• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৭

যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা, স্বামীর ফাঁসি

যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা, স্বামীর ফাঁসি

নিজস্ব প্রতিবেদক, কিশোরগঞ্জ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৩:১৪পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

কিশোরগঞ্জে যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা ও লাশ গুম করার দায়ে ছোটন মিয়া নামে এক ব্যক্তিকে মৃত্যুদণ্ড আদেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাকে ২৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করা হয়। আর অভিযোগ প্রমাণ না হওয়ায় মামলার অপর চার আসামিকে খালাস দেয়া হয়।

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) কিশোরগঞ্জ ১নং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক কিরণ শংকর হালদার এ রায় ঘোষণা করেন। মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত ছোটন মিয়া নেত্রকোনা জেলার মদন উপজেলার ঘাটুয়া পশ্চিমপাড়ার আবদুর রহমানের ছেলে। রায়ের পর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

জানা গেছে, বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য স্ত্রী হাফসা খাতুনকে মারধর করতেন ছোটন মিয়া। বিয়ের দুই বছরের মাথায় ২০০৫ সালে ৭ হাজার টাকা যৌতুক দাবি করেন তিনি। টাকা দিতে না পারায় অমানুষিক নির্যাতন করা হয়। ২০০৫ সালের প্রথম দিকে হাফসাকে পিটিয়ে বাঁ পা ভেঙে দেয় ছোটন। পরে তাঁর বড় ভাই তামজিদের বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়। ২০০৫ সালের ৭ মে চিকিৎসার কথা বলে হাফসাকে তাঁর স্বামী নিজ বাড়িতে নিয়ে যান।

এর দুই সপ্তাহ পর হাফসার শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে হাফসাকে পাননি বড় ভাই তামজিদ। তাঁকে জানানো হয়, ময়মনসিংহে চিকিৎসা করিয়ে হাফসাকে গোবিন্দশ্রী গ্রামে এক আত্মীয়ের বাড়িতে রাখা হয়েছে। সেখানে গিয়েও তামজিদ তাঁর বোন হাফসার দেখা পাননি। পরে ২৪ মে কিশোরগঞ্জের ইটনা উপজেলার বরশিকুড়া এলাকার চরে হাফসার লাশ পাওয়া যায়।

এ ঘটনায় ২৬ মে তামজিদ বাদী হয়ে বোনের স্বামী ছোটন, শ্বশুর ইসলাম উদ্দিন, স্বজন রোকন, কুসুম উদ্দিন, আবদুল মান্নাফ ও আবদুর রহমানকে আসামি করে ইটনা থানায় মামলা করেন। মামলার সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে এই রায় দেওয়া হয়।

 

টাইমস/এসজে/এসএন

ছাত্রসমাজকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে : শিক্ষামন্ত্রী

ছাত্রসমাজকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে : শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, একটি চিহ্নিত মহল দেশকে অস্থিতিশীল

ভ্যাকসিন নিয়েও করোনায় আক্রান্ত ত্রাণ সচিব

ভ্যাকসিন নিয়েও করোনায় আক্রান্ত ত্রাণ সচিব

ভ্যাকসিন নেয়ার ১২ দিন পর করোনা আক্রান্ত হয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা

রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ, চট্টগ্রামে যুবক গ্রেপ্তার

রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ, চট্টগ্রামে যুবক গ্রেপ্তার

চট্টগ্রামে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ভিকটিমের

আন্তর্জাতিক

জামাল খাশোগি হত্যায় ফেঁসে যাচ্ছেন সৌদি যুবরাজ

জামাল খাশোগি হত্যায় ফেঁসে যাচ্ছেন সৌদি যুবরাজ

বিশ্বব্যাপী আলোচিত ২০১৮ সালে সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাÐের একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করতে যাচ্ছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ। প্রতিবেদনে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে খাশোগি হত্যাকাণ্ডের নির্দেশদাতা হিসেবে উপস্থাপন করা হতে পারে।

জাতীয়

শাহবাগে বিক্ষোভ : জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০ শিক্ষার্থী আটক

শাহবাগে বিক্ষোভ : জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০ শিক্ষার্থী আটক

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থগিত হওয়া সকল পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে শাহবাগে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা। এসময় বিক্ষোভ থেকে অন্তত ১০ শিক্ষার্থীকে আটক করেছে পুলিশ।

জাতীয়

পুলিশের হাত থেকে পালিয়ে ইয়াবাসহ যুবক ভাইরাল (ভিডিও)

পুলিশের হাত থেকে পালিয়ে ইয়াবাসহ যুবক ভাইরাল (ভিডিও)

ইয়াবাসহ পুলিশের হাতে ধরা পড়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার এক যুবক। তবে ধরা পড়ার আগে পুলিশকে ফাঁকি দিয়ে দৌড়ে পালিয়ে গিয়েছিলেন নূরনবী নামের ওই যুবক। তার এই পালিয়ে যাওয়ার একটি ভিডিও এরই মধ্যে ভাইরাল হয়েছে।

আন্তর্জাতিক

তেল-গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি : মমতার অভিনব প্রতিবাদ (ভিডিও)

তেল-গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি : মমতার অভিনব প্রতিবাদ (ভিডিও)

পেট্রোল, ডিজেল ও রান্নার গ্যাসের দাম বেড়ে যাওয়ায় অভিনব প্রতিবাদ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। জ¦ালানির দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় তিনি ইলেকট্রিক মোটরসাইকেলে চেপে অফিস নবান্নে গেছেন। একই মোটরসাইকেলে করে তিনি বাসায় ফিরবেন।

জাতীয়

মাকে আনতে গিয়ে সড়কে নিহত জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র

মাকে আনতে গিয়ে সড়কে নিহত জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র

মাকে আনতে গিয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) লোকপ্রশাসন বিভাগের ছাত্র আবদুল্লাহ আল মাহমুদ শাফি। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের (৪৭তম ব্যাচ) এবং আল-বেরুনী হলের আবাসিক ছাত্র ছিলেন। তার বাড়ি নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার সোনাপুর গ্রামে।

অর্থনীতি

সীমানা পেরিয়ে বিদেশে যাচ্ছে ঝিনাইদহের সবজি

সীমানা পেরিয়ে বিদেশে যাচ্ছে ঝিনাইদহের সবজি

ঝিনাইদহে মাঠের পর মাঠ সবজি ক্ষেত। সময়ের চাহিদার সাথে পাল্লা দিয়ে সবজি চাষে আগ্রহী হয়ে উঠছে কৃষক। পান, কলা এ জেলার প্রধান অর্থকরী ফসল হলেও প্রান্তিক কৃষকরা এখন ঝুঁকে পড়ছে সবজি চাষে। বদলে গেছে এ অঞ্চলের সবজি চাষের পদ্ধতি। কৃষি বিভাগের জৈব কৃষি ও জৈবিক বালাই দমন ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে বিষমুক্ত সবজি উৎপাদন করা হচ্ছে। যে কারনে বাণিজ্যিক ভাবে অনেকেই এখন সবজি চাষ শুরু করেছেন। এসব সবজি দেমের সীমানা পেরিয়ে রপ্তানী করা হচ্ছে দূর পরবাসে।