• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৯ ফাল্গুন ১৪২৬
১৮৯৫ সালে নিজের নামে পুরস্কার ঘোষণা দেন আলফ্রেড নোবেল

১৮৯৫ সালে নিজের নামে পুরস্কার ঘোষণা দেন আলফ্রেড নোবেল

ধ্বংসাত্মক ডিনামাইনের আবিষ্কারক আলফ্রেড নোবেল ঊনবিংশ শতাব্দীতে বিশ্বের কাছে নন্দিত হলেও অন্যদের মহান আবিষ্কারকে স্বীকৃতি প্রদানে তার অবদান বিংশ শতাব্দীতে তাকে বিখ্যাত করে তোলে। তার ইচ্ছানুসারে ‘নোবেল পুরস্কার’ প্রবর্তন করা হয়। যাকে বিশ্বের সবচেয়ে সম্মানজনক পুরস্কার হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

বিস্তারিত
দেশে বাণিজ্যিকভাবে বিমান চলাচল শুরু ১৯৪৭ সালে

দেশে বাণিজ্যিকভাবে বিমান চলাচল শুরু ১৯৪৭ সালে

বাংলার প্রথম বিমান চলাচল শুরু হয় সামরিক কাজে। বৃটিশ রয়েল এয়ার ফোর্সের প্রয়োজনে ঢাকার তেজগাঁয়ে প্রথম বিমানবন্দর প্রতিষ্ঠিত হয়েছিলো। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ঠাকুরগাঁ, কুমিল্লা, সিলেট, চট্টগ্রামে কয়েকটি বিমানবন্দর যুদ্ধের প্রয়োজনে তৈরি করা হয়েছিলো। তবে বেসামরিক বা বাণিজ্যিক কাজে বিমান পরিবহন ব্যবস্থা ইংরেজ সরকার এ দেশে নির্মাণ করেনি।

বিস্তারিত
রেডিও প্রেরণ কৌশল উদ্ভাবনের ভিত্তি গড়েছিলেন বিজ্ঞানী হার্টজ

রেডিও প্রেরণ কৌশল উদ্ভাবনের ভিত্তি গড়েছিলেন বিজ্ঞানী হার্টজ

রেডিও হল তার ব্যতীত যোগাযোগের একটি শক্তিশালী মাধ্যম। এতে তড়িৎ চৌম্বকীয় তরঙ্গ ব্যবহার করে তথ্য প্রেরণ বা গ্রহণ করা হয়। যদিও আমরা জানি যে, এ রেডিওর আবিষ্কারক ইতালীয় ইঞ্জিনিয়ার গুগনিমো মার্কনি। আসলে রেডিও আবিষ্কারের ইতিহাস আরও পুরনো।

বিস্তারিত
প্রথম রাইফেল তৈরি করেছিলেন অগাস্টিন কোস্টার

প্রথম রাইফেল তৈরি করেছিলেন অগাস্টিন কোস্টার

ঊনবিংশ শতাব্দীতে ব্রিটিশ সৈন্যরা গাদা বন্দুক নিয়ে বেশ সমস্যায় পড়েছিলো। দেখা যাচ্ছিল যে, এর ফলাফল প্রাপ্তির মাত্রাটা অত্যধিক কম। উদাহরণস্বরূপ- ‘ক্যাফির যুদ্ধ’। ওই যুদ্ধে ব্রিটিশ সেনাবাহিনী ৮০ হাজার কার্তুজ ব্যবহার করে মারতে পেরেছিল কেবল ২৫ আফ্রিকান সৈন্য। কারণ, গাদা বন্দুকের গুলি টার্গেটে যথাযথভাবে আঘাত হানতে পারতো না, গতিমুখ বিচ্যুতের সম্ভাবনা থাকতো বেশি।

বিস্তারিত
প্রথম সাবমেরিন তৈরি করেন বিজ্ঞানী ড্রিবেল

প্রথম সাবমেরিন তৈরি করেন বিজ্ঞানী ড্রিবেল

১৫৭০ সালে ইংরেজ গণিতবিদ উইলিয়াম বুয়ার্ন এমন একটি জাহাজের নকশা তৈরি করেন, যা পানির নিচের একবারে তলা পর্যন্ত যেতে এবং প্রয়োজনে পানির উপরে উঠতে সক্ষম। তিনি নকশায় জাহাজের চলাচল নিয়ন্ত্রণের জন্য সংকোচ প্রসারণক্ষম বায়ু কক্ষ (Air Chember) সংযোজিত করেন, যাতে করে সাবমেরিনটি ডুবতে এবং প্রয়োজনে ভেসে উঠতে পারে।

