• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • রোববার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩১ ভাদ্র ১৪২৬

রাজার স্থান রাজশাহী

রাজার স্থান রাজশাহী

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী০১ মে ২০১৯, ০৬:১৫পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

রাজশাহী বাংলাদেশের উত্তরবঙ্গের একটি শহর। বাংলাদেশের অন্যতম প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী শহরটি বিখ্যাত পদ্মা নদীর তীরে অবস্থিত। প্রাচীন বাংলার বেশ কয়েকটি রাজধানী এই এলাকাতেই ছিল। এদের মাঝে লক্ষণৌতি বা লক্ষণাবতি, পুণ্ড্র ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য। রাজশাহী তার আকর্ষণীয় রেশমীবস্ত্র, আম, লিচু এবং মিষ্টান্ন সামগ্রীর জন্য প্রসিদ্ধ। রেশমীবস্ত্রের কারণে রাজশাহীকে রেশমনগরী নামে ডাকা হয়।

ভৌগলিক অবস্থান ও আয়তন

রাজশাহী জেলার অবস্থান পদ্মার উত্তর তীরে। ২৪ ডিগ্রি ০৭ মিনিট হতে ২৪ ডিগ্রি ৪৩ মিনিট উত্তর অক্ষাংশ এবং  ৮৮ ডিগ্রি ১৭ মিনিট হতে ৮৮ ডিগ্রি ৫৮ মিনিট পূর্ব দ্রাঘিমাংশে অবস্থিত।

এর আয়তন প্রায় ২৪০৭.০১ বর্গ কিলোমিটার। এই জেলায় ২৩ লাখ ৭৭ হাজার ৩১৪ জন (২০১১ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী) মানুষের বসবাস।

হযরত শাহ্ মখদুম রুপোশ (রহ.) এর মাজার শরীফ, রামচন্দ্রপুর দেবীশিংপাড়ায় মোঘল সম্রাট আকবরের শাসনামলের স্থাপত্য কীর্তি রাজশাহীকে প্রাচীনতম প্রমাণ করে। সে সূত্রে বলা হয়, রাজশাহী শহরের বয়স প্রায় পৌনে চারশ বছর।

রাজশাহীর ইতিহাস

রাজশাহী সুপ্রাচীন ঐতিহ্য মণ্ডিত একটি শহর। অনেক আগে থেকে এই শহরটি প্রাচীন বাংলায় পরিচিত ছিল।

প্রাচীন ও মধ্যযুগ

রাজশাহী ছিল প্রাচীন বাংলার পুণ্ড্র সাম্রাজ্যের অংশ। বিখ্যাত সেন বংশের রাজা বিজয় সেনের সময়ের রাজধানী বর্তমান রাজশাহী শহর থেকে মাত্র ৯ কিমি দূরে অবস্থিত ছিল। এ শহরের প্রাচীন নাম ছিল মহাকাল গড়। পরে মধ্যযুগে বর্তমান রাজশাহী পরিচিত ছিল রামপুর বোয়ালিয়া নামে । এর সূত্র ধরে এখনও রাজশাহীর একটি থানার নাম বোয়ালিয়া।

নবাবী আমল

বাংলার নবাবী আমল ১৭০০ হতে ১৭২৫ সালে নবাব মুশির্দকুলী খান সমগ্র বাংলাদেশকে রাজস্ব আদায়ের সুবিধার জন্য ১৩টি চাকলায় বিভক্ত করেন। যার মধ্যে ‘চারুলা রাজশাহী’ নামে একটি বৃহৎ বিস্তৃতি এলাকা নির্ধারিত হয়। সমগ্র রাজশাহী ও পাবনার অংশ নিয়ে এই চাকলা গঠিত হয়েছিল। পদ্মার উত্তরাঞ্চল বিস্তীর্ণ এলাকা নিয়ে পাবনা পেরিয়ে ঢাকা পর্যন্ত এমনকি নদীয়া, যশোর, বর্ধমান, বীরভূম নিয়ে এই এলাকা রাজশাহী চাকলা নামে অভিহিত হয়।

