• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ৪ কার্তিক ১৪২৬

শিক্ষার্থীদের গায়ে হাত তোলার অধিকার তাদের কে দিল, ভিপি নুরের প্রশ্ন

শিক্ষার্থীদের গায়ে হাত তোলার অধিকার তাদের কে দিল, ভিপি নুরের প্রশ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক০৭ অক্টোবর ২০১৯, ০৬:৪৯পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

সাধারণ শিক্ষার্থীদের গায়ে হাত তোলার অধিকার ছাত্রলীগকে কে দিয়েছে? প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশ্যে এমন প্রশ্ন রেখেছেন ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর।

সোমবার বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে এমন প্রশ্ন রাখেন তিনি। বিক্ষোভ মিছিলটি ঢাবির রাজু ভাস্কর্য থেকে শুরু হয়ে বুয়েটের ক্যাফেটোরিয়া প্রাঙ্গণে গিয়ে সমাবেশে রূপ নেয়।

বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ আয়োজিত ওই বিক্ষোভ সমাবেশে ছাত্রলীগের হাতে বারবার নির্যাতিত এ ছাত্রনেতা বলেন, ‘কোনো ছাত্র যদি অন্যায় অপরাধ করে থাকে, তার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন রয়েছে। তারা তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে। কিন্তু ছাত্রলীগকে সাধারণ শিক্ষার্থীদের গায়ে হাত তোলার অধিকারটা কে দিল?

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে ভিপি নুরুল হক বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর কাছে এই প্রশ্ন রাখতে চাই। যিনি এক সময় ছাত্রলীগের কর্মী ছিলেন। যিনি ছাত্রলীগের দেখভালের দায়িত্বে ছিলেন। কিন্তু এই ছাত্রলীগ যখন বিভিন্ন ক্যাম্পাস ও বিভিন্ন জায়গায় বেপরোয়া কর্মকাণ্ডে লিপ্ত হয়েছে তখন তিনি দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নিয়েছেন।

ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে সাধারণ শিক্ষার্থীদের নির্যাতনের নানা চিত্র তুলে ধরে তিনি আরো বলেন, আমরা বলতে চাই-আজকে ছাত্রলীগ কারা চালাচ্ছে? যেই ছাত্রলীগ ছাত্রদের প্রতিনিধি হয়ে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে সাধারণ শিক্ষার্থীদের জিম্মি করে জোর করে মিছিল-মিটিং করাচ্ছে। তাদের কথা না শুনলে শিক্ষার্থীদের হল থেকে বের করে দেয়া হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের মাথা ফাটিয়ে দেয়া হচ্ছে। সর্বশেষ বাংলাদেশের সেরা প্রতিষ্ঠান বুয়েটের মতো একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একজন ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা করে সিঁড়িতে তার লাশ ফেলে রাখা হয়েছে।’

ভিপি নুর বলেন, আজকের ছাত্ররা দৃর্বৃত্তায়নের রাজনীতির হাতে জিম্মি। ছাত্রসমাজকে ঐক্যবদ্ধভাবে দুর্বৃত্তায়নের রাজনীতির শৃঙ্খল ভাঙার আহ্বান জানান তিনি।

অতীতের নিরাপদ আন্দোলনের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘যখন নিরাপদ সড়ক আন্দোলন হয়েছিল তখন কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের একজন শিক্ষার্থীকে কম্পিউটার চিপসের বক্স রাখার দায়ে তখনকার ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী বুয়েট ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে নিয়ে ওই ছেলেকে বেদম প্রহার করে পুলিশের তুলে দিয়েছিলেন।’

বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে আবরার ফাহাত হত্যাকান্ডের সুষ্ঠু বিচারসহ দেশের প্রতিটি ক্যাম্পাসে শিক্ষার পরিবেশ নিশ্চিত করতে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী কর্মকান্ডেরও বিচার দাবি করা হয়।  

 

টাইমস/এমএস

চট্টগ্রামে খাটে মেয়ের, ফ্লোরে বাবার গলাকাটা লাশ

চট্টগ্রামে খাটে মেয়ের, ফ্লোরে বাবার গলাকাটা লাশ

চট্টগ্রামের বন্দর থানাধীন নিমতলা এলাকায় নিজ বাসা থেকে বাবা-মেয়ের গলাকাটা...

ঝিনাইদহে মাহেন্দ্রের ‍পিছনে ট্রাকের ধাক্কায় দুই নারী নিহত

ঝিনাইদহে মাহেন্দ্রের ‍পিছনে ট্রাকের ধাক্কায় দুই নারী নিহত

ঝিনাইদহ শহরের লাউদিয়া এলাকায় মাহেন্দ্রের ‍পিছনের ট্রাকের ধাক্কায় দুই নারী...