বিস্তারিত
খেলায় পোষা কুকুর দিয়েই প্রথম হুইসেল দেয়া হতো

খেলায় পোষা কুকুর দিয়েই প্রথম হুইসেল দেয়া হতো

রেফারী দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তি হিসেবে নির্দিষ্ট খেলা পরিচালনা করেন। পাশাপাশি তিনি নিরপেক্ষতা বজায় রেখে সব ধরণের সিদ্ধান্ত দ্রুত প্রয়োগের মাধ্যমে সুষ্ঠুভাবে সংশ্লিষ্ট খেলা পরিচালনা করে থাকেন। পরিচালক হিসেবে তিনি প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক খেলায় দু’পক্ষের খেলোয়াড়দের ভুল-ত্রুটি নির্দেশ করেন।

বিস্তারিত
নবাব পরিবারের উদ্যোগে গড়ে উঠে বাংলার প্রথম চিড়িয়াখানা

নবাব পরিবারের উদ্যোগে গড়ে উঠে বাংলার প্রথম চিড়িয়াখানা

উনবিংশ শতাব্দীর আগে বাংলায় আধুনিক কোনো চিড়িয়াখানা গড়ে উঠেনি। তবে খ্রিস্টীয় ১৫ শতকে বাংলায় বিভিন্ন স্থানে যে চিড়িয়াখানা ছিলো, তার প্রমাণ পাওয়া যায় সিরাতুল মুতাখখেরিন নামের প্রাচীন ফরাসী গ্রন্থে। এই গ্রন্থের বিবরণ অনুযায়ী বাংলার নবাব মির কাশিম (রাজত্বকাল ১৭৬০-১৭৬৪) বাংলার বিভিন্ন জেলায় অবস্থিত পশুপাখির সংগ্রহশালার জন্য সরকারি বরাদ্দ বাতিল করেছিলেন।

বিস্তারিত
বাংলা ভাষার প্রথম অভিনীত নাটক ‘অভিজ্ঞান শকুন্তলা’

বাংলা ভাষার প্রথম অভিনীত নাটক ‘অভিজ্ঞান শকুন্তলা’

বাংলা নাটকের বয়স খুব বেশি নয়। ১৮৫৫ সালে প্রকাশিত বৈদ্য নন্দন কুমারের অভিজ্ঞান শকুন্তলা বাংলা ভাষার প্রথম অভিনীত নাটক হিসেবে গণ্য করা হয়। নাটকটি ১৮৫৭ সালের ৩০ জুন প্রথম অভিনীত হয় শিমলার আশুতোষ দেবের বাড়িতে।

বিস্তারিত
স্বাধীন বাংলার প্রথম ছায়াছবি ‘ওরা ১১ জন’

স্বাধীন বাংলার প্রথম ছায়াছবি ‘ওরা ১১ জন’

‘ওরা ১১ জন’ ১৯৭২ সালের ১৩ আগস্ট মুক্তিপ্রাপ্ত ছায়াছবি। এটি ১৯৭১ এ মহান মুক্তিযুদ্ধের পটভূমিতে নির্মিত, স্বাধীন বাংলার প্রথম ছায়াছবি। পূর্ণদৈর্ঘ্য এই ছায়াছবিটি পরিচালনা করেছেন বিখ্যাত পরিচালক চাষী নজরুল ইসলাম। প্রযোজনায় ছিলেন মাসুদ পারভেজ (সোহেল রানা)। সিনেমার নামের মতোই এর শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত নানা দৃশ্যে নানা রূপকের ব্যবহার কুশলতার সঙ্গেই ঘটিয়েছেন পরিচালক।

বিস্তারিত
উরুগুয়ে অনুষ্ঠিত হয় প্রথম বিশ্বকাপ ফুটবল আসর

উরুগুয়ে অনুষ্ঠিত হয় প্রথম বিশ্বকাপ ফুটবল আসর

ফুটবলের সবচেয়ে বড় আসর বিশ্বকাপ ফুটবল প্রতিযোগিতার প্রস্তাব করা হয় ১৯২৮ সালে প্যারিসে জুলে রিমে (Jules Rimet) এবং হেনরী ডেলৌনে (Henri Delaunay)'র ডাকা মিটিংয়ে। ফরাসীরা তখন ফুটবল দুনিয়ায় এমন একটা জায়গায় এসে পড়েছিলো যে, অন্যান্য দেশগুলোর উপর ফুটবল শক্তিতে ইংল্যান্ডের প্রভাব নিয়ে ইংল্যান্ড যে ঔদ্ধত্য প্রকাশ করতো তা ক্ষুণ্ণ হয়ে যায়।

বিস্তারিত