• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • সোমবার, ২৫ মে ২০২০, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

বিএনপি ছাত্র আন্দোলনে এজেন্ট ঢুকিয়ে দিয়েছে: তথ্যমন্ত্রী

বিএনপি ছাত্র আন্দোলনে এজেন্ট ঢুকিয়ে দিয়েছে: তথ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক১৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৬:৩৫পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন, বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডকে পুঁজি করে কেউ যেন তাদের স্বার্থ হাসিল করতে না পারে। এই ঘটনা নিন্দনীয়, নৃশংস এবং ন্যাক্কারজনক। প্রশ্ন হলো দাবি মেনে নেয়ার পরেও কেন তাদের আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা।

রোববার সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, বুয়েটে ছাত্র আন্দোলনকে পুঁজি করে বিএনপি এবং তাদের মিত্ররা দেশকে অশান্ত করতে চায়। ছাত্রদল এবং শিবির আড়ালে বুয়েটে ছাত্র আন্দোলনের সাথে যুক্ত হয়েছে।

বিএনপি এ আন্দোলনে তাদের এজেন্ট ঢুকিয়ে দিয়েছে। রগকাটা বাহিনী এই শিবির তাকে দুইবার হত্যা করার চক্রান্ত করেছিল উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ছাত্রদের প্রতিবাদের সঙ্গে আমি একমত। তবে আমার প্রশ্ন ছাত্রদের দাবি মেনে নেয়ার পরে কেন আন্দোলন।’

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা প্রথম থেকেই এ ঘটনার প্রতিবাদ করেছি। কেউ দাবি তোলার আগেই সরকার ব্যবস্থা নিয়েছে। মামলা হওয়ার আগেই পুলিশ ১০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। এ পর্যন্ত ১৯ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দেশের ইতিহাসে এত দ্রুত কোনো ঘটনায় ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।’

‘বুয়েটে ছাত্র দলের দুই গ্রুপের মারামারির কারণে মেধাবী ছাত্রী সনি হত্যাকাণ্ডে পুলিশ হত্যাকারীদের পালিয়ে যেতে সহায়তা করেছিল। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মহসীন হলে এক ছাত্রকে হত্যা করে পানির ট্যাংকিতে রেখে দেয়া হয়েছিল। সেই পানি ছাত্ররা খেয়েছিল। বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র চুন্নুকে হত্যা করা হয়েছিল। এসব ঘটনায় বিএনপি কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।’

বর্তমান পরিস্থিতি উত্তরণে বুয়েটে ছাত্র রাজনীতি বন্ধের সিদ্ধান্ত সহায়ক হবে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক বলেন, তবে এটি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের ব্যাপার। দেশে ছাত্র রাজনীতি বন্ধের দাবি অমূলক। এ দেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম থেকে শুরু করে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে ছাত্ররা গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রেখেছে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপির রাজনীতির মূল প্রতিপাদ্য ভারত বিরোধিতা। তাদের এই ট্যাবলেট বেশি দিন কাজ করবে না। দেশের স্বার্থ রক্ষা করেই ভারতের সাথে চুক্তি হয়েছে। ছিটমহল চুক্তি এবং সমুদ্রসীমা বিজয় হয়েছে। ভারতের সাথে আমাদের সুসম্পর্ক রয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘ভারত আমাদের চট্টগ্রাম এবং মোংলা বন্দর ব্যবহার করলে আমারা আর্থিক লাভবান হবো। তাছাড়া ভারতের সাথে আমাদের অন্যান্য যেসব চুক্তি হয়েছে সেগুলো দেশের স্বার্থ রক্ষা করেই হয়েছে। বিএনপি এ বিষয়টিকে নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। না বুঝে কথা বলছে। এটি তাদের পুরনো অভ্যাস।’

 

সূত্র: বাসস

 

টাইমস/এসআই

এবার গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ করোনায় আক্রান্ত

এবার গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ করোনায় আক্রান্ত

এবার কারোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি

খুলনায় হাঁটুপানিতে দাঁড়িয়ে ঈদের নামাজের ছবি ভাইরাল!

খুলনায় হাঁটুপানিতে দাঁড়িয়ে ঈদের নামাজের ছবি ভাইরাল!

