• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬

নুসরাতকে পুড়িয়ে হত্যা: ফেনীর এসপির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে

নুসরাতকে পুড়িয়ে হত্যা: ফেনীর এসপির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক১১ মে ২০১৯, ১০:৩২পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনা তদন্তে পুলিশ সদর দপ্তরের গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের সুপারিশ অনুযায়ী ফেনীর পুলিশ সুপার (এসপি) জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

পুলিশ সদর দপ্তরের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি) সোহেল রানা গণমাধ্যমকে এ কথা জানিয়েছেন।

পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, তদন্ত কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী ফেনীর পুলিশ সুপারের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের অংশ হিসেবে তাকেও একটি ইউনিটে সংযুক্ত করা হবে। তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়টি বর্তমানে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে প্রক্রিয়াধীন।

সোহেল রানা বলেন, ব্যবস্থা নিতে ফেনীর সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনকে সাময়িক বরখাস্ত করে রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি কার্যালয়ে সংযুক্ত করা হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদনের সুপারিশ অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

এ ছাড়া তদন্ত প্রতিবেদনের সুপারিশ অনুযায়ী বিভাগীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে অভিযুক্ত এসআই (নিরস্ত্র) মো. ইউসুফকে খুলনা রেঞ্জ ডিআইজি কার্যালয় এবং এসআই (নিরস্ত্র) মো. ইকবাল আহাম্মদকে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলায় সংযুক্ত করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধেও নেওয়া হচ্ছে শাস্তি মূলক ব্যবস্থা।

তিনি বলেন, সাময়িক বরখাস্ত করে তাদের দূরবর্তী বিভিন্ন ইউনিটে সংযুক্ত করা হয়েছে। সংযুক্তি কোনো বদলি নয়। এটি শাস্তি প্রক্রিয়ার একটি অংশ। সংযুক্তিকালে তাদের কোনো দায়িত্ব প্রদান করা হয় না।

উল্লেখ্য, গত ২৭ মার্চ সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফিকে যৌন নিপীড়নের দায়ে ওই মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলাকে আটক করে পুলিশ। পরে ৬ এপ্রিল ওই মাদ্রাসা কেন্দ্রের সাইক্লোন শেল্টারের ছাদে নিয়ে অধ্যক্ষের সহযোগীরা তার শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয়। ১০ এপ্রিল রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে মারা যান নুসরাত জাহান রাফি।

 

টাইমস/জেডটি

মিয়ানমারে গিয়ে অনুকূল পরিবেশ তৈরি করুন: আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মিয়ানমারে গিয়ে অনুকূল পরিবেশ তৈরি করুন: আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে মিয়ানমারে গিয়ে অনুকূল পরিবেশ নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, আমরা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে বলব তারা যেন মিয়ানমারে যায়। এজন্য একটি কমিশন গঠন করা যেতে পারে। কমিশন, জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা এবং অন্যান্য সবার এখন কাজ হচ্ছে মিয়ানমার যাওয়া। সেখানে গিয়ে মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের জন্য অনুকূল পরিবেশ নিশ্চিত করা। আমাদের এখানে তাদের আর কাজ নেই।

নারী ও শিশু নির্যাতন ঠেকাতে তারেকের নির্দেশে বিএনপির নতুন সংগঠন

নারী ও শিশু নির্যাতন ঠেকাতে তারেকের নির্দেশে বিএনপির নতুন সংগঠন

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশনায় ‘নারী ও শিশু অধিকার ফোরাম’ গঠন করা হয়েছে। শুক্রবার স্থায়ী কমিটির সদস্য বেগম সেলিমা রহমান ও কেন্দ্রীয় নেতা নিপুণ রায় চৌধুরীর নেতৃত্বে ৬৬ সদস্যের গঠিত কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা করা হয়।

রাঙামাটিতে সেনা টহলের সময় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শীর্ষ সন্ত্রাসী নিহত

রাঙামাটিতে সেনা টহলের সময় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শীর্ষ সন্ত্রাসী নিহত

রাঙামাটিতে সেনাবাহিনীর টহলের সময় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ইউপিডিএফ প্রসীতপন্থী দলের শীর্ষ সন্ত্রাসী সুমন চাকমা নিহত হয়েছেন। নিহত সুমন নানিয়ারচর উপজেলা চেয়ারম্যান শক্তিমান চাকমা হত্যার অন্যতম আসামি।

