• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শনিবার, ২৫ মে ২০১৯, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

স্বাস্থ্য

শতভাগ খাঁটি ফলের জুসেও হতে পারে মৃত্যু!

শতভাগ খাঁটি ফলের জুসেও হতে পারে মৃত্যু!

বৈজ্ঞানিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার পরই আপনি নিশ্চিত হতে পেরেছেন যে, চিনিযুক্ত কোমল পানীয় মৃত্যু ঝুঁকি বাড়ায়। কিন্তু এখন যে তথ্যটি দিব তা দেখলে হয়তো চোখ কপালে উঠবে আপনার। শতভাগ খাঁটি ফলের জুসও হতে পারে মৃত্যুর কারন। তবে হ্যাঁ, এটা যদি আপনি অতিরিক্ত পরিমাণে পান করেন তবেই।   সম্প্রতি জ্যামা নেটওয়ার্ক ওপেনর জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণা প্রতিবেদন বলছে-ফলের রস অত্যধিক পরিমাণে পান করার ফলে...

নিজের লিভার উপহার দিয়ে ছেলে বললেন এটি ‘মা দিবসের উপহার’

নিজের লিভার উপহার দিয়ে ছেলে বললেন এটি ‘মা দিবসের উপহার’

হেপাটাইটিসে আক্রান্ত মাকে নিজের লিভারের একটি অংশ উপহার দিলেন ছেলে। এটি তার জন্য ‘মা’ দিবসের উপহার। তবে প্রথমে ছেলের এমন উপহার নিতে চাননি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সল্টলেকের এ বাসিন্দা।   যদিও ডাক্তাররা বলছেন, কয়েক মাস পর লিভার স্বাভাবিকভাবেই ৯০ ভাগ বৃদ্ধি পায়। সেক্ষেত্রে মা ও ছেলের লিভার ফের নবজাতকের ন্যায় সচল ও সক্রিয় হবে। 

থ্যালাসেমিয়ার বিপদ থেকে বাঁচতে, জানতে হবে সবার আগে

থ্যালাসেমিয়ার বিপদ থেকে বাঁচতে, জানতে হবে সবার আগে

থ্যালাসেমিয়া একটি বংশগত রক্তরোগ। এই রোগের বংশগতি প্রচ্ছন্ন ধরনের। কারণ এ রোগ হতে হলে দুটি জীনই ত্রুটিপূর্ণ হতে হয়। এখানে উল্লেখ্য যে, আমাদের সকল জিনের দুইটি করে কপি থাকে। এখন কারোর যদি একটি জীন ত্রুটিপূর্ণ হয় তাহলে কি হবে? একটি জীন ত্রুটিপূর্ণ হলে সে ব্যক্তিকে বলে বাহক। এক্ষেত্রে বিড়ম্বনা হলো, একজন থ্যালাসেমিয়ার বাহক অধিকাংশ ক্ষেত্রেই সম্পূর্ণ সুস্থ মানুষের মতো জীবন যাপন করতে পারেন। তার মানে আমি, আপনি বা যেকোনো সুস্থ মানুষই বাহক হতে পারি। আর দুজন বাহক এর মধ্যে বিয়ে হলেই আমাদের অনাগত সন্তানের থ্যালাসেমিয়া হবার সম্ভাবনা ২৫ শতাংশ, বাহক হবার সম্ভাবনা ৫০ শতাংশ এবং সুস্থ হবার সম্ভাবনা ২৫ শতাংশ। এ কারণেই আমরা বাহক কিনা তা জেনে নেয়া জরুরি।

আর্সেনিকমুক্ত পানি পানে মিলবে হৃদরোগ থেকে মুক্তি

আর্সেনিকমুক্ত পানি পানে মিলবে হৃদরোগ থেকে মুক্তি

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, ভূ-গর্ভস্থ পানির সঙ্গে আসা আর্সেনিক বিশ্বব্যাপী জনস্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক হুমকি। এটি বাতাস এবং মাটিতেও পাওয়া যাচ্ছে। এটি আর্সেনিকযুক্ত পাথর ও খনিজ পদার্থের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ছে।

ইফতারে খেজুর খান, সবল থাকুন

ইফতারে খেজুর খান, সবল থাকুন

খেজুরের পুষ্টি উপাদান সম্পর্কে বলা হয় চারটি বা ৩০ গ্রাম পরিমাণ খেজুরে আছে ৯০ ক্যালোরি, এক গ্রাম প্রোটিন, ১৩ মি.লি. গ্রাম ক্যালসিয়াম, ২.৮ গ্রাম ফাইবার এবং আরও অন্যান্য পুষ্টি উপাদান।খেজুর শক্তির একটি ভালো উৎস। তাই খেজুর খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই শরীরের ক্লান্তিভাব দূর হয়।

গরমে খান লেবুর শরবত

গরমে খান লেবুর শরবত

স্বাস্থ্য বিজ্ঞানীদের তথ্য বলছে- মাত্র একটি মাঝারি আকৃতির লেবু থেকে চল্লিশ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি বা এসকরবিক এসিড পাওয়া যা একজন মানুষের দৈনিক চাহিদা পূরণের জন্য যথেষ্ট। ভিটামিন ‘সি’ দেহের রোগ প্রতিরোধকারী কোষগুলোর কার্যক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়।