• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শনিবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২০, ৫ মাঘ ১৪২৬

নবাব পরিবারের উদ্যোগে গড়ে উঠে বাংলার প্রথম চিড়িয়াখানা

নবাব পরিবারের উদ্যোগে গড়ে উঠে বাংলার প্রথম চিড়িয়াখানা

ফিচার ডেস্ক১১ জানুয়ারি ২০২০, ০৮:৫৬এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

উনবিংশ শতাব্দীর আগে বাংলায় আধুনিক কোনো চিড়িয়াখানা গড়ে উঠেনি। তবে খ্রিস্টীয় ১৫ শতকে বাংলায় বিভিন্ন স্থানে যে চিড়িয়াখানা ছিলো, তার প্রমাণ পাওয়া যায় সিরাতুল মুতাখখেরিন নামের প্রাচীন ফরাসী গ্রন্থে।

এই গ্রন্থের বিবরণ অনুযায়ী বাংলার নবাব মির কাশিম (রাজত্বকাল ১৭৬০-১৭৬৪) বাংলার বিভিন্ন জেলায় অবস্থিত পশুপাখির সংগ্রহশালার জন্য সরকারি বরাদ্দ বাতিল করেছিলেন। তাতে বোঝা যায় যে, তারও আগে থেকে বাংলাদেশের অনেক জেলাতেই চিড়িয়াখানা ছিলো।

তবে বাংলার প্রথম আধুনিক চিড়িয়াখাটি গড়ে উঠেছিলো ঢাকার নবাব পরিবারের উদ্যোগে। গণি মিয়া নামে খ্যাত নবাব আব্দুল গণি ছিলেন এ চিড়িয়াখানার প্রতিষ্ঠাতা।

১৮৭৩ সালে এর গঠন শুরু হয় এবং সে দশকের শুরুতেই এটি সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়েছিলো। সেকালের শাহবাগ এলাকায় গড়ে উঠেছিলো এটি। এ এলাকায় তখন নবাব পরিবারের বাগান বাড়ি ছিলো। বাগ, সিংহ, গন্ডার, ভালুক, উটপাখি, হরিণ প্রভৃতি পশুর জন্য ছিলো আলাদা আলাদা খাঁচা।

এছাড়া এতে চৌবাচ্চায় ছিলো হরেক রকম সাপ এবং মজবুত খাঁচাসমূহে ছিল হরেক রকম পাখি। এ চিড়িয়াখানায় দর্শকদের জন্য কোনো প্রবেশ মূল্য লাগতো না।

১৯৬৪ সালে ঢাকার মিরপুরে পরিকল্পনা অনুযায়ী চিড়িয়াখানা গড়ে তোলার কাজ শুরু হয়। যার নাম ছিল ঢাকা চিড়িয়াখানা। এটি উদ্বোধন ও সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত হয় ১৯৭৪ সালের ২৩ জুন। ২০১৫ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি নাম পরিবর্তন করে ঢাকা চিড়িয়াখানা থেকে বাংলাদেশ জাতীয় চিড়িয়াখানা নামকরণ করা হয়। এটিই দেশের প্রথম এবং জাতীয় চিড়িয়াখানা। বছরে প্রায় ৩০ লাখ দর্শনার্থী এই চিড়িয়াখানা পরিদর্শন করে থাকেন।

এ চিড়িয়াখানার আয়তন প্রায় ৭৫ হেক্টর। চিড়িয়াখানার চত্বরে ১৩ হেক্টরের দুটি লেক রয়েছে। প্রাণী বৈচিত্র্য চিড়িয়াখানা তথ্য কেন্দ্র হতে প্রাপ্ত তথ্য হতে জানা যায়, বর্তমানে ঢাকা চিড়িয়াখানায় ১৯১ প্রজাতির ২১৫০টি প্রাণী রয়েছে।

 

টাইমস/জিএস

সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নান আর নেই

সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নান আর নেই

বগুড়া-১ আসনে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নান মারা গেছেন।

যশোরে প্রাইভেটকার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একই পরিবারের তিন নারী নিহত