ব্রিটিশ আমল

ব্রিটিশ রাজত্বের সময় রাজশাহী বোয়ালিয়া নামে পরিচিত ছিল। তখন এটি ছিল তৎকালীন পূর্ববঙ্গ ও আসাম অঞ্চলের অন্তর্গত রাজশাহী জেলার প্রশাসনিক কেন্দ্র। রাজশাহীকে সে সময়ে রেশম চাষের প্রধান কেন্দ্র হিসেবে নির্বাচন করা হয়েছিল। তখন রাজশাহীতে একটি সরকারি কলেজ ও রেশম শিল্পের জন্য একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্থাপন করা হয়। সেসময় থেকে দেশবিভাগের পূর্ব পর্যন্ত পদ্মা নদীর ওপর দিয়ে প্রতিদিন যাত্রীবাহী স্টিমার চলাচল করত।

১২ জুন ১৮৯৭ সালের ভয়াবহ ভূমিকম্পে রাজশাহী শহরের বেশীরভাগ ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়। পরবর্তীতে অনেক ভবন আবার নতুন করে স্থাপিত হয়।

আধুনিক যুগ

রাজশাহী শহরকে কেন্দ্র করে ১৭৭২ সালে জেলা গঠন করা হয়। ১৮৭৬ সালে গঠিত হয় রাজশাহী পৌরসভা। পরবর্তীতে ১৯৯১ সালে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনে রূপান্তরিত হয়।

রাজশাহী নামকরণ

রাজশাহী নামটির উৎপত্তি সম্পর্কে আলোচনা করতে গেলেই কয়েক শতাব্দী পূর্বে ফিরে যেতে হয়। এ শহরের প্রাচীন নামটি ছিল মহাকাল গড়। পরে রূপান্তরিত হয়ে দাঁড়ায় রামপুর-বোয়ালিয়ায়। রামপুর-বোয়ালিয়া শহরের নামকরণ রাজশাহী কী করে হলো তা নিয়ে প্রচুর মতপার্থক্য রয়েছে।

রামপুর-বোয়ালিয়া থেকে রাজশাহী নামটির উদ্ভব কিভাবে হলো এর সুস্পষ্ট কোনো ব্যাখ্যা নাই। ব্রিটিশ আমলের প্রাথমিক যুগের ইতিহাসে ও রাজশাহী নামক কোনো জনপদ বা স্থানের উল্লেখ নাই। অনেকে মনে করেন, এই জনপদ একদা বহু রাজা, সুলতান আর জমিদার শাসিত ছিল বলে নামকরণ হয়েছে রাজশাহী।

ঐতিহাসিক ব্লকম্যানের (Bolch Mann) মতে, খ্রিষ্টীয় ১৫শ শতকে রাজা গণেশের দখলের সময় থেকে রাজশাহী নামের উদ্ভব হয়েছে। কিন্তু ব্লকম্যানের অভিমত গ্রহণে আপত্তি করে বেভারিজ (Beveridge) বলেন, রাজা গণেশের সময় এই নামটির উদ্ভব হলে তার উল্লেখ টোডরমল প্রণীত খাজনা আদায়ের তালিকায় অথবা আবুল ফজলের আইন-ই-আকবরী নামক গ্রন্থে অবশ্যই পাওয়া যেত। ডব্লিউ হান্টারের মতে, নাটোরের রাজা রামজীবনের জমিদারী রাজশাহী নামে পরিচিত ছিল এবং সেই নামই ইংরেজরা গ্রহণ করে এই জেলার নাম দেন রাজশাহী।

অনেকে এসব ব্যাখ্যাকে যথার্থ ইতিহাস মনে করেন না। তবে ঐতিহাসিক সত্য যে, নবাব মুশির্দকুলী খান এই অঞ্চলকে চারুলা রাজশাহী নামে একটি বৃহৎ বিস্তৃতি চাকলা নির্ধারণ করেন। প্রথমে সমগ্র চাকলার রাজস্ব আদায় করতেন হিন্দু রাজ-জমিদার উদয় নারায়ণ। তিনি ছিলেন মুর্শিদ কুলির একান্ত প্রীতিভাজন ব্যক্তি। যে জন্য নবাব তাকে রাজা উপাধী প্রদান করেন। অনেকের মতে, প্রথম রাজা উদয় নারায়ণের ওপর প্রীতিবশত এই চাকলার নাম স্থায়ীভাবে রাজশাহী করেন নবাব মুর্শিদকুলী খান। ১৭১৪ সালে নবাব মুর্শিদকুলী খান নাটোরের রামজীবনের নিকট বন্দোবস্ত প্রদানকালে বন্দোবস্তে রাজশাহী নামের উল্লেখ পাওয়া যায়।

