• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭

ভাইকে বাঁচাতে প্রাণ গেল বোনের : অভিযুক্ত নিহত

ভাইকে বাঁচাতে প্রাণ গেল বোনের : অভিযুক্ত নিহত

সেন্ট্রাল ডেস্ক১২ মে ২০১৯, ০৯:৩২এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

চট্টগ্রাম শহরে বাসার মধ্যে ভাইয়ের দিকে বন্দুক তাক করা সন্ত্রাসীকে আটকাতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন এক নারী। নিহত বুবলী আক্তার (২৮) বিবাহিতা। তার স্বামীর নাম আকরাম হোসেন।

শনিবার রাত ১০টার দিকে নগরীর বাকলিয়া থানার বজ্রঘোনা এলাকার মদিনা মসজিদের পাশের একটি বাসায় এই ঘটনা ঘটে বলে নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) শাহ মো. আব্দুর রউফ জানিয়েছেন।

এদিকে অভিযুক্ত যুবক শাহ আলম গভীর রাতে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে' নিহত হয়েছেন। ওই এলাকার পেছনে কর্ণফুলী নদীর তীরে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন বাকলিয়া থানার ওসি নেজাম উদ্দিন।

পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) শাহ মো. আব্দুর রউফ জানান, বুবলী কয়েকদিন আগে বাবার বাড়ি বজ্রঘোনার বাসায় বেড়াতে আসেন। শাহ আলম নামে এলাকার এক সন্ত্রাসীর সঙ্গে হাছান নামে বুবলীর এক আত্মীয়ের বিরোধ চলছিল।

সেই সূত্র ধরে শাহ আলম রাতে হাছানকে খুঁজতে বুবলীদের বাসায় আসে। এসময় অস্ত্রহাতে শাহ আলম ঘুরাঘুরির বিষয়টি হাছানকে বুবলির ভাই রুবেল জানিয়ে দেন। হাছানের সঙ্গে রুবেলের যোগাযোগের বিষয়টি জানার পর রাত সাড়ে আটটার দিকে বাড়িতে প্রবেশ করে রুবেলের দিকে বন্দুক তাক করে শাহ আলম।

এ সময় বুবলী তাকে আটকাতে গেলে গুলিবর্ষণ করে শাহ আলম। বুকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় বুবলীকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বাকলিয়া থানার ওসি নেজাম উদ্দিন জানান, বুবলি আক্তারের খুনি শাহ আলম কর্ণফুলী নদীর পাড়ে তার সহযোগীদের নিয়ে অবস্থান করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে অভিযানে যায় পুলিশ। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে শাহ আলম ও তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে। আত্মরক্ষায় পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে।

গোলাগুলির এক পর্যায়ে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থলে শাহ আলমকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। তাকে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

 

টাইমস/জিএস

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে সংঘর্ষে তিন কিশোর নিহত

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে সংঘর্ষে তিন কিশোর নিহত

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে (বালক) দুই পক্ষের সংঘর্ষে তিন কিশোর

সিনহার সহযোগী শিপ্রার সমালোচনায় ভিপি নুর

সিনহার সহযোগী শিপ্রার সমালোচনায় ভিপি নুর

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের গুলিতে নিহত সাবেক সেনা কর্মকর্তা মেজর সিনহার

ব্যঙ্গচিত্র: কাশ্মির বাস্তবতা

ব্যঙ্গচিত্র: কাশ্মির বাস্তবতা

নিউ ইয়র্কের কাশ্মীরি কার্টুনিস্ট মীর সুহেলের চিন্তা-চেতনা দখল করে আছে

জাতীয়

ওসি প্রদীপসহ ২৯ জনের বিরুদ্ধে করা মহেশখালীর মামলা খারিজ

ওসি প্রদীপসহ ২৯ জনের বিরুদ্ধে করা মহেশখালীর মামলা খারিজ

কক্সবাজারের মহেশখালীতে বন্দুকযুদ্ধে লবণচাষি আবদুস সাত্তার নিহতের ঘটনায় সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশসহ ২৯ জনের বিরুদ্ধে করা মামলা খারিজ করে দিয়েছেন আদালত।

জাতীয়

করোনায় দেশে আরও ৪৪ জনের মৃত্যু

করোনায় দেশে আরও ৪৪ জনের মৃত্যু

করোনায় দেশে আরও ৪৪ জনের মৃত্যুগত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৪৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল তিন হাজার ৫৫৭ জনে। একই সময়ে নতুন করে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন আরও দুই হাজার ৬১৭ জন। ফলে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল দুই লাখ ৬৯ হাজার ১১৫ জনে।

জাতীয়

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক হলেন সেব্রিনা ফ্লোরা

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক হলেন সেব্রিনা ফ্লোরা

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা। তিনি জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

জাতীয়

ট্রেনে একজনের টিকিটে অন্যজন ভ্রমণে দণ্ড-জরিমানা

ট্রেনে একজনের টিকিটে অন্যজন ভ্রমণে দণ্ড-জরিমানা

কোনো ব্যক্তি ট্রেনে ভ্রমণের নিজ টিকিট, রিটার্ন টিকিট অথবা নির্দিষ্ট মেয়াদি টিকিট কারো কাছে হস্তান্তর বা বিক্রি করলে তিনি তিন মাস পর্যন্ত কারাদণ্ড বা অর্থদণ্ড অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন। পাশাপাশি এ ধরনের টিকিটের ক্রেতাকে একবার একক ভ্রমণের সমান অতিরিক্ত ভাড়ার জন্য দণ্ডিত করা হবে।

জাতীয়

ব্রিফিং বন্ধের ব্যাখ্যা দিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ব্রিফিং বন্ধের ব্যাখ্যা দিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

করোনাভাইরাসের বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন বুলেটিন বন্ধ করার ব্যাখ্যা দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি জানিয়েছেন, করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুহার কমে আসার কারণেই সরাসরি ব্রিফিং না করে, প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ সংক্রান্ত তথ্য জানানোর ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

ইতিহাস

হিটলারের পরমাণু বিজ্ঞানীদের ধরতে পরিচালিত হয় যে গোপন মিশন

হিটলারের পরমাণু বিজ্ঞানীদের ধরতে পরিচালিত হয় যে গোপন মিশন

১৯৩৮ সালে, জার্মান বিজ্ঞানীরা পারমাণবিক রি-অ্যাকটর তৈরি করতে সক্ষম হয়েছিলেন। ইউরেনিয়ামের মজুদ জোগাড় করে পারমাণবিক অস্ত্র তৈরির জন্য কোয়ান্টাম পদার্থবিদ ওয়ার্নার কার্ল হেইসেনবার্গের নেতৃত্বে গঠন করা হয়েছিল একটি বিশেষ বৈজ্ঞানিক ইউনিট।