• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

স্বাস্থ্য

উগসর্গহীন রোগী বিপজ্জনক, করোনা ঠেকাতে মাস্কই সেরা

উগসর্গহীন রোগী বিপজ্জনক, করোনা ঠেকাতে মাস্কই সেরা

করোনায় আক্রান্ত হলেও সবার ক্ষেত্রে উপসর্গ প্রকাশ পাচ্ছে না। আর এমন লোকেদের দ্বারাই রোগটি বেশি ছড়িয়েছে। আর একারণেই মাস্ক পরিধান করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) কর্তৃক প্রকাশিত কোভিড-১৯ সংক্রান্ত নতুন নির্দেশনায় এসব কথা বলা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইটে বলা হয়, ‘সিডিসি এবং অন্যদের করা সমীক্ষায় দেখা গেছে, প্রায় ৫০ শতাংশেরও বেশি সংক্রমণ ঘটেছে উপসর্গ না দেখা দেয়া

বাড়িতে করোনা আক্রান্ত রোগী থাকলে কী করবেন?

বাড়িতে করোনা আক্রান্ত রোগী থাকলে কী করবেন?

শীত আসার সাথে সাথে শুরু হয়েছে কোভিড-১৯ এর দ্বিতীয় ঢেউ, আবারও বিশ্বব্যাপী করোনা আক্রান্তের হার বাড়তে শুরু করেছে। এমন পরিস্থিতিতে পরিবারের কেউ রোগটিতে আক্রান্ত হওয়া অসম্ভব কিছু নয়।

করোনা চিকিৎসায় রেমডিসিভির নয় : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

করোনা চিকিৎসায় রেমডিসিভির নয় : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

সম্প্রতি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা তাদের কোভিড-১৯ বিষয়ক নির্দেশমালা হালনাগাদ করেছে। নতুন নিদের্শনা বলা হয়েছে, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের অবস্থা সংকটাপন্ন হলেও কোনো অবস্থাতেই যেন রেমডিসিভির দেয়া না হয়।

হলুদ খেলে কি লাভ হয়?

হলুদ খেলে কি লাভ হয়?

হলুদ আমাদের দৈনন্দিন রান্নার কাজে ব্যবহৃত একটি অতি প্রয়োজনীয় মশলা। প্রায় সব ধরণের তরকারি রান্নার ক্ষেত্রে হলুদ ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এতে কারক্যুমিন নামক এক ধরণের প্রদাহনাশক উপাদান রয়েছে। বলা হয়ে থাকে স্বাস্থ্যের জন্য হলুদ অত্যন্ত উপকারী।

দূষিত বায়ু ও উচ্চ শব্দ বাড়িয়ে দেয় হৃদরোগের ঝুঁকি

দূষিত বায়ু ও উচ্চ শব্দ বাড়িয়ে দেয় হৃদরোগের ঝুঁকি

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য মতে প্রতিবছর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রায় ১৭ লাখ মানুষ মারা যায়। তাই হৃদরোগ বিশ্বব্যাপী মৃত্যুর অন্যতম একটি কারণ হিসেবে বিবেচিত।

অ্যান্টিবায়োটিক শিশুদের অ্যালার্জি ও অ্যাজমা ঝুঁকি বাড়ায়   

অ্যান্টিবায়োটিক শিশুদের অ্যালার্জি ও অ্যাজমা ঝুঁকি বাড়ায়  

দুই বছরের কম বয়সী শিশুদের অ্যান্টিবায়োটিক দেয়া হলে শিশুরা পরবর্তীকালে অ্যালার্জি ও অ্যাজমার মতো গুরুতর রোগে ভুগতে পারে। চলতি সপ্তাহে মায়ো ক্লিনিক কর্তৃক প্রকাশিত একটি গবেষণাপত্রে এমনটাই বলা হয়েছে।