• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বৃহস্পতিবার, ০২ জুলাই ২০২০, ১৮ আষাঢ় ১৪২৭

ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের গণভবনে আমন্ত্রণ প্রধানমন্ত্রীর

ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের গণভবনে আমন্ত্রণ প্রধানমন্ত্রীর

গত বছরের ১ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে গণভবনে সংলাপ করেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা

নিজস্ব প্রতিবেদক২৬ জানুয়ারি ২০১৯, ০৯:২৪পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতাদের আগামী ২ ফেব্রুয়ারি গণভবনে চায়ের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে জোটের স্টিয়ারিং কমিটির সব সদস্যের কাছে আলাদা আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হয়েছে।

গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী জানান, প্রধানমন্ত্রী কুশল বিনিময় করার জন্য আমন্ত্রণপত্রে আগামী ২ ফেব্রুয়ারি বিকেল সাড়ে ৩টায় গণভবনে চায়ের দাওয়াত দিয়েছেন। তারা সকালে তাদের দলীয় কার্যালয়ে পাঠানো আমন্ত্রণপত্র পেয়েছেন।

গণফোরামের প্রশিক্ষণবিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম পথিক সাংবাদিকদের বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের দুজন কর্মকর্তা সকাল ১১টার দিকে তাদের দলীয় কার্যালয়ে আসেন। আর ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির সব সদস্যের জন্য আমন্ত্রণপত্র হস্তান্তর করেন।

আমন্ত্রণ পত্রে পৃথক পৃথকভাবে গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও মওদুদ আহমদ, জেএসডির সভাপতি আ স ম আবদুর রব, গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফা মোহসীন মন্টু এবং নাগরিক ঐক্যের আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নার নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

তবে প্রধানমন্ত্রীর সেই আমন্ত্রণে ঐক্যফ্রন্ট যাচ্ছে না বলে সূত্রে জানা গেছে।

গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী বলেন, আমরা একাদশ সংসদ নির্বাচনের পর এ নিয়ে সংলাপের প্রস্তাব দিয়েছিলাম। ওই নির্বাচন প্রহসনের নির্বাচনে পরিণত হয়েছে। তাই আমরা এটা নিয়ে সংলাপের প্রস্তাব দিয়েছিলাম। কিন্তু এখন শুভেচ্ছা বিনিময়ের জন্য ডাকা হয়েছে। আমরা সেখানে যাচ্ছি না।

এর আগে গত বছরের ১ ও ৭ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দুই দফা গণভবনে সংলাপ করেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা। তবে সেই সংলাপে সমাধান পায়নি ঐক্যফ্রন্ট।

 

টাইমস/টিআর/এক্স

উপহাস জয় করে কোচিং ছাড়াই বিসিএস ক্যাডার ইডেন ছাত্রী!

উপহাস জয় করে কোচিং ছাড়াই বিসিএস ক্যাডার ইডেন ছাত্রী!

তৃপ্তি অনার্স পাস করেছেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে। এজন্য তাকে অবজ্ঞা

৩৮তম বিসিএসে পুলিশ ক্যাডারে ১৭তম বুয়েটের সনদ বড়ুয়া

৩৮তম বিসিএসে পুলিশ ক্যাডারে ১৭তম বুয়েটের সনদ বড়ুয়া

চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল থেকে এসএসসি পাস করার পর ভর্তি হন

এবার করোনায় হলি ফ্যামিলি মেডিকেল চিকিৎসকের মৃত্যু

এবার করোনায় হলি ফ্যামিলি মেডিকেল চিকিৎসকের মৃত্যু

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও এক চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। তিনি

চাকরি

সংসার সামলে প্রথম বিসিএসেই এএসপি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী!

সংসার সামলে প্রথম বিসিএসেই এএসপি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী!