কিন্তু ঐতিহাসিক অক্ষয় কুমার মৈত্রেয়ের মতে, ১৭৩০ সালে রামজীবন মারা গেলে তার দত্তক পুত্র রামকান্ত রাজা হন। ১৭৫১ সালে রামকান্তের মৃত্যুর পরে তার স্ত্রী ভবানী দেবী রাণী ভবানী নামে উত্তরাধীকারী লাভ করেন। এই জমিদারি পরে নাটোরের রাণী ভবানীর শাসনে আসে ও বহু অঞ্চল নিয়ে বিস্তৃতি লাভ করে। পরে রাণী ভবানীর দেয়া নামই রাজশাহীর নামকরণ করা হয়। অবশ্য রাণী ভবানী সম্পর্কে গ্রান্ট লিখেছিলেন যে, রাণী ভবানীর জমিদারিকেই রাজশাহী নামে ডাকা হতো। সেখান থেকেই রাজশাহী জেলার নামকরণ।

তবে সাধারণভাবে রাজশাহী শব্দটি বিশ্লেষণ করলে দুটি ভিন্ন ভাষার একই অর্থবোধক দুটি শব্দের সংযোজন পরিলক্ষিত হয়। সংস্কৃত ‘রাজ’ ও ফারসি ‘শাহী’ শব্দযোগে ‘রাজশাহী’ শব্দের উদ্ভব। দুইটি শব্দের অর্থই রাজা বা রাজকীয় বা বাদশাহ বা বাদশাহী। বাংলা ভাষায় আমরা একই অর্থের অনেক শব্দ দু-বার উচ্চারণ করে থাকি। যেমন– শাক-সবজি, চালাক-চতুর, ধার-দেনা, ঘষা-মাজা, মান-সম্মান, পাহাড়-পর্বত, পাকা-পোক্ত, বিপদ-আপদ ইত্যাদি। ঠিক তেমনি করে এই রাজশাহী শব্দের উদ্ভবও হয়ে থাকতে পারে।

রাজশাহী শহরে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে যাদের অনেকগুলির খ্যাতি দেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে বিদেশেও ছড়িয়ে পড়েছে। নামকরা এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের জন্য রাজশাহী শহর শিক্ষানগরী নামেও পরিচিত। রাজশাহী শহরে এবং এর আশেপাশে বেশ কিছু বিখ্যাত ও ঐতিহাসিক মসজিদ, মন্দির ও উপাসনালয় তথা ঐতিহাসিক স্থাপনা রয়েছে।

 

টাইমস/এএস/এসআই

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ফল প্রকাশ

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ফল প্রকাশ

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষায় ৫৫ হাজার ২৯৫ জন উত্তীর্ণ হয়েছেন। রোববার সন্ধ্যায় এ ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ এফ এম মনজুর কাদির জানান, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ‘সহকারী শিক্ষক নিয়োগ ২০১৮’ ৬৩ জেলার লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। সারাদেশে লিখিত পরীক্ষায় মোট ৫৫ হাজার ২৯৫ জন প্রার্থী পাস করেছেন।

দুই প্যাকেট খাবার দিয়ে অবৈধদের বাংলাদেশে পাঠানো হবে: বিজেপি নেতা

দুই প্যাকেট খাবার দিয়ে অবৈধদের বাংলাদেশে পাঠানো হবে: বিজেপি নেতা

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আপত্তি থাকা সত্ত্বেও জাতীয় নাগরিক পঞ্জি(এনআরসি) করা হবে বলে হুঁশিয়ার করেছেন বিজেপির বিধায়ক সুরেন্দ্র সিং। তিনি হুমকি দিয়ে বলেছেন, এনআরসিতে যারা অবৈধ চিহ্নিত হবেন, তাদেরকে হাতে দুই প্যাকেট করে খাবার ধরিয়ে দিয়ে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হবে। শনিবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন বিজেপির এই নেতা।

অন্যায়-দুর্নীতি করলে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না: কাদের

