• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • রোববার, ০৯ আগস্ট ২০২০, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭

নিষ্ক্রিয় জীবনযাপনে শিশুদের স্বাস্থ্যঝুঁকি বেশি

নিষ্ক্রিয় জীবনযাপনে শিশুদের স্বাস্থ্যঝুঁকি বেশি

স্বাস্থ্য ডেস্ক০৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ১০:২২এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

বিশ্বব্যাপী শিশুরা খুবই নিষ্ক্রিয় (ক্রিয়াহীন বা অলস) জীবনযাপন করছে। ফলে তাদের যথাযথ স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও বিকাশ হচ্ছে না। শারীরিকভাবে নিষ্ক্রিয় শিশুরা মারাত্মক শারীরিক, মানসিক, সামাজিক ও বুদ্ধিভিত্তিক স্বাস্থ্যঝুঁকি নিয়ে বেড়ে উঠছে।

সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়া ভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ‘অ্যাক্টিভ হেলথি কিডস গ্লোবাল এলায়েন্স’ এর এক গবেষণা প্রতিবেদনে এসব তথ্য ওঠে এসেছে।

সংস্থাটির চেয়ারম্যান ও কানাডার অটোয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর মার্ক ট্রিম্বলে বলেন, শারীরিকভাবে সক্রিয় জীবনযাপন না করায় ভবিষ্যতে এই প্রজন্মের শিশুদেরকে জলবায়ু পরিবর্তন, বিশ্বায়ন ও প্রযুক্তির বিকাশের প্রভাবসহ বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে।

ফিজিক্যাল অ্যাক্টিভিটি অ্যান্ড হেলথ জার্নালে প্রকাশিত গবেষণায় ৬টি মহাদেশের ৪৯টি উন্নত ও উন্নয়নশীল দেশের শিশুদের শারীরিক সক্রিয়তা নিয়ে বিশ্লেষণ করা হয়েছে।

ফলাফলে দেখা যায়, স্লোভেনিয়া, জিম্বাবুয়ে ও জাপানের শিশু-কিশোরদের শারীরিক সক্রিয়তা সবচেয়ে বেশি।

এছাড়া গবেষণায় দেখা যায়, প্রতিদিন গড়ে অন্তত এক ঘণ্টা শারীরিকভাবে সক্রিয় জীবনযাপন করেন এমন শিশুদের সংখ্যা মাত্র ৪১.৭ ভাগ।

গবেষকরা বলেন, একটি সক্রিয় জীবনযাপনের ফলেই শিশুদের শারীরিক সক্রিয়তা বৃদ্ধি পায় যা তাদের দৈনন্দিন জীবন যাপনের জন্য অপরিহার্য।

শিশুদের ভবিষ্যৎ স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও বিকাশের জন্য প্রতিটি সমাজেই শিশুদের শারীরিক সক্রিয়তা বাড়াতে হবে। এজন্য শিশুদের গতিশীলতা বাড়াতে সামাজিক নিয়ম-কানুন ও জীবনযাপনের অভ্যাসের পরিবর্তন করার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

এদিকে এই প্রথমবারের মত বৈশ্বিক কোন গবেষণায় বাংলাদেশের শিশুদের জীবনযাপনের বিষয়টি ওঠে এসেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, শিশুদের যথাযথ বৃদ্ধি ও বিকাশের জন্য প্রতিদিন পর্যাপ্ত পরিমাণ শারীরিক কর্মকান্ড করা প্রয়োজন। অথচ বাংলাদেশের প্রতি পাঁচ শিশুর তিনজনই এটা করছে না।

শিশুদের এই নিষ্ক্রিয় জীবনযাপন বাংলাদেশের শিশুদের সুস্থভাবে বেড়ে ওঠার ক্ষেত্রে মারাত্মক প্রভাব ফেলছে। তাই বাংলাদেশের শিশুদের সক্রিয়তা বাড়াতে বেশি বেশি খেলাধুলা ও শারীরিক কর্মকান্ড বাড়ানো উচিত বলে গবেষকরা মনে করছেন।

একই সঙ্গে প্রতিবেদনে বাংলাদেশের শিশুদের সক্রিয় জীবনযাপনকে গুরুত্ব দিয়ে একটি কার্যকর জাতীয়নীতি প্রণয়ন ও বাস্তবায়নের পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

 