চট্টগ্রামে আগুনে পুড়ল দুই মার্কেটের শতাধিক দোকান

চট্টগ্রামে আগুনে পুড়ল দুই মার্কেটের শতাধিক দোকান

চট্টগ্রাম নগরীর নিউ মার্কেট সংলগ্ন জহুর হকার্স মার্কেট ও জালালাবাদ...

রাজনীতি

বাঘায় সড়ক দুর্ঘটনায় যুবলীগ নেতা নিহত

বাঘায় সড়ক দুর্ঘটনায় যুবলীগ নেতা নিহত

রাজশাহীর বাঘায় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হওয়ার চারদিন পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় জামরুল ইসলাম (২৫) নামে এক যুবলীগ নেতা মারা গেছেন। শনিবার সকাল ৮টায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

জাতীয়

শিশু হত্যাকারীদের কঠোরতম সাজা পেতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

শিশু হত্যাকারীদের কঠোরতম সাজা পেতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আজকে যারা শিশু নির্যাতন বা শিশু হত্যা করবে তাদের কঠোর থেকে কঠোরতম সাজা পেতে হবে, অবশ্যই পেতে হবে। এ ধরনের অন্যায়-অবিচার কখনই বরদাশত করা হবে না। শুক্রবার বিকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছোট ছেলে শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে ‘শেখ রাসেল জাতীয় শিশু–কিশোর পরিষদ’ আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

বিনোদন

প্রেম নেই অথচ শপিং মলে আদনানের হাতে হাত মেহজাবিনের! (ভিডিও)

প্রেম নেই অথচ শপিং মলে আদনানের হাতে হাত মেহজাবিনের! (ভিডিও)

জনপ্রিয় মডেল-অভিনেত্রী মেহজাবিন। বহুদিন ধরে তাকে নিয়ে গুঞ্জন, নাট্যনির্মাতা আদনান আল রাজিবের সাথে চুটিয়ে প্রেম করছেন তিনি। এমনকি এর আগে তারা দুজনই দেশ-বিদেশ ঘুরে বেরিয়েছেন বলেও খবর পাওয়া গেছে।

জাতীয়

বরণ্যে চিত্রশিল্পী কালিদাস কর্মকার আর নেই

বরণ্যে চিত্রশিল্পী কালিদাস কর্মকার আর নেই

একুশে পদক বিজয়ী বরণ্যে চিত্রশিল্পী কালিদাস কর্মকার রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে মারা গেছেন। এই খবর নিশ্চিত করেছেন তার ছোট ভাই শিল্পী প্রশান্ত কর্মকার। কালিদাস কর্মকারের বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর। শুক্রবার দুপুরে তাকে ঢাকার বাসা থেকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ল্যাবএইড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে চিকিৎসকরা কালিদাসকে মৃত ঘোষণা করেন।

আন্তর্জাতিক

আফগানিস্তানে জুমার নামাজে বোমা বিস্ফোরণ, নিহত ৬২

আফগানিস্তানে জুমার নামাজে বোমা বিস্ফোরণ, নিহত ৬২

আফগানিস্তানের নানগারহার প্রদেশের হাসকা মিনা জেলায় একটি মসজিদের ভেতরে বোমা বিস্ফোরণে কমপক্ষে ৬২ জন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন শতাধিক মানুষ। খবর আল জাজিরার। শুক্রবার জুমার নামাজের সময় এই ঘটনা ঘটে। প্রাদেশিক সরকারের মুখপাত্র আতাউল্লাহ খোগিয়ানি বলেছেন, কমপক্ষে ৬২ জন নিহত হয়েছেন। বোমা বিস্ফোরণের সময় পুরো মসজিদটি প্রকম্পিত হয়ে উঠে।

লাইফস্টাইল

হৃদরোগে আক্রান্ত বয়স্কদের ক্ষেত্রে শরীরচর্চা উপকারী

হৃদরোগে আক্রান্ত বয়স্কদের ক্ষেত্রে শরীরচর্চা উপকারী

বর্তমান সময়ে হৃদরোগ একটি মারাত্মক সমস্যা হিসেবে দেখা দিয়েছে। শুধু যুক্তরাষ্ট্রেই প্রতিবছর ৬,১০,০০০ জন হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন, আর হার্ট অ্যাটাক হয় ৭,৩৫,০০০ লোকের। যাদের বয়স ৬৫ বছরের বেশি, তরুণদের তুলনায় তাদের হৃদরোগে আক্রান্ত হবার আশঙ্কা বেশি।