অন্যায়-দুর্নীতি করলে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বাংলাদেশে এই প্রথম শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে নজিরবিহীন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হলো। তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে এবং বাধ্যতামূলক পদত্যাগ করানো হয়েছে। বাংলাদেশের অন্য কোন ছাত্র সংগঠনে এ ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণের নজির নেই। নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের ভুলতা ফ্লাইওভার নির্মাণ কাজ পরিদর্শন শেষে রোববার দুপুরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

আন্তর্জাতিক

‘ভারতের সঙ্গে প্রথাগত যুদ্ধে হারতে পারে পাকিস্তান’

‘ভারতের সঙ্গে প্রথাগত যুদ্ধে হারতে পারে পাকিস্তান’

ভারতের সঙ্গে প্রথাগত যুদ্ধে পাকিস্তান হারতে পারে উল্লেখ করে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, আমি নিশ্চিত, যখন পারমাণবিক শক্তিধর দুটি দেশের মধ্য যুদ্ধ শুরু হয়, তখন সেটা অবশ্যই পারমাণবিক যুদ্ধের দিকে গড়াবে। ঈশ্বর না করুক, যদি এমন কোনো যুদ্ধ হয়, আর আমরা হেরে যাই তাহলে আমরা শেষ পর্যন্ত লড়াই করব। রোববার আল জাজিরাকে দেয়া এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে ইমরান খান এসব কথা বলেন।

জাতীয়

জনগণের আস্থা অর্জনে পুলিশ নিয়োগে স্বচ্ছতা গুরুত্বপূর্ণ : প্রধানমন্ত্রী

জনগণের আস্থা অর্জনে পুলিশ নিয়োগে স্বচ্ছতা গুরুত্বপূর্ণ : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জনগণের আস্থা-বিশ্বাস অর্জন করার জন্য পুলিশ সদস্য নিয়োগে স্বচ্ছতা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এবার পুলিশ সদস্য নিয়োগ নিয়ে কোনভাবেই কোন লোক দুর্নীতি ও ঘুষ দেয়ার কথা বলতে পারেনি। আগামীতে এ পদক্ষেপে এগিয়ে যেতে হবে।

জাতীয়

নোয়াখালীতে পুলিশের দুই কর্মকর্তা প্রত্যাহার

নোয়াখালীতে পুলিশের দুই কর্মকর্তা প্রত্যাহার

নোয়াখালী পুলিশের বিশেষ শাখার দুই এএসআইকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়ার পর এবার দায়িত্ব থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। তিন রোহিঙ্গার পাসপোর্ট করার ঘটনায় শনিবার রাতে জেলা বিশেষ শাখার (ডিএসবি) দুই এএসআই আবুল কালাম ও নুরুল হুদাকে জেলা পুলিশ লাইনসে সংযুক্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন।

জাতীয়

ভিকারুননিসার নতুন অধ্যক্ষ ফওজিয়া

ভিকারুননিসার নতুন অধ্যক্ষ ফওজিয়া

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের (মাউশি) বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফওজিয়া রেজওয়ান ভিকারুননিসা ন্যূন স্কুল অ্যান্ড কলেজে নতুন অধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। রোববার জারি করা এক প্রজ্ঞাপনের এই নিয়োগের বিষয়টি প্রকাশ করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ। ফওজিয়া এর আগে রাজধানীর সবুজবাগ সরকারি মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ ছিলেন।

রাজনীতি

সোমবার ছাত্রলীগের দায়িত্ব নেবেন জয়-লেখক

সোমবার ছাত্রলীগের দায়িত্ব নেবেন জয়-লেখক

ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত দুই শীর্ষ নেতা আনুষ্ঠানিকভাবে সোমবার দায়িত্ব গ্রহণ করবেন। এদিন তারা ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন। রোববার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান ছাত্রলীগের নতুন ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য। এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ শাখার সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনসহ ছাত্রলীগের আরও অনেক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

বিনোদন

আরও চার শিল্পী পেলেন প্রধানমন্ত্রীর অনুদান

আরও চার শিল্পী পেলেন প্রধানমন্ত্রীর অনুদান

এবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আরও চার শিল্পীকে ২০ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছেন। শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে অসুস্থ এই শিল্পীদের হাতে অনুদানের চেক তুলে দেন তিনি।