• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

দুই সন্তানকে হত্যার পর ঝাঁপ দিয়ে স্বামী-স্ত্রীর আত্মহত্যা

দুই সন্তানকে হত্যার পর ঝাঁপ দিয়ে স্বামী-স্ত্রীর আত্মহত্যা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক০৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৫:২৫পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

দুই সন্তানকে শ্বাসরোধ করে গলা কেটে হত্যার পর ভবনের নয় তলা থেকে লাফিয়ে আত্মহত্যা করেছেন এক দম্পতি। মঙ্গলবার ভোরে ভারতের উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদে এ ঘটনা ঘটে।

এদের মধ্যে নিহত পুরুষের নাম গুলশান (৪৫)। তিনি একটি কারখানার মালিক ছিলেন। এছাড়া আরও এক নারী একই সময়ে ওই ভবন থেকেই লাফ দিয়ে আশঙ্কাজনক অবস্থায় এখন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

আনন্দবাজারের এক খবরে বলা হয়েছে, ভোর পাঁচটার দিকে আবাসিক ভবনের বাইরে মাটিতে এক জন পুরুষ ও দুজন নারীকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন নিরাপত্তারক্ষী করিম খান। গোঙানির আওয়াজ শুনে আরও একটু এগোতেই দেখেন তাদের মধ্যে এক নারী তখনও জীবিত। সঙ্গে সঙ্গে ভবনের অন্য বাসিন্দাদের খবর দেন ওই নিরাপত্তারক্ষী। এরপর খবর দেয়া হয় পুলিশকে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশ জানিয়েছে, ব্যবসায় মন্দা চলছিল গুলশানের। ধার-দেনাতেও জড়িয়ে পড়েছিলেন তিনি। ফলে মানসিক ভাবে ভেঙে পড়ছিলেন। তাই আত্মহত্যার পথই বেছে নেন ওই ব্যবসায়ী। দুই সন্তানকে খুন করার পর স্ত্রীকে নিয়ে ভবন থেকে ঝাঁপ দেন। গুলশানের ফ্ল্যাট থেকে তার দুই সন্তানের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

গাজিয়াবাদ পুলিশের এক কর্মকর্তা সুধীর কুমার জানিয়েছেন, ফ্ল্যাটের একটি ঘর থেকে ব্যবসায়ীর দুই সন্তানের লাশ উদ্ধার হয়েছে। একটি সুইসাইড নোট পাওয়া গিয়েছে ঘর থেকে। সেই নোটের পাশেই রাখা ছিল বেশ কিছু টাকা।

পুলিশ জানিয়েছে, সেই টাকা যেন তাদের সৎকারে ব্যবহার করা হয়, এমনটাই সুইসাইড নোটে লিখে গিয়েছেন গুলশান।

আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি দ্বিতীয় নারীটি ছিলেন কারখানা মালিকের ব্যবসায়িক অংশীদার। তবে অনেকে বলছেন, তিনি ছিলেন তার দ্বিতীয় স্ত্রী।

তবে শুধুই কি ব্যবসায়িক মন্দা, নাকি এই মৃত্যুর পেছনে অন্য কোনো রহস্য রয়েছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

 

টাইমস/এইচইউ

রূপপুর বালিশকাণ্ড: মাসুদুল আলমসহ ১৩ প্রকৌশলী গ্রেপ্তার

রূপপুর বালিশকাণ্ড: মাসুদুল আলমসহ ১৩ প্রকৌশলী গ্রেপ্তার

পাবনার রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের বালিশ ও আসবাবপত্র কেনাকাটায় দুর্নীতির

ভোগবাদী দর্শনের প্রথম দার্শনিক এরিস্টিপ্পাস

ভোগবাদী দর্শনের প্রথম দার্শনিক এরিস্টিপ্পাস

চতুর্থ শতাব্দীর শেষ দিকে গ্রীসে ভোগবাদী দর্শনের (Cyneraic School) উৎপত্তি

‘এক কেজি পেঁয়াজের বিমান ভাড়া ১৫০ টাকা’

‘এক কেজি পেঁয়াজের বিমান ভাড়া ১৫০ টাকা’

জরুরি ভিত্তিতে ঘাটতি মেটাতে বিমানে করে পেঁয়াজ আমদানি করতে গিয়ে

জাতীয়

খুলনায় অনশনে অসুস্থ হয়ে পাটকল শ্রমিকের মৃত্যু

খুলনায় অনশনে অসুস্থ হয়ে পাটকল শ্রমিকের মৃত্যু

খুলনায় আমরণ অনশনে অসুস্থ হয়ে প্লাটিনাম জুট মিলের এক শ্রমিক মারার গেছেন। তার নাম আব্দুস সাত্তার (৫৫)। মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৫টায় ৪৫ মিনিটে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

জাতীয়

কেরানীগঞ্জে অগ্নিকাণ্ডে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৩

কেরানীগঞ্জে অগ্নিকাণ্ডে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৩

ঢাকার কেরানীগঞ্জের একটি প্লাস্টিক কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৩ জন হয়েছে। বুধবার রাত থেকে বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১২ জনের মৃত্যু হয়। এর আগে ঘটনাস্থল থেকে একজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

জাতীয়

রাজশাহীতে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত   

রাজশাহীতে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত  

রাজশাহীতে বাসের সাথে মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে মোটরসাইকেলের দুই আরোহী নিহত হয়েছেন।

জাতীয়

বেনাপোলে নারীর কাছে মিলল ২০ হাজার মার্কিন ডলার

বেনাপোলে নারীর কাছে মিলল ২০ হাজার মার্কিন ডলার

ভারত থেকে বাংলাদেশে প্রবেশের সময় ২০ হাজার মার্কিন ডলার ও দুটি মোবাইল ফোনসহ এক নারীকে আটক করেছে বেনাপোল কাস্টমস শুল্ক গোয়েন্দা সদস্যরা।

জাতীয়

নোয়াখালীতে মাতাল অবস্থায় চার সহযোগীসহ জেলা পরিষদ সদস্য আটক

নোয়াখালীতে মাতাল অবস্থায় চার সহযোগীসহ জেলা পরিষদ সদস্য আটক

মদ্যপান করে মাতলামি করার সময় চার সহযোগী সহ নোয়াখালী জেলা পরিষদ সদস্য কামাল উদ্দিন প্রকাশকে (সিএনজি কামাল) ’আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

স্বাস্থ্য

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে জামের বীজ

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে জামের বীজ

জাম এমন একটি ফল, যা বাংলাদেশে খুবই পরিচিত। আপনি একটু লক্ষ্য করলেই হয়ত আপনার বাড়ির আঙ্গিনা বা পাড়াতে জাম গাছ পেয়ে যাবেন। জামের মৌসুমে পথে ঘাটে, বাজারে, ট্রেন-বাসে বিক্রি হয় অত্যন্ত জনপ্রিয় জাম মাখা। জাম ফল শুধু খেতেই সুস্বাদু তাই নয়, বরং ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্যও এটি সমান পরিচিত।