• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • রোববার, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

খুলনার ঐতিহাসিক শহীদ হাদিস পার্ক

খুলনার ঐতিহাসিক শহীদ হাদিস পার্ক

সেন্ট্রাল ডেস্ক১২ আগস্ট ২০১৯, ০৯:৪৪এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

বহু আন্দোলন সংগ্রামের সূতিকাগার খুলনার ঐতিহাসিক শহীদ হাদিস পার্ক। দৃষ্টিনন্দন এই পার্কে প্রাতঃভ্রমণ ও সান্ধ্যকালীন ভ্রমণ থেকে শুরু করে রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড চলে।

বিনোদন পিপাসুদের অন্যতম কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে এই পার্কটি। ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলন থেকে শুরু করে খুলনার সকল আন্দোলন-সংগ্রাম আবর্তিত হয়েছে শহীদ হাদিস পার্ককে ঘিরে। এ পার্কেই রয়েছে খুলনার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার।

খুলনা শহরের বাবুখান রোডে বাংলাদেশ ব্যাংকের খুলনা শাখার পশ্চিম পাশে এই পার্কটির অবস্থান। ঐতিহাসিক এই পার্কটি খুলনা শহরের অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি জায়গা। প্রতিদিন শত শত মানুষ এখানে বেড়াতে আসেন। মনোরম পরিবেশে মুক্ত বায়ু বুক ভরে নিতে এবং শরীর ও মন সতেজ করতে এই পার্কটির জুড়ি মেলা ভার। তাই খুলনার জনগণের কাছে সুপরিচিত একটি নাম এই শহীদ হাদিস পার্ক।

১৮৮৪ সালে খুলনা পৌরসভা প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পরে শহরবাসীর বিনোদনের জন্য পৌরসভা কর্তৃপক্ষ ‘খুলনা মিউনিসিপ্যাল পার্ক’ নামে এই পার্ক প্রতিষ্ঠা করে। ১৯২৫ সালের ১৬ জুন এই পার্কে মহাত্মা গান্ধী বক্তব্য রাখেন। তার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা রেখে পার্কের নামকরণ করা হয় গান্ধী পার্ক। ১৯৪৭ সালে দেশ ভাগের পর পার্কের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় জিন্নাহ পার্ক। এর পর আবার নামকরণ হয় খুলনা মিউনিসিপ্যাল পার্ক। পরে  সর্বশেষ ১৯৬৯ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি গণঅভ্যুত্থানের সময় আইয়ুব খান বিরোধী মিছিলে পুলিশ গুলিতে নিহত শহীদ শেখ হাদিসুর রহমান বাবুর নামে নামকরণ করা হয় ‘শহীদ হাদিস পার্ক’।

২০১১ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত ৮ কোটি ৪০ লাখ টাকা ব্যয়ে একটি প্রকল্পের আওতায় ঐতিহাসিক এই হাদিস পার্কের উন্নয়ন করা হয়। জিওবির তহবিল থেকে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের উদ্যোগে এ প্রকল্পের আওতায় পুকুরের পশ্চিম পাড়ে শহীদ মিনারসহ প্লাজা নির্মাণ করা হয়েছে। প্রকল্পের আওতায় পার্কের চারদিকে আরসিসি বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণ, পুকুরের চারপাশে রিটাইনিং আরসিসি ওয়াল ও রেলিং এবং ওয়াকওয়ে নির্মাণ করা হয়। পাবলিক টয়লেট নির্মাণ, ভূমি উন্নয়ন, নগর ভবনের সামনের দিকে পুকুরের মধ্যে ঝর্ণা নির্মাণ করা হয়। এছাড়া চমৎকার বৈদ্যুতিক কাজ এবং প্লানটেশন ও বিউটিফিকেশন সম্পন্ন করা হয়।

