• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শুক্রবার, ০৩ জুলাই ২০২০, ১৯ আষাঢ় ১৪২৭

বইমেলায় জমে উঠেছে ‘শিশু প্রহর’

বইমেলায় জমে উঠেছে ‘শিশু প্রহর’

নিজস্ব প্রতিবেদক০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৯:২৭পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

প্রতিবারের মতো এবারও একুশে গ্রন্থমেলায় শিশুদের জন্য করা হয়েছে শিশু প্রহর কর্নার। এই কর্নারটি বেশ বড় ও সারাক্ষণ আনন্দ মুখর থাকে।

বইমেলার দ্বিতীয় দিন শনিবার লোক সমাগম তেমন ছিল না। তবে শিশুদের স্টলগুলোতে শিশু ও অভিভাবকদের সমাগম ছিল চোখে পড়ার মতো।

সরেজমিনে দেখা গেছে, শিশুদের স্টলগুলোতে টেবিলে সারি সারি বই রাখা হয়েছে। অনেকে বই পড়ছে। স্কুলের শিক্ষার্থী ছাড়াও বিভিন্ন বয়সী শিশুরা স্টল ঘুরে ঘুরে বই দেখছে। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত এই কর্নারটিতে অনেক শিশু ও অভিভাবকদের দেখা গেছে।

নাহিয়ান নামে এক স্কুল শিক্ষার্থী তার বাবা-মার সঙ্গে এসেছে শিশু প্রহর কর্নারে। পছন্দের বই কিনতে স্টলে স্টলে ঘুরছে সে।

নাহিয়ানের বাবা আসাদুল হক বাংলাদেশ টাইমসকে বলেন, ছেলেকে বই কিনে দিতেই বইমেলায় এসেছি। ভালো বই পেলে ছেলেকে কিনে দেব।

মুন্সীগঞ্জ থেকে আসা পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী শিথিল আহমেদ বাংলাদেশ টাইমসকে বলেন, গত বছরের মতো এবারও আমি মায়ের সঙ্গে একুশে গ্রন্থমেলায় বই কিনতে এসেছি। বিজ্ঞান এবং ছোটদের গল্পের বই পড়তে আমার খুব ভালো লাগে। তাই তো সিসিমপুরের বেশ কিছু বই সংগ্রহ করেছি।

স্টলে বই কিনতে এসেছে চার বছর বয়সী শিশু আদনাব সাকিব। সে বলল, আমি কার্টুন দেখতে ভালোবাসি। তাই আমি কয়েকটি কার্টুনের বই কিনেছি।

আবুল কাউসার (১৬) যাত্রাবাড়ী আইডিয়াল স্কুলের সপ্তম শ্রেণিতে লেখাপড়া করে। সে জানায়, গল্পের বই পড়তে তার খুব ভালো লাগে। তাই মেলায় এসে হুমায়ূন আহমেদের দুইটি বই কিনেছে।

শিশুতোষ প্রকাশনীর প্রগতি পাবলিশার্সের প্রকাশক আসরার মাসুদ বাংলাদেশ টাইমসকে বলেন, প্রতিবারের মতো এবারও শিশুদের জন্য বেশ কিছু চমকপ্রদ বই প্রকাশিত হয়েছে।

উল্লেখ্য, গ্রন্থমেলায় শিশুদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে ১৯৯৮ সালে থেকে 'শিশু প্রহর' সুবিধা চালু করে বাংলা একাডেমি। মেলার প্রতি শনিবার শিশুদের জন্য বিশেষ অনুষ্ঠান ও বইয়ের সংগ্রহ রাখা হয়। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে শিশু কর্নারে শিশুতোষ বইয়ের সংগ্রহ বেশি পাওয়া যায়।

 

