• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭

শিরোপার স্বপ্নপূরণ টাইগারদের

শিরোপার স্বপ্নপূরণ টাইগারদের

স্পোর্টস ডেস্ক১৮ মে ২০১৯, ০৯:১৩এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

১৯৯৮ সালের ১৭ মে ভারতে কেনিয়াকে হারিয়ে বাংলাদেশ পেয়েছিল ওয়ানডেতে প্রথম জয়ের দেখা। ২১ বছর পর সেই দিনেই ঘুচল বড় আক্ষেপ। শেষ হলো প্রতীক্ষা। সেই অধরা স্বপ্নটা ধরা দিল বাংলাদেশের হাতের মুঠোয়। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথমবার বাংলাদেশের পাশে লেখা হলো, ‘চ্যাম্পিয়ন’। আর এ কাব্যিক জয়ের দুই নায়ক সৌম্য সরকার আর মোসাদ্দেক হোসেন।

বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে বৃষ্টি আইনে ফাইনাল ম্যাচ জয়ের জন্য ২৪ ওভারে ২১০ রানের টার্গেট পায় বাংলাদেশ। ওপেনার সৌম্য সরকারের ৬৬ ও মিডল-অর্ডার ব্যাটসম্যান মোসাদ্দেকের অপরাজিত ৫২ রানের সুবাদে ২২ দশমিক ৫ ওভারে ২১৩ রান তুলে ফাইনাল ম্যাচ জিতে নেয় টাইগাররা।

ওপেনার সৌম্য ৯টি চার ও ৩টি ছক্কা এবং মোসাদ্দেক ২টি চার ও ৫টি ছক্কা মারেন।

ডাবলিনের মালাহাইডে শুক্রবার শুরুতে ব্যাটিংয়ে নেমে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২০.১ ওভারে ১৩১ রান করার পর বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হয়। সোয়া পাঁচ ঘণ্টা রোদ-মেঘ-বৃষ্টির লুকোচুরির পর খেলা শুরু হলে ম্যাচ নেমে আসে ২৪ ওভারে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ তোলে ১ উইকেটে ১৫২ রান। ডাকওয়ার্থ-লুইসে বাংলাদেশের লক্ষ্য দাঁড়ায় ২১০। সৌম্য-মোসাদ্দেকরা জয় এনে দিয়েছেন ৭ বল বাকি থাকতে।

বৃষ্টির আগ পর্যন্ত ম্যাচ ছিল পুরোটাই ওয়েস্ট ইন্ডিজময়। শেই হোপ ও সুনিল আমব্রিসের দুর্দান্ত জুটিতে শুরুটা ছিল তাদের দাপুটে।

টানা তিন ম্যাচ হারের পর এ দিন টস ভাগ্যকে পক্ষে পান মাশরাফি বিন মুর্তজা। মেঘলা আকাশের নীচে, বৃষ্টির শঙ্কায় থাকা ম্যাচে নামেন বোলিংয়ে।

মাশরাফি নিজে ও সাইফ বোলিংয়ের শুরুটা করেছিলেন আঁটসাঁট। প্রথম ৫ ওভারে রান ছিল ১৫। বাউন্ডারি কেবল একটি। ষষ্ঠ ওভারে সাইফের বোলিংয়ে তিনটি বাউন্ডারি মেরে আমব্রিস ঝেরে ফেলেন জড়তা। ছুটতে থাকে দু'জনের রান রথ।

দু'জনের দারুণ ব্যাটিংয়ে যখন বাংলাদেশকে মনে হচ্ছিল অসহায়, তখনই বৃষ্টির হানা। খেলা বন্ধ থাকে লম্বা সময়।

বৃষ্টির পর যখন খেলা শুরু হয়, ডাকওয়ার্থ-লুইসে তখনই বাংলাদেশের লক্ষ্য ছিল বড় কিছুর পথে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ তাই বেছে নেয় নিরাপদ ব্যাটিংয়ের পথ। এর মাঝেও ছক্কা মারতে গিয়ে সীমানায় ধরা পড়েন ৬৪ বলে ৭৪ রান করা হোপ।

খেলা শুরুর পর বাকি ২৩ বলে ক্যারিবিয়ানরা তোলে ২১ রান। ৭৮ বলে ৬৯ রানে অপরাজিত থেকে যান আমব্রিস।