যশোরে প্রাইভেটকার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একই পরিবারের তিন নারী নিহত

যশোর শহরে প্রাইভেটকার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বৈদ্যুতিক খুটি ও বাড়ির দেয়ালে ধাক্কা

টঙ্গীতে ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে আরও ৪ মুসল্লির মৃত্যু

টঙ্গীতে ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে আরও ৪ মুসল্লির মৃত্যু

গাজীপুরের টঙ্গীতে তুরাগ তীরে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে যোগ দিতে

জাতীয়

ফতুল্লায় ইলেকট্রিক মিস্ত্রিকে কুপিয়ে হত্যা, গ্রেপ্তার ১

ফতুল্লায় ইলেকট্রিক মিস্ত্রিকে কুপিয়ে হত্যা, গ্রেপ্তার ১

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় আব্দুর রহিম (৩৫) নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার রাতে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার মাসদাইর গুদারাঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জাতীয়

চরফ্যাশনে অগ্নিকাণ্ডে ২২ দোকান পুড়ে দুই কোটি টাকার ক্ষতি

চরফ্যাশনে অগ্নিকাণ্ডে ২২ দোকান পুড়ে দুই কোটি টাকার ক্ষতি

ভোলার চরফ্যাশনে অগ্নিকাণ্ডে ২২ দোকান পুড়ে অন্তত দুই কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।

বিনোদন

দেখেই মনে হয় প্রেমে আছেন, বিয়ে কবে করবেন?

দেখেই মনে হয় প্রেমে আছেন, বিয়ে কবে করবেন?

ছোটপর্দার ব্যস্ততম মুখ তাসনিয়া ফারিন। খুব দ্রুত সময়ে নিজেকে চিনিয়েছেন এই অভিনেত্রী। তবে ছোটবেলা থেকে গান আর নাচে পারদর্শী এই তারকা চেয়েছেন বড় হয়ে গান নিয়ে কাজ করবেন। কিন্তু পরিচিতি পেয়েছেন অভিনেত্রী হিসেবে।

জাতীয়

সেনবাগে তিন দোকানে ডাকাতি, ২০ লাখ টাকার মালামাল লুট

সেনবাগে তিন দোকানে ডাকাতি, ২০ লাখ টাকার মালামাল লুট

নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ডাকাতদল তিনটি দোকানের শার্টার ভেঙে অন্তত ২০ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে বলে ক্ষতিগ্রস্তরা দাবি করেছেন।

স্বাস্থ্য

থানকুনির রোগ নিরাময় গুণ

থানকুনির রোগ নিরাময় গুণ

আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞানের প্রসারে দিন নতুন নতুন রোগের প্রতিষেধক আবিষ্কার হচ্ছে। তার মানে এই নয়, ওষধি গাছের কদর কমে গেছে। এখনো ঘরোয়াভাবে টাইফয়েড জ্বর, ডায়রিয়া, কলেরা, পেটের পীড়ার মতো রোগ নিরাময়ে বিভিন্ন ওষধি গাছ ও এর ব্যবহার হয়ে আসছে। তার মধ্যে একটি থানকুনি পাতা।

স্বাস্থ্য

পিঠ বা কোমর ব্যথার সাত সমাধান

পিঠ বা কোমর ব্যথার সাত সমাধান

যারা দীর্ঘক্ষণ অফিসে বা দোকানে বসে কাজ করেন, অথচ পিঠ বা কোমর ব্যথায় ভোগেন না আজকাল এমন লোক খুঁজে পাওয়া কঠিন। এটি অন্যতম সাধারণ একটি সমস্যা। হঠাৎ পরিবর্তন, আঘাত, ফোলা এবং মাঝে মাঝে ক্যান্সারের কারণে এমনটি হতে পারে। সাধারণত পিঠের নীচের অংশে ব্যথা হয় এবং সামনে দিকে ঝুঁকলে অবস্থা আরও খারাপের দিকে যায়। এতে করে ওই অংশের পেশী দুর্বল ও স্পর্শকাতর হয়ে উঠতে পারে।