শহীদ হাদিস পার্কের উত্তর, দক্ষিণ ও পশ্চিম দিকে তিনটি গেট রয়েছে। পশ্চিমের গেটের সামনের দিকে দৃষ্টিনন্দন শহীদ মিনার। একুশের শহীদদের স্মরণে এখানে খুলনার রাজনৈতিক দল, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন, সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানসহ সর্বস্তরের মানুষ এই শহীদ মিনারে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করে থাকেন। শুধু একুশে ফেব্রুয়ারি নয়, বিভিন্ন ইস্যুতেও শহীদদের উদ্দেশ্য্ব এখানে শ্রদ্ধা জানানো হয়। সরকারি- বেসরকারি পর্যায়ে এই পার্কে নানা অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। পার্কের অভ্যন্তরে স্বচ্ছ পানির বিশাল লেক, লেকের মাঝে মনোমুগ্ধকর পানির ফোয়ারা ও নানা রকমের মাছ রয়েছে। পুকুরের পাড়ে রেলিংয়ে দাঁড়িয়ে দর্শনার্থীরা ঝর্ণা ধারাসহ মাছের উথাল পাথাল দৃশ্য দেখেন। পার্কের উত্তর দিকে একটি কৃত্রিম টিলা রয়েছে। টিলায় উঠে অনেকেই নয়নাভিরাম দৃশ্য দেখেন। পার্কের মধ্যে বসার জন্য কনক্রিটের বেঞ্চ রয়েছে। এখানে হাঁটার রাস্তার পাশেই রয়েছে অপরূপ সুন্দর ফুলের বাগান যা পুরো পার্কের পরিবেশে নিয়ে এসেছে সজিবতা ও বাড়তি সৌন্দর্য। পার্কটিতে রয়েছে এক পর্যবেক্ষণ টাওয়ার। এই টাওয়ারের উপর থেকে এক নজরে খুলনা শহরটি দেখে নেয়া যায়। আর এখানে প্রবেশ একদম ফ্রি।

যাওয়ার উপায়:

খুলনা শহর থেকে রিকশা অথবা ব্যাটারিচালিত অটোরিকশায় চড়ে সহজেই পৌঁছে যেতে পারবেন শহীদ হাদিস পার্কে।

ঢাকা থেকে সরাসরি সড়কপথে খুলনায় যেতে পারবেন। ঢাকা ও খুলনার মধ্যে চলাচলকারী বাসগুলোর মধ্যে রয়েছে- হানিফ এন্টারপ্রাইজ, গ্রিন লাইন, ঈগল পরিবহন ইত্যাদি। ভাড়া শ্রেণিভেদে ৩৫০ থেকে ৬০০ টাকা।

এছাড়া রেলযোগেও খুলনা যাওয়া যায়। এজন্য ঢাকা থেকে সুন্দরবন এক্সপ্রেস ও চিত্রা এক্সপ্রেস নামে দুটি আন্তঃনগর ট্রেন রয়েছে।

 থাকার সুবিধা:

থাকার জন্য খুলনায় রয়েছে বেশ কিছু আবাসিক হোটেল। তাদের মধ্যে কয়েকটি হলো-

সিএসএস রেস্ট হাউজ (০৪১-৭২২৩৫৫)

হোটেল ক্যাসেল সালাম (০৪১-৭৩০৭২৫)

হোটেল রয়্যাল ইন্টারন্যাশনাল (০৪১-৮১৩০৬৭-৯) প্ল্যাটিনাম জুট মিলস লিমিটেড রেস্ট হাউজ (০৪১-৭৬২৩৩৫)

এলজিইডি রেস্ট হাউজ (০৪১৭২৩১৮৩)।

 