বাংলাদেশের জন্য ম্যাচটি তখন কার্যত টি-টোয়েন্টি। সময়ের ডাক শুনেই খেলার শুরুতেই সৌম্য ছুটতে থাকেন ঝড়ের বেড়ে। আরেক পাশে তামিম ইকবাল ৪ রানে জীবন পেয়ে দিতে থাকেন সঙ্গ।

পাওয়ার প্লের ৫ ওভারে বাংলাদেশ তোলে ৫০ রান। তাতে সৌম্যর অবদান ছিল ২০ বলে ৩৯, তামিম ১০ বলে ১০। শ্যানন গ্যাব্রিয়েলের বলে দুটি বাউন্ডারিতে গা ঝারা দেন তামিমও। কিন্তু টানা তৃতীয় বলে বেরিয়ে এসে মারতে গিয়ে বিলিয়ে আসেন উইকেট। তিনে নামা সাব্বিরকেও ওই ওভারে ফেরান গ্যাব্রিয়েল।

সৌম্যর ব্যাট দলকে এগিয়ে নেয় আরও অনেকটা দূর। যথারীতি শুরু থেকেই দারুণ খেলতে থাকেন মুশফিকুর রহিম। তবে দু'জনই সম্ভাবনাময় ইনিংসকে রূপ দিতে পারেননি পূর্ণতায়। ৪১ বলে ৬৬ করে বিদায় নেন সৌম্য। ২২ বলে ৩৬ করে ফেরেন মুশফিক।

মিঠুনের ১৪ বলে ১৭ রানের ইনিংসও শেষ হয়েছে কাজ শেষ করতে না পারার আক্ষেপে। সেই হতাশা উড়ে গেছে মাহমুদউল্লাহ ও মোসাদ্দেকের ব্যাটে। একপাশে মাহমুদউল্লাহ আগলে রেখেছেন উইকেট। আরেকপাশে ব্যাটিংয়ে দলকে জয়ের পথে নিয়ে গেছেন মোসাদ্দেক।

৩ ওভারে যখন প্রয়োজন ২৭ রান, ফ্যাবিয়ান অ্যালেনের বাঁহাতি স্পিনে মোসাদ্দেক হোসেনের তিন ছক্কা ও ১ চার নিশ্চিত করে দেয় জয়। ২০ বলে ফিফটি ছুঁয়ে মোসাদ্দেক গড়েন বাংলাদেশের দ্রুততম ফিফটির রেকর্ড। মোসাদ্দেকের ব্যক্তিগত এই মাইলফলক রূপ নেয় দলের জয়ের মহাউচ্ছ্বাসে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ২৪ ওভারে ১৫২/১ (হোপ ৭৪, আমব্রিস ৬৯*, ব্রাভো ৩*; মাশরাফি ৬-০-২৮-০, সাইফ ৫-০-২৯-০, মুস্তাফিজ ৫-০-৫০-০, মোসাদ্দেক ২-০-৯-০, মিরাজ ৪-০-২২-১, সাব্বির ২-০-১২-০)।

বাংলাদেশ: ২২.৫ ওভারে ২১৩/৪ (তামিম ১৮, সৌম্য ৬৬, সাব্বির ০, মুশফিকুর ৩৬, মিঠুন ১৭, মাহমুদউল্লাহ ১৯*, মোসাদ্দেক ৫২*; নার্স ৩-০-৩৫-০, হোল্ডার ৪-০-৩১-০, রোচ ৫-০-৫৭-০, গ্যাব্রিয়েল ৩-০-৩০-২, রিফার ৩.৫-০-২৩-২, অ্যালেন ৪-০-৩৭-১)।

ফল: বাংলাদেশ ৫ উইকেটে জয়ী

ম্যান অব দা ম্যাচ: মোসাদ্দেক হোসেন

ম্যান অব দা টুর্নামেন্ট: শেই হোপ

 

টাইমস/জিএস

কাতার প্রবাসীদের সুখবর : রিটার্ণ পারমিট জরিমানা মওকুফ

কাতার প্রবাসীদের সুখবর : রিটার্ণ পারমিট জরিমানা মওকুফ

করোনার কারণে ছুটিতে থাকা অভিবাসী ও প্রবাসী বাংলাদেশিদের রিটার্ন পারমিটের

চট্টগ্রামে বস্তিতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড : দুই লাশ উদ্ধার

চট্টগ্রামে বস্তিতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড : দুই লাশ উদ্ধার

চট্টগ্রাম নগরীর পাহাড়তলী এলাকার ইস্পাহানি গেট সংলগ্ন আজমনগর বস্তিতে অগ্নিকান্ডের

ইন্টার্ণ চিকিৎসক নেতার ওপর হামলা : চমেকে কর্মবিরতি-বিক্ষোভ

ইন্টার্ণ চিকিৎসক নেতার ওপর হামলা : চমেকে কর্মবিরতি-বিক্ষোভ

অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করছেন চট্টগ্রাম মেডিকেলের (চমেক)

জাতীয়

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পুরণে মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করতে চাই -প্রধানমন্ত্রী

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পুরণে মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করতে চাই -প্রধানমন্ত্রী

শেখ হাসিনা বলেন, আমি এ দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করতে চাই। কাজেই আমার যতটুকু সাধ্য, সেইটুকু আমরা করে দিয়ে যাব। যেন তার (বঙ্গবন্ধু) আত্মাটা শান্তি পায় এবং এই রক্ত যেন বৃথা না যায়। তিনি আরও বলেন, যে স্বপ্ন বুকে নিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জীবন দিয়েছেন, সেই স্বপ্নপূরণে সাধ্যের সবটুকু উজাড় করে দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাবো।

জাতীয়

করোনায় দেশে আরও ৩৪ জনের মৃত্যু

করোনায় দেশে আরও ৩৪ জনের মৃত্যু

দেশে করোনায় গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতের মোট সংখ্যা দাড়াল ৩ হাজার ৫৯১ জন।

জাতীয়

বশেমুরবিপ্রবির চুরি যাওয়া ৩৪ কম্পিউটার উদ্ধার, আটক ২

বশেমুরবিপ্রবির চুরি যাওয়া ৩৪ কম্পিউটার উদ্ধার, আটক ২

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি থেকে হারিয়ে যাওয়া ৩৪টি কম্পিউটার উদ্ধার করা হয়েছে। রাজধানীর বনানীর নতুন এয়ারপোর্ট রোডের হোটেল ক্রিস্টাল থেকে এসব কম্পিউটার উদ্ধার করা হয়।

জাতীয়

ঝিনাইদহে পুকুর থেকে দুই ছাত্রের লাশ উদ্ধার

ঝিনাইদহে পুকুর থেকে দুই ছাত্রের লাশ উদ্ধার

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার একটি পুকুর থেকে দুই মাদ্রাসা ছাত্রের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত দুই শিশু হলো- কোটচাঁদপুর উপজলোর বলুহর গ্রামের ঢালীপাড়ার বাহাদুর আলীর ছেলে জাকির হোসেন চঞ্চল (১০) ও কালীগঞ্জ উপজলোর মল্লকিপুর গ্রামের ফোরকান আলীর ছেলে মহসিন আলী (১০)।

জাতীয়

সাভারে মাছের খামারে শত্রুতার বিষ  : সর্বস্বান্ত ৫ ভাই

সাভারে মাছের খামারে শত্রুতার বিষ : সর্বস্বান্ত ৫ ভাই

এ কেমন শত্রুতা! ঢাকার সাভারের আশুলিয়ায় প্রতিহিংসার নগ্ন থাবায় নিঃস্ব হয়ে গেছেন মাছচাষি পাঁচ ভাই। বৃহস্পতিবার দিবাগত মধ্যরাতে আশুলিয়ার জিরাবো এলাকার বেপারীবাড়ির পাঁচ ভাইয়ের ৪০ বিঘা পুকুরে বিষ প্রয়োগ করেছে দুর্বৃত্তরা। এতে অন্তত ১০ টন মাছ মারা গেছে।

ইতিহাস

হিটলারের পরমাণু বিজ্ঞানীদের ধরতে পরিচালিত হয় যে গোপন মিশন

হিটলারের পরমাণু বিজ্ঞানীদের ধরতে পরিচালিত হয় যে গোপন মিশন

১৯৩৮ সালে, জার্মান বিজ্ঞানীরা পারমাণবিক রি-অ্যাকটর তৈরি করতে সক্ষম হয়েছিলেন। ইউরেনিয়ামের মজুদ জোগাড় করে পারমাণবিক অস্ত্র তৈরির জন্য কোয়ান্টাম পদার্থবিদ ওয়ার্নার কার্ল হেইসেনবার্গের নেতৃত্বে গঠন করা হয়েছিল একটি বিশেষ বৈজ্ঞানিক ইউনিট।