সিলেট টেস্টে : দ্রুত তিন উইকেট হারিয়ে প্রথম দিন শেষ টাইগারদের

ঘরের মাঠে লঙ্কানদের বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে মাঠে নেমেছে টাইগাররা। সিলেট প্রথম দিন শেষে শ্রীলঙ্কার থেকে ২১৬ রানে পিছিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ। এদিন বোলিংয়ে ভালো শুরু করলেও ব্যাটিংয়ে পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে স্বাগতিকরা।

শুক্রবার (২২ মার্চ) টস জিতে সফরকারীদের ব্যাটিংয়ে পাঠায় স্বাগতিকরা। প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে ২৮০ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ। জবাব দিতে নেমে প্রথম দিনে তিন উইকেট হারিয়ে ৩২ রান সংগ্রহ করেছে স্বাগতিকরা। মাহমুদুল হাসান জয় ৩৪ বলে ৯ রানে এবং তাইজুল শূন্য রানে অপরাজিত রয়েছেন।

দিনের শেষ সময়ে ব্যাটিংয়ে নেমে লঙ্কানদের বোলিং তোপে দ্রুত তিন উইকেট হারিয়ে বসে বাংলাদেশ। ৮ বলে ৯ রান করে লেগ বিফোরে কাঁটা পড়েন ওপেনার জাকির হাসান। ১০ বলে ৫ রান করে ফার্নান্দোর দ্বিতীয় শিকার হন শান্ত। জাকিরের মতো লেগ বিফোরে শিকার হন এই টাইগার অধিনায়ক। এদিন ব্যাট হাতে আলো ছড়াতে পারেননি মুমিনুল হকও। ৭ বলে ৫ রান করে ক্যাচ আউট হন তিনি।

এর আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই উইকেট হারায় লঙ্কানরা। খালেদের অফ-স্ট্যাম্পের বাইরে এক আউট সুইংয়ে ড্রাইভ করতে গিয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন ওপেনার নিশান মাদুশকা। শুরুর ধাক্কা সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন কুশল মেন্ডিস ও দিমুথ করুনারত্নে জুটি।

তবে এই জুটিকে বেশিক্ষণ টিকতে দেননি খালেদ। এই পেসারের লাফিয়ে উঠা ডেলিভারিতে গালি পয়েন্টে জাকির হাসানের হাতে তুলে দেন মেন্ডিস। একই ওভারে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন করুণারত্নেও। বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনি।

৪১ রানের মাথায় ৩ উইকেট খুইয়ে ধুঁকতে থাকে সফরকারীরা। পরের ওভারেই বিপদ বাড়ে লঙ্কানদের। রান-আউটের ফাঁদে পড়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। অফসাইডে বল ঢেলে দিয়ে দ্রুত সিঙ্গেল নিতে চেয়েছিলেন চান্দিমাল। কিন্তু টাইগার দলপতির সরাসরি এক থ্রোতে ফিরতে হয় ম্যাথিউসকে।

শরিফুলের হাত ধরে আসে এর পরের ব্রেকথ্রু। এই পেসারের লেগ স্ট্যাম্পের বল সামাল দিতে পারেননি চান্দিমাল। ফলে ৬৭ রানেই অর্ধেক উইকেট হারিয়ে ফেলে সফরকারীরা।

তবে অধিনায়ক ধনঞ্জায়া ডি সিলভা এবং কামিন্দু মেন্ডিসের নৈপুণ্যে শুরুর সেই ধাক্কা সামলে দ্বিতীয় সেশনেই ঘুরে দাঁড়িয়েছে লঙ্কানরা। এই জুটির কল্যাণে দ্বিতীয় সেশন শেষে ৫ উইকেটে ২১৭ রান নিয়ে চা বিরতিতে গেছে সফরকারীরা।

এরপর সেঞ্চুরি তুলে নেন এই দুই ব্যাটার। উড়তে থাকা দুই লঙ্কান ব্যাটারকে সাজঘরে ফিরিয়ে বাংলাদেশকে খেলায় ফেরান অভিষিক্ত নাহিদ রানা। ডি সিলভা ও কামিন্দু মেন্ডিস দুজনেই সমান ১০২ রান করেন।

শেষ দিকে প্রাবাথ জয়সুরিয়া (১), ফার্নান্দো (৯) এবং লাহিরু কুমারা শূন্য রানে রান আউট হলে ২৮০ রানে থামে লঙ্কানদের প্রথম ইনিংস।

বাংলাদেশের হয়ে খালেদ আহমেদ ও নাহিদ রানা তিনটি করে উইকেট নেন। এ ছাড়াও শরিফুল ইসলাম ও তাইজুল ইসলাম একটি করে উইকেট নেন।

Share this news on: