• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬

অকুতোভয় বীর সৈনিক শহীদ সার্জেন্ট জ‎হুরুল হক  

অকুতোভয় বীর সৈনিক শহীদ সার্জেন্ট জ‎হুরুল হক   

ফিচার ডেস্ক০১ মে ২০১৯, ০২:৪১পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

রাজা-মহারাজাদের শাসনামল থেকে শুরু করে বাংলাদেশের স্বাধীনতা লাভের পূর্ব পর্যন্ত অসংখ্য বীর সেনানি শাসকগোষ্ঠির বিরুদ্ধে অন্যায়ের প্রতিবাদে আন্দোলন সংগ্রাম করে গেছেন। তাদের মধ্যে কেউ সফল হয়েছেন, কেউবা বিসর্জন দিয়েছেন নিজের প্রাণটাই। তেমনি একজন ব্যক্তিত্ব শহীদ সার্জেন্ট জ‎হুরুল হক।

বাংলাদেশকে পাকিস্তানি ঔপনিবেশিক শাসন থেকে মুক্ত করে স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার অদম্য আকাঙ্ক্ষা ও দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ সাহসী সৈনিক সার্জেন্ট জহুরুল হক। যেসব বীর বাঙ্গালির মহান আত্মত্যাগের ফলে ঊনসত্তরের গণআন্দোলন তীব্র আকার ধারণ করে এবং যা শেষ পর্যন্ত মহান মুক্তিযুদ্ধের রূপ নেয় তাদের অন্যতম একজন সার্জেন্ট জ‎হু‎রুল হক। তিনি আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার অন্যতম আসামী ও শহীদ ব্যক্তিত্ব।

এই মহান ব্যক্তি ১৯৩৫ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি নোয়াখালী জেলার সোনাপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৫৩ সালে নোয়াখালী জিলা স্কুল থেকে ম্যাট্রিক পাস করেন। ১৯৫৬ সালে জগন্নাথ কলেজের (বর্তমান জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়) ব্যবসায় শিক্ষা শাখা থেকে ইন্টারমেডিয়েড পাশ করেন এবং ওই বছরই পাকিস্তান বিমান বাহিনীতে যোগদান করেন। কর্মক্ষেত্রে তার কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ তিনি খুব দ্রুত 'সার্জেন্ট' পদে পদোন্নতি লাভ করেন।

আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার আসামিদের মধ্যে সার্জেন্ট জহুরুল হক ছিলেন ১৭তম। ১৯৬৭ সালের ডিসেম্বর মাসে তাকে গ্রেপ্তার করে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়। পরবর্তীকালে আরও কয়েকজন আসামিসহ তাকে ঢাকা (কুর্মিটোলা) ক্যান্টনমেন্টে স্থানান্তরিত করা হয়। এই একই অভিযোগে ১৯৬৮ সালের ১৭ জানুয়ারি শেখ মুজিবুর রহমানকেও গ্রেপ্তার করা হয়। ৩৫ জনকে আসামী করে সরকার পক্ষ মামলা দায়ের করে।

পাকিস্তান সরকারের দায়ের করা এ মামলাকে জনসাধারণ পূর্ব পাকিস্তানের স্বাধিকার আন্দোলনের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র মামলারূপে বিবেচনা করে। তারা আন্দোলন সঙ্ঘবদ্ধ করেন এবং অবিলম্বে এ মামলা রদ করে কয়েদীদের মুক্তি দাবি করেন। সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ১৯৬৯ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি এ মামলার বিচারের শেষ তারিখ নির্ধারিত হয়। কিন্তু ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানের প্রেক্ষিতে সরকার এ তারিখ পরিবর্তন করতে বাধ্য হয়।

১৯৬৯ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় ক্যান্টমেন্টে সৈনিকদের খাবারের উচ্ছিষ্ট সংগ্রহের জন্য বাঙালি শিশুরা ভিড় করে।এতে অবাঙালি সৈনিকেরা কয়েকজন অভুক্ত শিশুকে ধরে এনে বন্দীশিবিরের সামনে অমানবিকভাবে প্রহার শুরু করে। কয়েকজনবন্দী এ ঘটনায় প্রতিবাদ জানালে হাবিলদার 'মনজুরশাহ' বন্দীদের নিজ নিজ কামরায় ফিরে যেতে আদেশ করেন। জহুরুল হক সে আদেশ উপেক্ষা করে মনজুর শাহের সঙ্গে তর্ক-বিতর্কে লিপ্ত হয়ে পড়েন। এতে মনজুরশাহ প্রচণ্ডভাবে রাগান্বিত হয়ে রাইফেলের বেয়োনেট লাগিয়ে তার দিকে ধেয়ে আসেন। কিন্তু জহুরুল হক পাশ কাটিয়ে আক্রমণকারীর হাত থেকে রাইফেল ছিনিয়ে নেন এবং বিজয়ী বীরের মতো কামরার দরজায় গিয়ে তাকে রাইফেল ফেরত দেন।

