• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬

গাজীপুরে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদে মার খেলেন ছাত্র-শিক্ষক

গাজীপুরে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদে মার খেলেন ছাত্র-শিক্ষক

নিজস্ব প্রতিবেদক১৩ জুলাই ২০১৯, ০৬:৫২পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

মাদ্রাসাছাত্রীদের উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করতে গিয়ে বখাটেদের হাতে মার খেয়েছেন মাদ্রাসার এক ছাত্র ও শিক্ষক। গাজীপুরের কালিয়াকৈরে ওই ঘটনায় শনিবার সকালে তিন বখাটেকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছেন এলাকাবাসী।

আটককৃতরা হচ্ছে- উপজেলার কোটবাড়ি এলাকার সেলিম হোসেনের ছেলে শাকিব হোসেন, একই এলাকার শফিকুল ইসলামের ছেলে পায়েল মিয়া ও পাশের পাইকপাড়া এলাকার আওয়াল হোসেনের ছেলে আশিকুর রহমান।

কালিয়াকৈর উপজেলার সাতকুড়া এলাকার সাতকুড়া সুফিনগর দাখিল মাদ্রাসায় এ ঘটনা ঘটে। প্রতিদিনের মতো ওই মাদ্রাসায় শিক্ষার্থীদের ক্লাস চলছিল। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কয়েকজন ছাত্রী মাদ্রাসার টিউবওয়েলে পানি খেতে যায়। এ সময় চারজন বখাটে ওই মাদ্রাসার সীমানার ভেতরে ঢুকে ওই ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত করে। এ সময় মাদ্রাসার নবম শ্রেণির ছাত্র আমিনুর ইসলাম তাদের বাধা দিলে তাকে কয়েকটি থাপ্পড় দেয় বখাটেরা। মাদ্রাসার শিক্ষক আবদুল হক ওই ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত ও ছাত্রকে থাপ্পড়ের প্রতিবাদ করলে তাকেও মারধর করা হয়। পরে আহত শিক্ষককে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। পুলিশ ও মাদ্রাসার ছাত্র-শিক্ষকরা এসব তথ্য জানিয়েছেন।

পরে এলাকাবাসী খবর পেয়ে ধাওয়া দিয়ে শাকিব, পায়েল ও আশিকুর নামের তিন বখাটেকে আটক করেন। এ সময় আরেক বখাটে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। দুপুরে আটক ব্যক্তিদের কালিয়াকৈর থানা-পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছেন এলাকাবাসী।

এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে বলে জানান কালিয়াকৈর থানাধীন ফুলবাড়িয়া পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ উপপরিদর্শক (এসআই) জামাল উদ্দিন।

 

টাইমস/এসআই

এবার কেরানীগঞ্জে ছেলেধরা সন্দেহে দুজনকে গণপিটুনি, নিহত ১   

এবার কেরানীগঞ্জে ছেলেধরা সন্দেহে দুজনকে গণপিটুনি, নিহত ১  

ঢাকা কেরানীগঞ্জে ছেলেধরা সন্দেহে অজ্ঞাতপরিচয় দুই যুবককে গণপিটুনি দিয়েছে এলাকাবাসী। এতে একজন নিহত হয়েছেন।

‘প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার প্রক্রিয়া চলছে’

‘প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার প্রক্রিয়া চলছে’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, প্রিয়া সাহার বক্তব্য শুধু নিন্দনীয় অপরাধ নয়, সাম্প্রদায়িক শক্তির জন্য উসকানিমূলক। দেশদ্রোহী এ বক্তব্যের জন্য ব্যবস্থা নিতে হবে এবং এর প্রক্রিয়া চলছে।

১৮ বছর সাজা ভোগের পর কিশোরীকে ধর্ষণ-হত্যা

১৮ বছর সাজা ভোগের পর কিশোরীকে ধর্ষণ-হত্যা

দীপ্তিকে একটি ইজিবাইকের চালক ইজিবাইক থেকে নামিয়ে বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যা করেন। পরে লাশটি গুম করতে একটি পরিত্যক্ত পুকুরে ইট বেঁধে ডুবিয়ে রাখা হয়।

জাতীয়

র‍্যাব কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীকে নিখোঁজ করার অভিযোগ

র‍্যাব কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীকে নিখোঁজ করার অভিযোগ

ঢাকার এক কাঠ ব্যবসায়ী এক মাস ধরে নিখোঁজ। আর এই ব্যবসায়ী নিখোঁজ হওয়ার জন্য তার পরিবার দায়ী করেছে এক র‌্যাব কর্মকর্তাকে। শনিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলন করেন মিরপুরের নিখোঁজ ব্যবসায়ী ইসমাইল হোসেনের(৬০) স্ত্রী নাসরিন জাহান স্মৃতি ও ছোট ভাই খায়রুল আলম।

জাতীয়

‘আমরা প্রিয়া সাহাকে অবশ্যই জিজ্ঞাসা করব'

‘আমরা প্রিয়া সাহাকে অবশ্যই জিজ্ঞাসা করব'

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, বাংলাদেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘু নির্যাতনের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ট ট্রাম্পের কাছে কোন উদ্দেশ্যে এবং কি কারণে করা হয়েছে, বাংলাদেশে ফিরলেই প্রিয়া সাহাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

জাতীয়

প্রিয়া সাহা জঘন্য মিথ্যাচার করেছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রিয়া সাহা জঘন্য মিথ্যাচার করেছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন বলেছেন, প্রিয়া সাহা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে যে অভিযোগ করেছেন, তা একেবারেই মিথ্যা। বিশেষ মতলবে এমন উদ্ভট কথা বলেছেন তিনি। আমি এমন আচরণের নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

জাতীয়

নোয়াখালীতে যৌন হয়রানির অভিযোগে প্রধান শিক্ষক আটক

নোয়াখালীতে যৌন হয়রানির অভিযোগে প্রধান শিক্ষক আটক

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীদের যৌন হয়রানির অভিযোগে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক প্রধান শিক্ষককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে অভিভাবক ও স্থানীয়রা।

জাতীয়

উত্তর বাড্ডায় ‘ছেলেধরা’ সন্দেহে গণপিটুনিতে নারী নিহত

উত্তর বাড্ডায় ‘ছেলেধরা’ সন্দেহে গণপিটুনিতে নারী নিহত

রাজধানীর উত্তর বাড্ডায় একটি স্কুলে ‘ছেলেধরা’ সন্দেহে অজ্ঞাতপরিচয় এক নারী গণপিটুনিতে মারা গেছেন।

বিনোদন

বাংলাদেশ নয় ভারতেই জন্ম শাহতাজের!

বাংলাদেশ নয় ভারতেই জন্ম শাহতাজের!

তরুণ প্রজন্মের কাছে বেশ পরিচিত মুখ শাহতাজ মুনিরা হাশেম। তার প্রতি ভক্তদের আগ্রহ একটু বেশি। তাদের অনেকের ক্রাশ হয়ে আছেন এই মডেল।