টাইমস/এইচইউ/এসআই

আমার মেয়ের হত্যাকাণ্ডের পেছনে কিছু তরুণের হাত রয়েছে: রুম্পার বাবা

আমার মেয়ের হত্যাকাণ্ডের পেছনে কিছু তরুণের হাত রয়েছে: রুম্পার বাবা

তার মেয়ের হত্যাকাণ্ডের পেছনে কিছু তরুণের হাত রয়েছে এবং কয়েকটি

রঙিন পোস্টার দেখিয়ে নেতা হওয়ার দিন শেষ: কাদের

রঙিন পোস্টার দেখিয়ে নেতা হওয়ার দিন শেষ: কাদের

স্লোগান দিয়ে, বিলবোর্ড দিয়ে, রঙিন পোস্টার দেখিয়ে নেতা হওয়ার দিন

শুধু ঝালে নয় গুণেও অনন্য কাঁচা মরিচ

শুধু ঝালে নয় গুণেও অনন্য কাঁচা মরিচ

প্রতিদিন বিভিন্ন খাবারের স্বাদ বাড়াতে কাঁচা মরিচ আমরা কমবেশি খেয়েই

স্বাস্থ্য

প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক ‘চিচিঙ্গা’

প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক ‘চিচিঙ্গা’

আমাদের দেশের অতি পরিচিত ও মজাদার একটি সবজির নাম চিচিঙ্গা। ভাজি, ঝোল, অন্যান্য সবজির সঙ্গে বিভিন্ন ভাবে খাওয়া যায় এই চিচিঙ্গা। দেখতেও খুব সুন্দর। পুষ্টিবিদদের মতে, চিচিঙ্গা শুধু স্বাদের জন্য নয়, পুষ্টিগুণ বিচারে চিচিঙ্গা সত্যিকার অর্থেই এগিয়ে। এতে প্রচুর পুষ্টি উপাদান, ভিটামিন ও খনিজ রয়েছে।

স্বাস্থ্য

জেনে নিন ঘাড় ব্যথার কারণ

জেনে নিন ঘাড় ব্যথার কারণ

আপনি কি প্রায়শই ঘাড় ও কাঁধের অঞ্চল জুড়ে একটি অদ্ভুত ব্যথা অনুভব করেন? এটি একটি সাধারণ অভিজ্ঞতা, অনেকেই এর সঙ্গে পরিচিত। বেশ কিছু কারণে এমনটি ঘটে থাকে। খুব সাধারণ সমস্যা হলেও মাঝে মাঝেই এটি হয়ে ওঠে প্রচণ্ড অস্বস্থির কারণ। ব্যাঘাত ঘটায় আমাদের দৈনন্দিন কাজকর্মে।

জাতীয়

বাংলাদেশকে ১০ কুকুর উপহার দিলো ভারত   

বাংলাদেশকে ১০ কুকুর উপহার দিলো ভারত  

ভারতীয় সেনাবাহিনী শুভেচ্ছা উপহার হিসেবে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ১০টি কুকুর দিয়েছে।

জাতীয়

ওসমানী বিমানবন্দরের বাথরুমে মিলল ২৯ লাখ টাকার সোনা

ওসমানী বিমানবন্দরের বাথরুমে মিলল ২৯ লাখ টাকার সোনা

সিলেটের এমএজি ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের বাথরুমের ডাস্টবিনে পাওয়া গেছে ১২টি সোনার বার। যার ওজন প্রায় এক কেজি ৪০০ গ্রাম।

রাজনীতি

চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আ.লীগের নেতৃত্বে সালাম-আতাউর

চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আ.লীগের নেতৃত্বে সালাম-আতাউর

চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন এমএ সালাম এবং সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন শেখ আতাউর রহমান আতা।

বিনোদন

‘যেকোন পুরস্কার অনেক আনন্দের’

‘যেকোন পুরস্কার অনেক আনন্দের’

জনপ্রিয় মডেল অভিনেত্রী রুনা খান। প্রথমবারের মতো এ অভিনেত্রী জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাচ্ছেন। অভিনয়ের জন্য স্বীকৃতি হিসেবে আর এক দিন পরেই হাতে তুলে নিবেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।