পরদিন ১৫ ফেব্রুয়ারি ভোরবেলা জহুরুল হক ঘর থেকে বের হলে মনজুর শাহ তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে।ও ই গুলিটি তার পেটে বিদ্ধ হয়। সঙ্গে সঙ্গে তাকে কম্বাইন্ড মিলিটারি হাসপাতালে (সিএমএইচ) নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে রাত ১০ টার দিকে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষুব্ধ জনতা সরকারি অতিথি ভবন ও অন্যান্য সরকারি অট্টালিকায় অগ্নি সংযোগ করে। গণ-আন্দোলনের চাপে ১৯৬৯ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি সরকার আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা রদ করতে বাধ্য হয়। ব্যাপক গণ-বিক্ষোভের মুখে ২৫ মার্চ, ১৯৬৯ তারিখে আইয়ুব খান সরকারের পতন ঘটে।

স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধে বিশেষ অবদানের জন্য এই মহান ব্যক্তিত্ব ২০১৮ সালে স্বাধীনতা পুরস্কার পান। বাংলাদেশ স্বাধীন হবার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের আবাসিক হল ‘ইকবাল হল’ এর নাম পরিবর্তন করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ হলটির নামকরণ করেন 'শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হল'।

এছাড়া তার স্মৃতি রক্ষার্থে চট্টগ্রামে অবস্থিত বাংলাদেশ বিমান বাহিনী ঘাঁটির নামকরণ করা হয় বাংলাদেশ বিমান বাহিনী ঘাঁটি জহুরুল হক।

সার্জেন্ট জহুরুল হকের সহকর্মীরা তাকে একজন অনমনীয় ও সৎ সৈনিক হিসেবে জানতেন। তারা অনেক সময় তাঁকে ‘মার্শাল’ বলে সম্বোধন করতেন। জহুরুল হক একজন ভালো চিত্রশিল্পী ও খেলোয়াড় ছিলেন। তিনি কাঠের শিল্পকর্মেও পারদর্শী ছিলেন। তার কিছু চিত্রকর্ম বাংলাদেশ জাতীয় যাদুঘরে সংরক্ষিত আছে।

সার্জেন্ট জহুরুল হক স্বাধীনচেতা ও দেশপ্রেমিক সৈনিক ছিলেন। তার শহীদ স্মৃতি পূর্ব বাংলায় বাঙালি জাতীয়তাবাদী আন্দোলনকে শাণিত করে তোলার ক্ষেত্রে বলিষ্ঠ ও অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন। এ গণ-আন্দোলনের পথ ধরেই পরবর্তীকালে সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে ১৯৭১ সালে একটি স্বাধীন ও সার্বভৌম বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা লাভ করে। জহুরুল হক 'বাঙালি জাতির সূর্য সন্তান' হিসেবে আখ্যায়িত হয়ে থাকবেন চিরকাল।

 

টাইমস/এসআর/এইচইউ

রাজহংসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর

রাজহংসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর

বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের চতুর্থ ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার বিকালে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর (এইচএসআইএ)’র ভিভিআইপি টারমাকে ফিতা কেটে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকাবাহী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের এয়ারক্রাফট ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করেন।

অভিযোগ প্রমাণিত হলে জাবি ভিসির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা: কাদের

অভিযোগ প্রমাণিত হলে জাবি ভিসির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ছাত্রলীগ নেতাদের চাঁদা দেয়ার অভিযোগ যদি সত্য প্রমাণিত হয় এবং অভিযুক্ত জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভিসি) ফারজানা ইসলাম দোষী প্রমাণ হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

ডাকসু থেকে রাব্বানীর পদত্যাগ চাইলেন ভিপি নুর

ডাকসু থেকে রাব্বানীর পদত্যাগ চাইলেন ভিপি নুর

নানা ধরনের অপকর্মের অভিযোগ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদকের পদ হারানো গোলাম রাব্বানীকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের(ডাকসু)  জিএস পদ থেকে স্বেচ্ছায় পদত্যাগের আহ্বান জানিয়েছেন ডাকসু সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর। মঙ্গলবার গণমাধ্যমকে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘আমি তাকে (রাব্বানীকে) ডাকসু থেকে পদত্যাগের আহ্বান জানাই। আমি আগে থেকেই এটা বলে আসছি। কারণ তিনি এই পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতি সম্মান রেখে তার উচিত পদত্যাগ করা।’

আন্তর্জাতিক

আফগান প্রেসিডেন্টের নির্বাচনী সমাবেশে বোমা হামলা, নিহত ২৪

আফগান প্রেসিডেন্টের নির্বাচনী সমাবেশে বোমা হামলা, নিহত ২৪

আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনির এক নির্বাচনী সমাবেশে বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে ২৪ জন নিহত ও বহু আহত হয়েছেন। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সকালের দিকে রাজধানী কাবুলের উত্তরাঞ্চলের পারওয়ান প্রদেশের চারিকরে নির্বাচনী সমাবেশে গনি ভাষণ দেয়ার সময় এই হামলা হয় বলে জানিয়েছে ডয়চে ভেলে ও রয়টার্স। তাৎক্ষণিকভাবে কোনো গোষ্ঠী হামলার দায় স্বীকার করেনি।