জাতীয়

রংপুরে প্রসূতির জরায়ুতে সুই রেখেই সেলাই

রংপুরে প্রসূতির জরায়ুতে সুই রেখেই সেলাই

রংপুর শহরের আদর্শ পাড়া এলাকার অটোরিকশা চালক তানজিদ হোসেনের স্ত্রী আফরোজা বেগমকে প্রসববেদনা নিয়ে ভর্তি করা হয় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনি বিভাগে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নরমাল ডেলিভারির সময় কষ্ট হলে পায়খানা ও প্রস্রাবের রাস্তা কেটে নবজাতককে বের করা হয়। পরে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হলে চিকিৎসক ছাড়াই নার্স ও আয়া সুই রেখে সেলাই করে দেন।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

বিশ্বে ঝুঁকি বাড়াচ্ছে কিলার রোবট

বিশ্বে ঝুঁকি বাড়াচ্ছে কিলার রোবট

রোবটকে আমরা মানুষের সাহায্যকারী বা কাজের চাপ কমানোর যন্ত্র হিসেবেই মনে করি। কিন্তু বর্তমানে সারা বিশ্বের আতঙ্কের কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে কিলার রোবট। যার কাজ হবে স্বয়ংক্রিয়ভাবে মানুষ খুন করা। অ্যামাজন, মাইক্রোসফট ও ইনটেলের মতো বিখ্যাত টেক কোম্পানি এসব কিলার রোবট তৈরি করছে। বিভিন্ন দেশের সামরিক বাহিনী যুদ্ধক্ষেত্রে এসব রোবট ব্যবহার করতে চায়।

বিনোদন

পূর্ণাঙ্গ ভূত হয়ে খুনিদের খুঁজছেন জয়া!

পূর্ণাঙ্গ ভূত হয়ে খুনিদের খুঁজছেন জয়া!

দুই বাংলার জনপ্রিয় নায়িকা জয়া আহসান। একের পর এক দর্শকনন্দিত ছবিগুলোর নায়িকা হয়ে বাংলাদেশ-কলকাতায় সমানভাবে পরিচিতি পেয়েছেন তিনি। কিছুদিন আগে বাংলাদেশে মুক্তি পেয়েছে তার সিনেমা 'দেবী'। হ‌ুমায়ূন আহমেদের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত এই সিনেমায় জয়াকে দেখা গিয়েছিলে আধা-ভৌতিক এক চরিত্রে। যেখানে পুরোপুরি ভূত রূপ ধারণ করতে পারেননি তিনি।

লাইফস্টাইল

ব্লুটুথ হেডসেট ব্যবহারে সাবধান

ব্লুটুথ হেডসেট ব্যবহারে সাবধান

আমাদের বর্তমান ফ্যাশনে কানে ব্লুটুথ হেডসেট রাখাটা যেন বাধ্যতামূলক। বাসে চলার পথে, অফিসে, অবসরে, রাস্তায় হাঁটাহাঁটিসহ বিভিন্ন সময়ে ব্লুটুথ হেডসেট যেন তরুণদের সবচেয়ে পছন্দের। পরিস্থিতি যাই হোক, গান শোনা চাই-ই চাই।

বিনোদন

অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন  এষা

অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন এষা

বলিউড অভিনেত্রী এষা গুপ্তা। এবার সড়কে অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন তিনি। দুর্ঘটনায় আহত হলেও খারাপ কিছু হয়নি এই অভিনেত্রীর। পরে আহত অবস্থায় মুম্বাইয়ের লীলাবতী হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। সেখানে নায়িকাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক জানিয়েছেন, এষা ভালো আছেন। অল্পের জন্য বেঁচে গেলেন।

বিনোদন

বিয়ের পরই রিয়ার সেক্স বাণিজ্য!

বিয়ের পরই রিয়ার সেক্স বাণিজ্য!

অন স্ক্রিন কিংবা অফ স্ক্রিন, কোথাও চমক দিতে ভোলেন না রিয়া সেন। তবে বেশ কিছুদিন ধরে চমক দেয়া’তো দূরের কথা, হারিয়েই গেলেন তিনি। বহুদিন ক্যামেরার সামনেই দেখা যায়নি তাকে।