• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বুধবার, ০৩ জুন ২০২০, ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

বিশ্বে ৩২ নারী সাংবাদিক কারাগারে

বিশ্বে ৩২ নারী সাংবাদিক কারাগারে

সেন্ট্রাল ডেস্ক০৯ মার্চ ২০১৯, ০৫:১৫পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

সংবাদ তৈরি করতে গিয়ে প্রশাসনের রোষানলে পড়া নারী সাংবাদিকদের নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে কমিটি টু প্রটেক্ট জার্নালিস্টস (সিপিজে)।

বিশ্ব জুড়ে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিয়ে কাজ করা এই সংস্থার প্রতিবেদন অনুযায়ী, বিভিন্ন দেশে মানবাধিকার লঙ্ঘন ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করতে গিয়ে সারা বিশ্ব জুড়ে কারাগারে রয়েছেন ৩২ জন নারী সাংবাদিক।

শুক্রবার আন্তর্জাতিক নারী দিবসে সিপিজে তাদের বার্ষিক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, এই মুহূর্তে কারাগারে থাকা ২৫১ জন সাংবাদিকের মধ্যে ৩২ জন নারী। ওই সাংবাদিকদের বেশির ভাগই তুরস্ক ও চীনের বাসিন্দা। তুরস্কের ১৪ এবং চীনের ৭ জন সাংবাদিক আছেন জেলে। পিছিয়ে নেই সৌদি আরব, ভিয়েতনাম, ইসরায়েল, মিশর ও সিরিয়াও। সৌদি আরবের ৪, ভিয়েতনামের ২, ইসরায়েলে ২, মিশরে ২ এবং সিরিয়ার ১ জন সাংবাদিক কারাগারে আছেন। গত মাসে মুক্তি পেয়েছেন তুরস্কের জেহরা দোগান। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল দেশদ্রোহিতার।

কারাবন্দি ৩২ নারী সাংবাদিকের মধ্যে ২৬ জন রাজনৈতিক খবর ছাড়াও লিখতেন দুর্নীতি ও মানবাধিকার নিয়ে। নারীদের গাড়ি চালনার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল সৌদি আরবে। তার বিরুদ্ধে সরব হওয়ায় বন্দি করা হয় চার নারী সাংবাদিককে। বন্দি অবস্থায় তাদের যৌন হেনস্থা করা হয়েছে বলেও অভিযোগ করেছেন বেশ কয়েকজন নারী।

সিপিজের প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, ওই সাংবাদিকরা নিজেদের দেশে নানা বিষয়ে সরব হয়েছিলেন। এর মধ্যে রাষ্ট্রবিরোধী কার্যকলাপের অভিযোগে তুরস্কের নাজলি ইলিস্যাক, হাতিসে দুমান এবং চীনের গুলমায়ের ইমিন যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে সাজা পেয়েছেন।

তুরস্ক সরকারের অভিযোগ, হাতিসে দুমান সেদেশে নিষিদ্ধ কমিউনিস্ট পার্টির সদস্য। রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানোর অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় তাকে।

চীনের গুলমায়ের ইমিন রাষ্ট্রের গোপন তথ্য ফাঁসের অভিযোগে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা পান। তিনি ইসলাম ধর্মের অনুসারী উইঘুর সম্প্রদায়ের ওয়েবসাইটে ভুল ও বিকৃত তথ্য দেন বলে অভিযোগ। তাকে গ্রেফতার করার সঙ্গে সঙ্গে সেই ওয়েবসাইটের সমস্ত তথ্যও মুছে ফেলা হয়।

 

 

টাইমস/এসআই

করোনায় আক্রান্ত ৫০ হাজার ও মৃত্যু ৭০০ ছাড়াল

করোনায় আক্রান্ত ৫০ হাজার ও মৃত্যু ৭০০ ছাড়াল

দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘন্টায় দেশে নতুন করে একদিনে রেকর্ড

