• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই ২০২০, ১ শ্রাবণ ১৪২৭

স্বাস্থ্য

গর্ভাবস্থায় ভিটামিন-ডি, কমায় প্রিক্যালম্পসিয়ার ঝুঁকি

গর্ভাবস্থায় ভিটামিন-ডি, কমায় প্রিক্যালম্পসিয়ার ঝুঁকি

গর্ভাবস্থার প্রথম ২৬ সপ্তাহের মধ্যে মায়ের শরীরে যদি ভিটামিন ডি-র মাত্রা কম থাকে তবে তিনি ব্যাপক হারে প্রিক্যালম্পসিয়ায় ভুগতে পারেন। ইউনিভার্সিটি অফ পিটসবার্গ গ্র্যাজুয়েট স্কুলের পাবলিক হেলথ স্টাডির গবেষণায় উঠে এসেছে এমনই তথ্য। প্রিক্যালম্পসিয়া বলতে বোঝায় হাইপার টেনশন, উচ্চ রক্তচাপ, মানসিক অবসাদ, মূত্রে প্রোটিনের মাত্রা বেড়ে যাওয়া ইত্যাদি। গবেষকরা তাদের গবেষণায় প্রায় ৭০০ জন গর্ভবতী নারীর রক্তের নমুনা সংরক্ষণ করেছিলেন। রক্তের পরীক্ষা

চশমা ঘোলাটে হওয়ার সমস্যা এড়ানোর কৌশল

চশমা ঘোলাটে হওয়ার সমস্যা এড়ানোর কৌশল

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে মাস্ক ব্যবহার করা অত্যাবশ্যকীয়। কেননা, এই ভাইরাস থেকে বেঁচে থাকার সবচেয়ে কার্যকরী উপায় এটি। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরাও এই পরামর্শই দিচ্ছেন। মাস্ক পরলে বেশিরভাগ মানুষেরই সমস্যা হয় না, কিন্তু যারা চশমা পরেন তারা একটা সমস্যায় পড়েন আর সেটি হল চশমার কাঁচ ঘোলাটে হয়ে যাওয়া। কেননা শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে গেলে চশমায় গিয়ে জমা হয় বাতাস। এতে এক পর্যায়ে চশমা ঘোলাটে হয়ে যায়।

সন্ধ্যা বা রাতের শরীরচর্চা কি ঘুমের ব্যাঘাত ঘটায়?

সন্ধ্যা বা রাতের শরীরচর্চা কি ঘুমের ব্যাঘাত ঘটায়?

নিয়মিত শরীরচর্চার অনেক উপকারিতা রয়েছে, এর মধ্যে অন্যতম একটি হলো- এই অভ্যাসটি ঘুমের সমস্যা দূর করে। এর ফলে দেহের শিথিলকরণ প্রক্রিয়া উদ্দীপ্ত হয়, উদ্বেগ হ্রাস পায় এবং দেহের অন্যান্য প্রক্রিয়া স্বাভাবিক থাকে। এছাড়াও শরীরচর্চা আমাদের দেহের তাপমাত্রা বৃদ্ধি করে, পরবর্তী সময় যখন এই তাপমাত্রা কমতে শুরু করে তখন আমাদের ঘুম পায়।

জুস পানে দূর করুন মাইগ্রেনের অসহ্য যন্ত্রণা

জুস পানে দূর করুন মাইগ্রেনের অসহ্য যন্ত্রণা

মাইগ্রেনের মাথাব্যথা একবার শুরু হলে সহজে যেতেই চায় না। যন্ত্রণার তীব্রতা অনুযায়ী এর স্থায়িত্ব ২/৩ দিন পর্যন্ত হতে পারে। এর ভয়াবহ মাথাব্যথার সাথে যারা পরিচিত, তারাই জানেন এটি কি ধরণের যন্ত্রণাদায়ক। সাধারণ পেইনকিলারে এই মাইগ্রেনের মাথাব্যথা দূর করা সম্ভব হয়ে উঠে না। এই মাইগ্রেনের ব্যথা দূর করার রয়েছে দারুণ কিছু উপায়। সাধারণ ২ টি জুস পানের ফলে নিমেষে দূর হয়ে যাবে মাইগ্রেনের মারাত্মক মাথাব্যথা।

জিনের গঠন বদলে ক্রমেই ভয়ংকর হচ্ছে করোনা

জিনের গঠন বদলে ক্রমেই ভয়ংকর হচ্ছে করোনা

ভাইরোলজিস্টরা আগেই সতর্কবার্তা দিয়েছিলেন যে, জিনের গঠন বদলে চলেছে করোনাভাইরাস। সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে, করোনার সংক্রামক রাইবো নিউক্লিক অ্যাসিড (আরএনএ) সার্স-কভ-২ ভাইরাল স্ট্রেনের বিন্যাসে এমন একটা বদল দেখা যাচ্ছে যে, যার ফলে এই ভাইরাস আরও সংক্রামক হয়ে উঠছে। যুক্তরাষ্ট্রের লস আলামস ন্যাশনাল ল্যাবরেটরির ভাইরোলজিস্টদের গবেষণা রিপোর্টটি ‘সেল’ সায়েন্স জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে।

করোনার মৃদু লক্ষণেও মস্তিষ্কের মারাত্মক ক্ষতি!

করোনার মৃদু লক্ষণেও মস্তিষ্কের মারাত্মক ক্ষতি!

বিশ্বজুড়ে উদ্বেগ তৈরি করেছে করোনাভাইরাস। এই ভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তির মস্তিষ্ক আর কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রে মারাত্মক প্রভাব ফেলছে, যা রোগীদের সাইকোসিস, পক্ষাঘাত ও স্ট্রোকের কারণ হতে পারে। অনেক ক্ষেত্রে এই সমস্যাগুলো ধরা পড়ে শেষ পর্যায়ে। করোনাভাইরাস মানুষের ফুসফুস, শ্বাসনালী থেকে শুরু করে শরীরের অন্যান্য অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের ক্ষতি করে, এমন প্রমাণ আগেই পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। যার মধ্যে হৃদযন্ত্র, স্নায়ু, কিডনি ও ত্বকও আছে।