯, ০৮:৪১পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

সালমা বেগম ও আবদুর রহিম- দুজনই মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। একজন বাড়ি সিলেটে, অন্যজনের ঢাকায়।

সোমবার ভোরে সিলেটের ব্রাহ্মণপাড়ার সীমান্ত এলাকায় রহিমের কাছে গাঁজা কিনতে যান সালমা।

পাইকারি কারবারি রহিমকে তিন কেজি গাঁজার টাকা দেন তিনি। কিন্তু রহিম তাকে এক কেজি গাঁজা দেন। আর এতেই বেধে যায় ঝামেলা।

পরে সালমা জাতীয় জরুরি সেবার ৯৯৯ নম্বরে ফোন দেন। গাঁজা কম দেয়ায় ওই কারবারির বিরুদ্ধে তিনি অভিযোগ করেন।

কিন্তু অভিযোগ জানাতে গিয়ে নিজেই পুলিশের জালে ধরা পড়লেন।

পুলিশ জানায়, সোমবার ভোরে কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া থানা পুলিশের এসআই মো. জাকির হোসেনের কাছে ফোন আসে জাতীয় জরুরি সেবার ৯৯৯ নম্বর থেকে। তাকে ফোনে জানানো হয় ব্রাহ্মণপাড়া বাজারে এক নারী গাঁজা ব্যবসায়ী রয়েছেন। খবর পেয়েই ফোর্স নিয়ে ছুটে যান এসআই মো. জাকির।

তবে পুলিশ আসার আগেই স্থানীয় পাইকারি মাদক কারবারি পালিয়ে যান। এ সময় জরুরি সেবার ৯৯৯ নম্বরে ফোন দেয়া খুচরা মাদক ব্যবসায়ী সালমা বেগমকে (৪০) গ্রেফতার করে পুলিশ।

জানা গেছে, সালমার বাড়ি নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায়। রহিমের কাছ থেকেই পাইকারিতে গাঁজা কিনে এনে ঢাকায় বিক্রি করেন সালমা বেগম।

তিন কেজি গাঁজার জন্য রহিমকে টাকা দেন সালমা। রহিম তিন কেজির টাকা নিয়ে গাঁজা দেন এক কেজি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রহিমের সঙ্গে সালমার বাগবিতণ্ডা হয়।

একপর্যায়ে জরুরি সেবার ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিয়ে বিস্তারিত জানান সালমা। তাৎক্ষণিক ৯৯৯ থেকে ব্রাহ্মণপাড়া থানা পুলিশকে বিষয়টি জানানো হয়।

পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগেই কৌশলে সটকে পড়েন পাইকারি ব্যবসায়ী রহিম। এ সময় এক কেজি গাঁজাসহ সালমাকে গ্রেফতার করা হয়।

ব্রাহ্মণপাড়া থানা পুলিশের এসআই মো. জাকির হোসেন বলেন, বিষয়টি এমন হবে বুঝতে পারিনি। ঘটনাস্থলে গিয়ে আমি অবাক হলাম। আবদুর রহিমকে পাওয়া না গেলেও সালমাকে গাঁজাসহ গ্রেফতার করা হয়।

পলাতক আবদুর রহিমকে আসামি করে মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে। তাকে ধরতে অভিযান চলছে।

‘করোনায় অযথা দামি ইনজেকশন নয়, খরচ মাত্র ১০০ টাকা’

‘করোনায় অযথা দামি ইনজেকশন নয়, খরচ মাত্র ১০০ টাকা’

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী জানিয়েছেন করোনাভাইরাসে

করোনাভাইরাসে ১৮ দেশে ৭১৭ বাংলাদেশির মৃত্যু

করোনাভাইরাসে ১৮ দেশে ৭১৭ বাংলাদেশির মৃত্যু

করোনাভাইরাসে দেশের বাইরেও মৃত্যুর মিছিল থামছে না। এপর্যন্ত আমেরিকাসহ ১৮

করোনা: একদিনে রেকর্ড ২৫২৩ জন শনাক্ত, ২৩ জনের মৃত্যু

করোনা: একদিনে রেকর্ড ২৫২৩ জন শনাক্ত, ২৩ জনের মৃত্যু

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ২

জাতীয়

করোনায় আক্রান্ত পুলিশের ৪৫৪৪ সদস্য, সুস্থ ১৫৬৩

করোনায় আক্রান্ত পুলিশের ৪৫৪৪ সদস্য, সুস্থ ১৫৬৩

মহামারী করোনাভাইরাসে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ চার হাজার ৫৪৪ জন সদস্য। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৫৬৩ জন। সুস্থ হওয়াদের মধ্যে বেশির ভাগ পুলিশ সদস্যই পুনরায় কাজে যোগ দিয়েছেন।

জাতীয়

প্রাথমিকের প্রশ্ন যাবে বাড়িতে, অভিভাবকদের সামনে পরীক্ষা!

প্রাথমিকের প্রশ্ন যাবে বাড়িতে, অভিভাবকদের সামনে পরীক্ষা!

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ দিনে দিনে বাড়ছে। এরই মাঝে দেশে লকডাউন শিথিল করে দেয়া হচ্ছে। খুলছে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। গাড়ি চলাচলও ধীরে

জাতীয়

বগুড়ায় ১৫ টন সরকারি চালসহ তিনজন আটক

বগুড়ায় ১৫ টন সরকারি চালসহ তিনজন আটক

বগুড়ার গাবতলী উপজেলায় কালোবাজারে বিক্রি সময় সরকারি চাল জব্দ করেছে পুলিশ। এসময় তিনজনকে আটক করা হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে চাল জব্দ করে থানায় নিয়ে আসা হয়।

জাতীয়

নোয়াখালীতে গাছে ঝুলছিল মায়ের লাশ, পুকুরে মেয়ের

নোয়াখালীতে গাছে ঝুলছিল মায়ের লাশ, পুকুরে মেয়ের

নোয়াখালী সদর উপজেলায় এক নারীর ঝুলন্ত লাশ ও তার আড়াই মাস বয়সী কন্যা সন্তানের লাশ পুকুর থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সদর উপজেলার নোয়াখালী ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের শল্লা গ্রামের কাজিরটেক এলাকা থেকে মা-মেয়ের লাশ উদ্ধার করা হয়।

আন্তর্জাতিক

হত্যার বদলা নিতে লিবিয়ায় গুলিতে নিহত ২৬ বাংলাদেশি

হত্যার বদলা নিতে লিবিয়ায় গুলিতে নিহত ২৬ বাংলাদেশি

লিবিয়ায় হত্যার বদলা নিতে মানব পাচারকারীরা গুলি করে ২৬ বাংলাদেশিকে মেরে ফেলা হয়েছে। এছাড়া গুলিতে আরও ৪ অভিবাসী নিহত হয়েছেন।

বিনোদন

যেসব শর্তে আবার শুরু হচ্ছে নাটকের শুটিং

যেসব শর্তে আবার শুরু হচ্ছে নাটকের শুটিং

কিছুদিন আগে গত ১৭ মে ৬ শর্ত মেনে নিজ দায়িত্বে শুটিং শুরুর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল টিভি নাটকের শীর্ষ সংগঠনগুলো। যদিও এই সিদ্ধান্তের একদিন পরই নিজেদের মধ্যে মতের মিল না হওয়ায় দূরে সরে আসে সংগঠনগুলো।