এবার না ফেরার দেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র

এবার না ফেরার দেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র

এবার না ফেরার দেশে চলে গেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র

ফ্লেক্সিলোড দোকানির সোনালী ব্যাংক অফিসার হয়ে উঠার গল্প

ফ্লেক্সিলোড দোকানির সোনালী ব্যাংক অফিসার হয়ে উঠার গল্প

অভাবের সংসারে থেকেও অদম্য স্পৃহা নিয়ে পড়াশোনা করেছেন। বাবা চাকরি

জাতীয়

এবার করোনায় ‘গরীবের বন্ধু’ সেই বিসিএস ক্যাডারের মৃত্যু

এবার করোনায় ‘গরীবের বন্ধু’ সেই বিসিএস ক্যাডারের মৃত্যু

এবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন গরীবের বন্ধু হিসেবে খ্যাত বিসিএস ক্যাডার খাদ্য কর্মকর্তা উৎপল সাহা (উৎপল হাসান)। তিনি

জাতীয়

এসএসসিতে ১৩শ' নম্বরের মধ্যে ১২৭৪ পেয়ে সেরা নাফিস

এসএসসিতে ১৩শ' নম্বরের মধ্যে ১২৭৪ পেয়ে সেরা নাফিস

এসএসসি পরীক্ষায় রাজশাহী বোর্ডে প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে প্রথম হয়েছেন নাফিস উদ্দীন ফুয়াদ। তিনি মোট ১৩০০ নম্বরের পরীক্ষায়

জাতীয়

মোবাইল ফোনে কথা বলার খরচ আবারও বাড়ছে

মোবাইল ফোনে কথা বলার খরচ আবারও বাড়ছে

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে দেশের অর্থনৈতিক ক্ষতি পুষিয়ে নিতে আগামী অর্থবছরে দেশের টেলিকম খাত থেকে রাজস্ব বৃদ্ধির পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়। অর্থ মন্ত্রণালয় ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের একাধিক সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

রাজনীতি

গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে ব্যর্থ হয়েছে সরকার: রিজভী

গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে ব্যর্থ হয়েছে সরকার: রিজভী

মঙ্গলবার রাজধানীর নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক ভার্চুয়াল ব্রিফিংয়ে রিজভী বলেন, শর্তসাপেক্ষে গণপরিবহন চালুর কথা থাকলেও সরকার সেটি কোনোভাবেই সেটি বাস্তবায়ন করতে পারেনি। গণপরিবহন চালুর প্রথমদিন থেকেই চরম ভাবে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করা হচ্ছে। যা বিভিন্ন গণমাধ্যম মারফত দেশবাসী প্রত্যক্ষ করেছে।

জাতীয়

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে করোনায় প্রথম একজনের মৃত্যু

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে করোনায় প্রথম একজনের মৃত্যু

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে প্রথমবারের মতো এক বৃদ্ধের (৭১) মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। তিনি উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা।

স্বাস্থ্য

কোভিড-১৯ নিয়ে ইউটিউবের অনেক ভিডিও’র তথ্যই বিভ্রান্তিমূলক

কোভিড-১৯ নিয়ে ইউটিউবের অনেক ভিডিও’র তথ্যই বিভ্রান্তিমূলক

ইন্টারনেটে যেকোনো তথ্য কিংবা ভিডিও জনপ্রিয় হওয়ার পেছনে রহস্যময় কোনো না কোনো কারণ থাকতে পারে, কিন্তু সঠিক তথ্য প্রদানের সাথে এর কোনো যোগসূত্র নেই বলে মনে করছেন গবেষকরা। বিএমজে গ্লোবাল হেলথ কর্তৃক সম্প্রতি প্রকাশিত একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে যে, সার্স-কোভ-২ নিয়ে আলোচনা করা সর্বাধিক দেখা প্রতি চারটি ইউটিউব ভিডিওর মধ্যে একটিতে বিভ্রান্তিমূলক বা ভুল তথ্য রয়েছে।