নুসরাত ইয়াছমিন তিসা। পড়াশোনা করেছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগে। দ্বিতীয় বর্ষেই তাকে বিয়ে দিয়ে দেয়া হয়।

চাকরি

শাবিতে পড়াশোনা, একসঙ্গে বিসিএস ক্যাডার হওয়ার গল্প দুই বোনের

শাবিতে পড়াশোনা, একসঙ্গে বিসিএস ক্যাডার হওয়ার গল্প দুই বোনের

ফাতেমাতুজ জুহরা চাঁদনী ও সাদিয়া আফরিন তারিন পড়াশোনা করেছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে। ৩৮তম বিসিএসে তারা দুই বোনই

আন্তর্জাতিক

ভার্চুয়াল নিলামে ৭০৫ কোটি টাকায় ফ্রান্সিস বেকনের পেইন্টিং বিক্রি!

ভার্চুয়াল নিলামে ৭০৫ কোটি টাকায় ফ্রান্সিস বেকনের পেইন্টিং বিক্রি!

সবাইকে অবাক করে দিয়ে ভার্চুয়াল নিলামে ফ্রান্সিস বেকনের একটি ট্রিপটিক পেইন্টিং বিক্রি হলো ৮৪ মিলিয়ন ডলারে, যার মূল্য বাংলাদেশি টাকায় (প্রতি ডলার ৮৪ টাকা হিসেব করলে) দাঁড়াচ্ছে ৭০৫ কোটি টাকা! কোভিড-১৯ মহামারীর ফলে ধুকতে থাকা আর্ট মার্কেটের জন্য এটি খুবই ইতিবাচক হিসেবে মনে করা হচ্ছে। উল্লেখ্য, ট্রিপটিক পেইন্টিং হলো- পাশাপাশি সম্পর্কযুক্ত তিনটি ছবি, যা সাধারণত একসাথেই টানানো হয়ে থাকে।

স্বাস্থ্য

স্ট্রেস আমাদের দেহের প্রতিরোধ ব্যবস্থা ধ্বংস করে দিতে পারে

স্ট্রেস আমাদের দেহের প্রতিরোধ ব্যবস্থা ধ্বংস করে দিতে পারে

স্ট্রেস মানব জীবনের অঙ্গ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ক্যারিয়ার বা কাজের চাপ থেকে শুরু করে ব্যক্তিগত-সামাজিক ইস্যু, হালের মহামারীসহ একাধিক কারণে স্ট্রেস বা মানসিক চাপ সৃষ্টি হতে পারে। স্ট্রেস বা মানসিক চাপ নানাভাবে আমাদের দেহের উপর বিরূপ প্রভাব ফেলে। তবে, অনেকে স্ট্রেসের নেতিবাচক প্রভাব সম্পর্কে সচেতন নয়, ফলে সময়মতো প্রতিকার বা চিকিৎসা গ্রহণ করেন না।

আন্তর্জাতিক

২০১৯ সালে পৃথিবী থেকে হারিয়েছে ১৪ কোটি মেয়ে শিশু

২০১৯ সালে পৃথিবী থেকে হারিয়েছে ১৪ কোটি মেয়ে শিশু

মেয়েভ্রূণ হত্যা ও জন্মের পর শিশু কন্যা হত্যার ধারা ২০১৯ সালে পৃথিবী থেকে কেড়ে নিয়েছে ১৪ কোটিরও বেশি কন্যা শিশুর প্রাণ। জাতিসংঘের একটি প্রতিবেদন এমন তথ্য জানিয়েছে। প্রতি বছর জনসংখ্যা বিষয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে জাতিসংঘের পপুলেশন ফান্ড। ‘অসমাপ্ত দায়িত্ব' শিরোনামে প্রকাশিত এবারের প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, অনেক বাবা-মা ছেলে সন্তান চান বলে ২০১৯ সালে ১৪ কোটিরও বেশি মেয়ে শিশুকে হত্যা করা হয়েছে।

মতামত

ফেইসবুকে আনফ্রেন্ড, বন্ধুর সঙ্গে জেদ করে বিসিএস ক্যাডার নাদিম!

ফেইসবুকে আনফ্রেন্ড, বন্ধুর সঙ্গে জেদ করে বিসিএস ক্যাডার নাদিম!

চলেন আজকে একটা বন্ধুত্বের গল্প শোনাই। ছেলেটার সাথে স্কুল কোচিং করেছি, কলেজটাও একসাথে,ভার্সিটি আলাদা হলেও যোগাযোগ কমে নাই।