• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭

চীনে এবার সোয়াইন ফ্লু’র হানা, মহামারীর আশঙ্কা

চীনে এবার সোয়াইন ফ্লু’র হানা, মহামারীর আশঙ্কা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক৩০ জুন ২০২০, ০৪:২৭পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

করোনাভাইরাসের প্রকোপ না থামতেই এবার চীনে নতুন ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। সম্প্রতি ছড়িয়ে পড়া সোয়াইন ফ্লু মহামারী আকার ধারণ করতে পারে বলে ধারণা করছে বিশেষজ্ঞরা।

সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের সায়েন্স জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণা প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে চীনা সংবাদমাধ্যম সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট এ তথ্য জানিয়েছে।

সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট জানিয়েছে, জি-৪ নামের নতুন এই ভাইরাসটির বৈশিষ্ট্যগতভাবে এইচ১এন১ স্ট্রেইনের সঙ্গে মিল রয়েছে। ২০০৯ সালে এইচ১এন১ স্ট্রেইনও মহামারি আকার ধারণ করেছিল।

চীনের বিশ্ববিদ্যালয় ও সেখানকার সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনের বিজ্ঞানীরা বলছেন, শূকর থেকে নতুন এই ফ্লু’র উৎপত্তি হয়েছে। মানুষের শরীরে সংক্রমণ ঘটানোর বৈশিষ্ট্য রয়েছে নতুন এই ফ্লু ভাইরাসের।

২০১১ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত গবেষকরা ১০টি প্রদেশে শূকরের নাক থেকে ৩০ হাজার নমুনা সংগ্রহ করে। এসব নমুনা পরীক্ষা করে তারা ১৭৯টি সোয়াইন ফ্লুর খোঁজ পান। এগুলোর মধ্যে বেশিরভাগই নতুন ধরনের ভাইরাস। যেগুলো ২০১৬ সাল থেকে শূকরের মধ্যে প্রভাব বিস্তার করছে।

ভাইরাসগুলো নিয়ে গবেষণায় দেখা গেছে, জি-৪ ভাইরাসটি উচ্চ সংক্রামক। মানব দেহের কোষে এটি বিস্তার লাভ করতে পারে।

ভাইরাসটি ইতোমধ্যে প্রাণী থেকে মানব শরীরে প্রবেশ করেছে। কিন্তু মানুষ থেকে মানুষের শরীরে এটি ছড়াতে পারে কি না, এমন কোনো তথ্য-প্রমাণ এখনো পাওয়া যায়নি। যা বিজ্ঞানীদের মূল শঙ্কা।

গবেষকরা বলছেন, মানব শরীরে জি-৪ ভাইরাসটির সংক্রমণ এটির অভিযোজন ক্ষমতা আরও বাড়িয়ে তুলবে এবং মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি বাড়াবে।

যারা শূকর নিয়ে কাজ করেন, তাদেরকে জরুরি ভিত্তিতে পর্যবেক্ষণের আওতায় আনার আহ্বানও জানিয়েছেন গবেষকরা।

উল্লেখ্য, গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম নতুন করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ এর খোঁজ পাওয়া যায়। যা বর্তমানে বিশ্বব্যাপী মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়েছে।

 

টাইমস/এসএন

করোনায় প্রাণ গেল আরও ৫৫ জনের

করোনায় প্রাণ গেল আরও ৫৫ জনের

দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৫৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

লিবিয়ায় যুদ্ধে জড়িয়ে যেতে পারে তুরস্ক-ফ্রান্স

লিবিয়ায় যুদ্ধে জড়িয়ে যেতে পারে তুরস্ক-ফ্রান্স

লিবিয়ায় মোতায়েন করা তুর্কি আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থায় বিমান হামলা চালানোর

পাহাড়ে রক্ত ঝরছে : বান্দরবানে সশস্ত্র হামলা, গুলিতে নিহত ৬

পাহাড়ে রক্ত ঝরছে : বান্দরবানে সশস্ত্র হামলা, গুলিতে নিহত ৬

বান্দরবানে আবারও আঞ্চলিক সহিংসতায় রক্ত ঝরছে। আধিপাত্য বিস্তারের জেরে এবার

জাতীয়

সাংসদ হিসেবে নয়, কুয়েতের ব্যবসায়ী হিসেবে গ্রেপ্তার পাপুল: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সাংসদ হিসেবে নয়, কুয়েতের ব্যবসায়ী হিসেবে গ্রেপ্তার পাপুল: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেছেন, মানবপাচারের ঘটনায় কাউকে কোনো ধরণের ছাড় দেয়া হবে না। মানবপাচার ও অর্থপাচার রোধে সরকার সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছে। কিন্তু সরকারের এমন কঠোর অবস্থানের ও মধ্যে একজন সাংসদ কুয়েতে অর্থ ও মানবপাচারের অভিযোগে আটক হয়েছেন, যা দুঃখজনক।

স্বাস্থ্য

করোনা উপসর্গে নামকরা হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. ফয়েজুল্লাহর মৃত্যু

করোনা উপসর্গে নামকরা হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. ফয়েজুল্লাহর মৃত্যু

করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে মারা গেলেন হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. ফয়েজুল্লাহ। মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর গ্রিন লাইফ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। (ইন্নালিল্লাহী ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)

জাতীয়

রিমান্ডে থাকা আসামির মৃত্যু, পুলিশের দাবি আত্মহত্যা

রিমান্ডে থাকা আসামির মৃত্যু, পুলিশের দাবি আত্মহত্যা

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থানায় রিমান্ডে থাকা আফসার আলী নামে এক আসামির মৃত্যু নিয়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। মৃত আফসার আলী চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার টিকরামপুর মধ্যপাড়া এলাকার মোহসিন আলীর ছেলে। তবে পুলিশ জানিয়েছে, আত্মহত্যা করেছেন আফসার আলী।

জাতীয়

মাশরাফির পাশে থেকে এবার করোনায় আক্রান্ত স্ত্রী সুমনা

মাশরাফির পাশে থেকে এবার করোনায় আক্রান্ত স্ত্রী সুমনা

প্রাণঘাাতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক সফল অধিনায়ক নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন

জাতীয়

বগুড়ায় আরও ৭১ করোনা রোগী শনাক্ত

বগুড়ায় আরও ৭১ করোনা রোগী শনাক্ত

বগুড়ায় নতুন করে ৭১ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় ৩৩১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে নতুন এসব রোগী শনাক্ত করা হয়।

আন্তর্জাতিক

আর্কটিক অঞ্চলে হাজার হাজার মরণ ভাইরাস

আর্কটিক অঞ্চলে হাজার হাজার মরণ ভাইরাস

পৃথিবীর সর্ব উত্তরে অবস্থিত আর্কটিক অঞ্চলের বরফ গলার কারণে বিশ্বে আরও ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে। এসব অঞ্চলের নিচে নিষ্ক্রিয় অবস্থায় আছে হাজার হাজার বছরের পুরনো ভাইরাস। সেগুলো সক্রিয় হয়ে বিশ্বে ভয়ংকর সব রোগের সৃষ্টি করতে পারে বলে সতর্ক করেছেন বিজ্ঞানীরা।