জাতীয়

ছাত্রলীগকে ১ কোটি টাকা দিয়েছি এটা প্রমাণ করুক: জাবি ভিসি

ছাত্রলীগকে ১ কোটি টাকা দিয়েছি এটা প্রমাণ করুক: জাবি ভিসি

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন দাবি করেছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগকে ঈদ সালামি বাবদ ১ কোটি টাকা দিয়েছেন। এর মধ্যে জাবি ছাত্রলীগের সভাপতি জুয়েল রানা নিয়েছেন ৫০ লাখ টাকা, সাধারণ সম্পাদক এসএম আবু সুফিয়ান চঞ্চল নিয়েছেন ২৫ লাখ টাকা আর তিনি (সাদ্দাম) নিয়েছেন ২৫ লাখ টাকা। এ দাবি প্রত্যাখ্যান করে উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম বলেছেন, সাদ্দাম মিথ্যা বলছেন। এই ধরনের মিথ্যা বলা বন্ধ না করলে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিনোদন

সোহানির স্বপ্ন বহুদূর...

সোহানির স্বপ্ন বহুদূর...

হালের আলোচিত মডেল-অভিনেত্রী সোহানি ইসরাত। বর্তমানে এই অভিনেত্রীকে দেখা যাচ্ছে রূপকথার গল্পভিত্তিক মেগা ধারাবাহিক ‘মায়া মসনদ’-এ। এনটিভিতে সম্প্রচারিত এই নাটকটি পরিচালনা করেছেন এসএম সালাহ উদ্দীন।

জাতীয়

২০টি রেল ইঞ্জিন বাংলাদেশকে দিচ্ছে ভারত: রেলমন্ত্রী

২০টি রেল ইঞ্জিন বাংলাদেশকে দিচ্ছে ভারত: রেলমন্ত্রী

রেলপথমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, রেলে লোকোমোটিভ সঙ্কট রয়েছে। ভারতীয় ঋণে যেসব ইঞ্জিন আসার কথা, সেগুলো ২০২২ সাল নাগাদ পাওয়া যাবে। এর আগে রেলের ইঞ্জিন সঙ্কট কাটাতে আমরা তাদের কাছে ক্রয় অথবা ভাড়ায় কিছু ইঞ্জিন চেয়েছিলাম। কিন্তু তারা আমাদের ২০টি ইঞ্জিন বন্ধুত্বের নিদর্শন হিসেবে দিতে রাজি হয়েছে। এর ১০টা মিটার গেজ এবং ১০টা ব্রড গেজ। মঙ্গলবার রেল ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান। সম্প্রতি তিনি ভারত ও চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন।

আন্তর্জাতিক

গভীর রাতে শোনা যায় কাশ্মীরি তরুণদের আর্তচিৎকার

গভীর রাতে শোনা যায় কাশ্মীরি তরুণদের আর্তচিৎকার

জম্মু-কাশ্মীরে তরুণদের ওপর ভারতীয় সেনাদের নির্যাতনের মাত্রা ব্যাপক হারে বেড়েছে। ভয় ও আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি করতেই এই বেপরোয়া নির্যাতন চালানো হচ্ছে বলে স্থানীয়রা বলছেন। গত ৫ আগস্ট জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ সাংবিধানিক মর্যাদা দেয়ার ধারা ৩৭০ বাতিল করে ভারত সরকার। এতে জম্মু-কাশ্মীরকে দ্বিখণ্ডিত হয় পড়ে। জম্মু-কাশ্মীরকে পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করেছে ভারত। এরপর থেকেই নৃশংস ও বর্বর নির্যাতন চালানো হচ্ছে কাশ্মীরিদের ওপর। ভারতীয় সেনাদের নির্যাতনের শিকার সোফিয়ান জেলার হিরপোরা গ্রামের ২৬ বছর বয়সী আবিদ খান।

পথিকৃৎ

আলিবাবার ২০তম জন্মদিনেই পদত্যাগ করলেন জ্যাক মা

আলিবাবার ২০তম জন্মদিনেই পদত্যাগ করলেন জ্যাক মা

১৯৯৯ সালে প্রতিষ্ঠিত বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম ইন্টারনেট সংস্থা আলিবাবার বর্তমান বাজার দর ৪৮০ বিলিয়ন ডলার এবং ফোর্বস ম্যাগাজিনের তথ্য অনুযায়ী জ্যাক মা চিনের সব থেকে ধনী ব্যক্তিত্ব, যার সম্পদের পরিমাণ ৩৮.৬ বিলিয়ন ডলার। চীনে তার প্রজন্মের বিশিষ্ট ইন্টারনেট উদ্যোক্তাদের মধ্যে তিনিই প্রথম, যিনি নিজের প্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী প্রধানের পদ থেকে পদত্যাগ করলেন।