 টাইমস/এএইচ/জিএস

বিস্ফোরণে ছিন্নভিন্ন বৈরুত বন্দর পুনর্নিমাণ করবে তুরস্ক

বিস্ফোরণে ছিন্নভিন্ন বৈরুত বন্দর পুনর্নিমাণ করবে তুরস্ক

ভয়াবহ বিস্ফোরণে লেবাননের রাজধানী বৈরুতের বড় একটি অংশ ধ্বংস হয়ে

মঙ্গল জয়ের পথে আরেক ধাপ এগিয়ে গেল স্পেসএক্স

মঙ্গল জয়ের পথে আরেক ধাপ এগিয়ে গেল স্পেসএক্স

গত সপ্তাহে স্পেসএক্স তাদের মঙ্গল অভিযানের কথা মাথায় রেখে একটি

পুষ্টির ভান্ডার বাতাবি লেবু

পুষ্টির ভান্ডার বাতাবি লেবু

প্রচুর ভিটামিন সি, বিটা ক্যারোটিন, ভিটামিন বি, ফলিক অ্যাসিড, পটাশিয়ামসহ

মতামত

কোভিড-১৯ এবং আমার শান্তিনিকেতনে থেকে যাওয়া   

কোভিড-১৯ এবং আমার শান্তিনিকেতনে থেকে যাওয়া  

এখন দৈনন্দিন দিনলিপি বলতে আর কিছুই নেই। আলাদা আলাদা করে সময় ভাগ করে এখন আর কিছু করতে হচ্ছে না। মাঝে মাঝে তো এটাও ভুলে যাই আজকে কি বার বা কত তারিখ। তবুও বেঁচে থাকতে হয়, নতুন দিনের আশায়।

জাতীয়

আলহাজ্ব আবদুস সোবহানের ৪৫তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

আলহাজ্ব আবদুস সোবহানের ৪৫তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

সুপ্রিম কোর্টের সাবেক আইনজীবী, সমাজ সংস্কারক ও বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী আলহাজ্ব আবদুস সোবহানের ৪৫তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ১৯৭৫ সালের ৯ আগস্ট তিনি মৃত্যুবরণ করেন। তিনি দেশের বিশিষ্ট শিল্পপতি ও বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহানের বাবা।

জাতীয়

ময়মনসিংহে বাস-অটোরিকশার সংঘর্ষে প্রাণ গেল ৭ জনের

ময়মনসিংহে বাস-অটোরিকশার সংঘর্ষে প্রাণ গেল ৭ জনের

ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলায় বাস ও সিএনজি অটোরিকশার সংঘর্ষে সাতজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও তিনজন। শনিবার বিকেল ৩টা ৫০ মিনেটে ময়মনসিংহ-জামালপুর মহাসড়কের মুক্তাগাছা উপজেলার ভাবকীর মোড় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

জাতীয়

বঙ্গমাতার ৯০তম জন্মদিন আজ : রাষ্ট্রপতির বাণী

বঙ্গমাতার ৯০তম জন্মদিন আজ : রাষ্ট্রপতির বাণী

আজ ৮ আগস্ট। বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের নেপথ্য প্রেরণার বাতিঘর খ্যাত শেখ ফজিলাতুননেছা ১৯৩০ সালের এই দিনে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। মহান মুক্তিযুদ্ধে অসামান্য অবদান রাখেন মহীয়সী এই নারী। তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মীনী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মা।

জাতীয়

পরীক্ষা ছাড়াই ছাত্র-ছাত্রীদের পরবর্তী ক্লাসে উঠানোর প্রস্তাব

পরীক্ষা ছাড়াই ছাত্র-ছাত্রীদের পরবর্তী ক্লাসে উঠানোর প্রস্তাব

করোনা পরিস্থিতিতে আগামী ডিসেম্বর মাসেও শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান না ‍খুললে কোন পরীক্ষা ছাড়াই পরবর্তী শ্রেণীতে উত্তীর্ণ হবে শিক্ষার্থীরা। এক্ষেত্রে আগের শিক্ষাবর্ষের মৌলিক পাঠ্যক্রম অন্তর্ভুক্ত হবে পরের বছরের শিক্ষাবর্ষে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে এমনই একটি সুপারিশ করেছে বাংলাদেশ পরীক্ষা উন্নয়ন ইউনিট-বেডু।

লাইফস্টাইল

মহামারীর এই সময়ে বেড়ে গেছে চুল পড়া?

মহামারীর এই সময়ে বেড়ে গেছে চুল পড়া?

আমাদের দেহের অন্যতম প্রধান সৌন্দর্য বর্ধক একটি উপাদান হলো চুল। তাই যখন আমাদের চুল পড়তে শুরু করে তখন চিন্তার কোন অন্ত থাকে না।