ঘূর্ণিঝড় আম্পানের প্রভাবে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে খুলনা অঞ্চলে। ভেঙে গেছে

দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৫০০ ছাড়াল

দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৫০০ ছাড়াল

দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ৭৯তম দিনে মোট মৃতের সংখ্যা ৫০০ ছাড়িয়ে

রাজনীতি

খালেদার সঙ্গে বিএনপি নেতাদের ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় সন্ধ্যায়

খালেদার সঙ্গে বিএনপি নেতাদের ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় সন্ধ্যায়

বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া সোমবার সন্ধ্যায় দলের স্থায়ী কমিটির সদস্যদের সঙ্গে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। সন্ধ্যা ৭টায় চেয়ারপার্সনের গুলশানের বাসভবন ফিরোজায় আসবেন বিএনপির নেতারা।

জাতীয়

যেসব এলাকায় হতে পারে ঝড়-বৃষ্টি

যেসব এলাকায় হতে পারে ঝড়-বৃষ্টি

রংপুর, বগুড়া, ময়মনসিংহ, ঢাকা ও সিলেট অঞ্চলে ঝড়-বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যোতে বলা হয়েছে।

জাতীয়

সিরাজগঞ্জে ঈদের নামাজে সিজদারত অবস্থায় ইমামের মৃত্যু

সিরাজগঞ্জে ঈদের নামাজে সিজদারত অবস্থায় ইমামের মৃত্যু

ঈদের নামাজ পড়ানোর সময় সিজদারত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেছেন আইউব আলী নামে এক ইমাম। এঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। ইমাম আইউব আলী সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার নন্দলালপুর গ্রামের মৃত দেরাজ আলী মুন্সির ছেলে ও নন্দলালপুর আলিম মাদ্রাসার সিনিয়র প্রভাষক ছিলেন।

স্বাস্থ্য

করোনাকালে ঈদে সুস্থ থাকতে প্রয়োজন স্বাস্থ্যসম্মত খাবার গ্রহণ

করোনাকালে ঈদে সুস্থ থাকতে প্রয়োজন স্বাস্থ্যসম্মত খাবার গ্রহণ

এক মাস সিয়াম সাধনার পর উদযাপিত হচ্ছে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতর। ঈদ আনন্দের বড় অনুষঙ্গ হলো খাবারদাবার। এই সময় কিছুটা ভালো-মন্দ খাওয়া হবে, এটাই তো স্বাদের নানা আয়োজনে উদরপূর্তিময়। কিন্তু এ বছর করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে পরিস্থিতি ভিন্ন। এবার ঈদ উদযাপনের চেয়ে শরীর ঠিক রাখার দিকেই নজর দিতে হচ্ছে বেশি। পাশাপাশি মেনে চলতে হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি।

অর্থনীতি

ইঁদুরের আঁকা ছবি বিক্রি করে লাখ টাকা আয়

ইঁদুরের আঁকা ছবি বিক্রি করে লাখ টাকা আয়

গুস নামের ইঁদুরটি সাধারণ কোনো ইঁদুর নয়, বরং সে একজন শিল্পী। একই সঙ্গে বড়লোক ইঁদুর। কারণ, ছবি এঁকে বেশ মোটা অঙ্কের টাকার রোজগার করছে সে। গুস তার ছোট ছোট পাঞ্জা ব্যবহার করে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র মাস্টারপিস (ছবি) তৈরি করে, যা এখন পর্যন্ত বিক্রি করে আয় হয়েছে ১,০০০ পাউন্ড বা প্রায় এক লাখ টাকা।

জাতীয়

বাংলাদেশিসহ ৪ নাগরিকের জন্য এয়ার এম্বুলেন্স পাঠাল তুরস্ক!

বাংলাদেশিসহ ৪ নাগরিকের জন্য এয়ার এম্বুলেন্স পাঠাল তুরস্ক!

তুবা আহসান একজন তুর্কি নাগরিক। তিনি বিয়ে করেছিল বাংলাদেশি এক নাগরিককে। কিছুদিন আগে তুবা আহসান এবং তার পরিবারের কয়েক সদস্য