টাইমস/টিআর/এক্স

দেশে করোনায় আরও ৪২ জনের মৃত্যু

দেশে করোনায় আরও ৪২ জনের মৃত্যু

দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

জমি রেজিস্ট্রেশনের ফি কমলো অর্ধেক

জমি রেজিস্ট্রেশনের ফি কমলো অর্ধেক

জমি রেজিস্ট্রেশন (নিবন্ধন) ফি দলিলে লেখা দামের ২ শতাংশ থেকে

অভিযানে গিয়ে আসামিদের গুলিতে ৮ পুলিশ নিহত

অভিযানে গিয়ে আসামিদের গুলিতে ৮ পুলিশ নিহত

সন্ত্রাসীদের ধরতে অভিযানে গিয়ে উল্টো পুলিশের আট সদস্য আসামিদের গুলিতে

আন্তর্জাতিক

লাদাখ সফরে মোদি, পরিস্থিতি ফের উত্যপ্ত!

লাদাখ সফরে মোদি, পরিস্থিতি ফের উত্যপ্ত!

সীমান্তে চীনের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই এবার আকষ্মিক লাদাখ সফরে গেলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সফরকালে সীমান্তের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় অবস্থিত ভারতীয় সীমান্তচৌকি পরিদর্শন করেন তিনি। এসময় ভারতীয় সেনাদের সঙ্গেও আলাপ করেন মোদি।

জাতীয়

পিরোজপুরে নিজের চেম্বারে তরুণীকে ধর্ষণ করলেন চিকিৎসক

পিরোজপুরে নিজের চেম্বারে তরুণীকে ধর্ষণ করলেন চিকিৎসক

করোনাকালেও থেমে নেই পাশবিকতা। প্রতিদিনই ঘটছে যৌন হয়রানি ঘটনা। এবার নিজের চেম্বারে কর্মরত সহকর্মী তরুণীকে ধর্ষণ করেছেন এক এমবিবিএস চিকিৎসক। এঘটনায় ভিকটিম তরুণীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযুক্ত চিকিৎসককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

চাকরি

৩৮তম বিসিএস পুলিশ ক্যাডারপ্রাপ্ত শাবি ছাত্রের ভাইভার অভিজ্ঞতা

৩৮তম বিসিএস পুলিশ ক্যাডারপ্রাপ্ত শাবি ছাত্রের ভাইভার অভিজ্ঞতা

১৪ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে আমার সিরিয়াল ছিল ১১। দ্বিতীয়বারের মতো বিসিএস ভাইভা আমার।

স্বাস্থ্য

ডিসেম্বরেই আসছে গ্লোবের করোনা টিকা, দাম নাগালের মধ্যেই

ডিসেম্বরেই আসছে গ্লোবের করোনা টিকা, দাম নাগালের মধ্যেই

করোনাভাইরাসের টিকা (ভ্যাকসিন) আবিষ্কারের দাবি করেছে গ্লোব ফার্মাসিউটিক্যালস গ্রুপ অব কোম্পানিজ লিমিটেডের সহযোগী প্রতিষ্ঠান গ্লোব

জাতীয়

সিরাজগঞ্জে সড়কে প্রাণ গেল নসিমনের তিন যাত্রীর

সিরাজগঞ্জে সড়কে প্রাণ গেল নসিমনের তিন যাত্রীর

সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় নছিমনের তিন যাত্রী নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ৯টার দিকে নাটোর-ঢাকা মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

স্বাস্থ্য

স্ট্রেস আমাদের দেহের প্রতিরোধ ব্যবস্থা ধ্বংস করে দিতে পারে

স্ট্রেস আমাদের দেহের প্রতিরোধ ব্যবস্থা ধ্বংস করে দিতে পারে

স্ট্রেস মানব জীবনের অঙ্গ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ক্যারিয়ার বা কাজের চাপ থেকে শুরু করে ব্যক্তিগত-সামাজিক ইস্যু, হালের মহামারীসহ একাধিক কারণে স্ট্রেস বা মানসিক চাপ সৃষ্টি হতে পারে। স্ট্রেস বা মানসিক চাপ নানাভাবে আমাদের দেহের উপর বিরূপ প্রভাব ফেলে। তবে, অনেকে স্ট্রেসের নেতিবাচক প্রভাব সম্পর্কে সচেতন নয়, ফলে সময়মতো প্রতিকার বা চিকিৎসা গ্রহণ করেন না।