• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বুধবার, ২৭ মে ২০২০, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

বেশিক্ষণ স্ক্রিনে তাকিয়ে থাকা শিশুর মস্তিষ্কের জন্য ক্ষতিকর

বেশিক্ষণ স্ক্রিনে তাকিয়ে থাকা শিশুর মস্তিষ্কের জন্য ক্ষতিকর

ফিচার ডেস্ক০৯ অক্টোবর ২০১৯, ১১:০৮এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

সময় বদলে গেছে, মানুষের হাতে হাতে পৌঁছে গেছে স্মার্টফোন, ল্যাপটপ কিংবা ট্যাব। বিনোদনের চিরাচরিত মাধ্যমগুলো থেকে মুখ ফিরিয়ে মানুষ এখন তার অবসরে মুঠোফোনে মুখ গুজেই বিনোদন খুঁজে নিতে চায়। এমনকি ভালোবেসে আমাদের শিশুদের হাতেও আমরা তুলে দিচ্ছি স্মার্টফোনের মতো নানা অত্যাধুনিক ডিভাইস।

গেইম খেলা, ভিডিও দেখা বা বিভিন্ন মজার মজার শিক্ষামূলক অ্যাপস ঘেঁটে ডিজিটাল স্ক্রিনের সামনে শিশুরা কাটিয়ে দিচ্ছে ঘণ্টার পর ঘণ্টা। তবে নতুন গবেষণা বলছে, দুই ঘণ্টার বেশি ডিজিটাল স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে থাকলে শিশুর মস্তিষ্কের তার বিরূপ প্রভাব পরে।

গবেষণায় দেখা গেছে, যেসব শিশু দৈনিক দুই ঘণ্টার কম ডিজিটাল স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে সময় কাটায় তারা মানসিক ও একাডেমিক টেস্টে ভালো ফল করেছে। আপনি যদি আপনার শিশুর মানসিক সক্ষমতা ও দক্ষতা বাড়াতে চান, তাহলে তাদের ভালো অভ্যাস গড়ে তুলতে সাহায্য করুন।

গবেষণার স্বার্থে যুক্তরাষ্ট্রের ৮ থেকে ১১ বছর বয়সী ৪,৫০০ শিশুর ওপর জরিপ চালানো হয়। গবেষকরা দেখতে পেয়েছেন যে, অংশগ্রহণকারী শিশুদের মধ্যে ৩৭ শতাংশ প্রতিদিন দুই ঘণ্টা বা তার থেকে কম সময় স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে কাটায়, ৫১ শতাংশ শিশু ৯ থেকে ১১ ঘণ্টা নিরবিচ্ছিন্নভাবে ঘুমায় এবং ১৮ শতাংশ প্রতিদিন অন্ততপক্ষে ৬০ মিনিট শরীরচর্চা করে। মাত্র ৫ শতাংশ শিশু উপরের তিনটি শর্তই পূরণ করতে সক্ষম হয়েছে। তবে সব থেকে আশঙ্কার কথা হলো ২৯ শতাংশ শিশু তিনটি শর্ত পূরণেই অক্ষম।

গবেষকরা জানতে পেরেছেন, যেসব শিশু উপরের তিনটি শর্তই মেনে চলছে তারা অন্যদের তুলনায় উচ্চতর বিশ্ব চেতনার অধিকারী। এখানে বিশ্ব চেতনার সঙ্গে স্মরণশক্তি, মনোযোগ, ভাবনা প্রক্রিয়ার গতি এবং ভাষাগত দক্ষতা সম্পৃক্ত।

এ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের চিলড্রেন হসপিটাল অব ইস্টার্ন অন্টারিও রিসার্চ ইন্সটিটিউটের গবেষক জেন ফিলিপ চাপুট বলেন, “এই তিনিটি শর্তের যেকোনো একটিতে অনিয়ম হলে তার প্রভাব বাকী দু’টির ওপর পড়ে। তাই এদেরকে আলাদা করে দেখার সুযোগ নেই। একত্রে দেখতে হবে।” তথ্যসূত্র: হেলথলাইন.কম

 

টাইমস/এনজে/জিএস

করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্য, আক্রান্ত ১৫৪১

করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্য, আক্রান্ত ১৫৪১

দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ৮১তম দিনে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে আরও

খালেদা জিয়া এখনও হোম কোয়ারেন্টিনে আছেন -ফখরুল

খালেদা জিয়া এখনও হোম কোয়ারেন্টিনে আছেন -ফখরুল

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া এখনও হোম কোয়ারেন্টিনে আছেন বলে জানিয়েছেন

নারায়ণগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দুই সন্তানসহ মায়ের মৃত্যু

নারায়ণগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দুই সন্তানসহ মায়ের মৃত্যু

ঝড়ের আঘাতে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে টিনের ঘরের ওপর পড়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে

যা কিছু প্রথম

তালাচাবি আবিষ্কারের ইতিহাস

তালাচাবি আবিষ্কারের ইতিহাস

যবে থেকে মানুষের কিছু জিনিসপত্র সম্বল হল, তবে থেকেই সেগুলোকে আগলে রাখার প্রবণতা এসে গেল। প্রথম প্রথম তালাচাবি বলতে শুধু দড়ি বা অন্য কিছু দিয়ে বেঁধে রাখা হতো। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সত্যিকারের তালাচাবি ব্যবহার করতে শুরু করল মানুষ। সেগুলো কাঠ বা ধাতুর তৈরি। ঠিক কে বা কোনো সভ্যতায়ে প্রথম তালাচাবি ব্যবহার হয়েছিল সেটা সঠিকভাবে জানা যায়নি।

জাতীয়

বজ্রপাত থেকে রক্ষার উপায়

বজ্রপাত থেকে রক্ষার উপায়

তীব্র গরমে স্বস্তি এনে দেয় বৃষ্টি। কিন্তু এই স্বস্তির বৃষ্টির সঙ্গে আসা বজ্রপাত বিপর্যয়ের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। আমাদের দেশে মার্চ থেকে অক্টোবর পর্যন্ত বজ্রপাত হয়ে থাকে। এর মধ্যে এপ্রিল ও মে মাসে বজ্রপাত তুলনামূলকভাবে বেশি হয়। আর এই বজ্রপাতে প্রায়শই প্রাণহানির শিকার হচ্ছেন দেশের মানুষ।

জাতীয়

উপকূলে ঝড়ো হাওয়া, সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত

উপকূলে ঝড়ো হাওয়া, সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত

ঈদের দিন বিকাল থেকেই দেশের উপকূলীয় এলাকা ও সমুদ্রবন্দরসমূহের ওপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাচ্ছে। তাই দেশের সকল সমুদ্রবন্দরকে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

জাতীয়

করোনা থাকলে খুলবে না শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, দীর্ঘ হচ্ছে ছুটি

করোনা থাকলে খুলবে না শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, দীর্ঘ হচ্ছে ছুটি

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ধীরে ধীরে বাড়ছে। বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। এ অবস্থায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার চিন্তা-ভাবনা আপাতত বাদ দেয়া

আন্তর্জাতিক

করোনাভাইরাসের বর্তমান ‘হটস্পট’ ল্যাতিন আমেরিকা

করোনাভাইরাসের বর্তমান ‘হটস্পট’ ল্যাতিন আমেরিকা

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের বর্তমান কেন্দ্রস্থল বা হটস্পট ল্যাতিন আমেরিকা। সম্প্রতি প্যান আমেরিকান হেলথ অর্গানাইজেশনের (পিএএইচও) পরিচালক ডা. কারিসা ইতিয়েন এ তথ্য জানিয়েছেন।

বিনোদন

লকডাউনে কাজ নেই, নিজের প্রাণটাই দিয়ে দিলেন অভিনেত্রী!

লকডাউনে কাজ নেই, নিজের প্রাণটাই দিয়ে দিলেন অভিনেত্রী!

করোনাভাইরাসে লকডাউনের কারণে কোন কাজ নেই। একারণে হতাশায় পড়ে আত্মহত্যা করেছেন এক অভিনেত্রী।