• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • সোমবার, ১০ আগস্ট ২০২০, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭

শিশুর রোগ প্রতিরোধে টিকা

শিশুর রোগ প্রতিরোধে টিকা

ফিচার ডেস্ক২৫ জুলাই ২০২০, ০৪:১৭পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

এমন একটা সময় ছিল যখন যক্ষ্মা, হাম, ধনুষ্টঙ্কারের মতো প্রাণঘাতী রোগগুলো ছিল অসংখ্য শিশুর মৃত্যুর কারণ। বাবা-মায়ের প্রধান দুশ্চিন্তা ছিল যে তাদের শিশুটি বেঁচে থাকবে তো? কিন্তু বিজ্ঞানের অগ্রগতি এই দুশ্চিন্তার অবসান ঘটিয়েছে। আজ একটি টিকাই এই ভয়াবহ রোগকে চিরতরে দূরে ঠেলে দিতে পারে। আমাদের দেশের প্রসূতি ও নবজাতকের স্বাস্থ্য সেবা বিশ্বের অনেক দেশের কাছেই রোল মডেল। শিশুর জন্মের ১ বছরের মধ্যে ৭টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ টিকা শিশুকে দিতে হবে। আমাদের দেশে সরকারি ব্যবস্থাপনায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অধীন সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচির (ইপিআই) মাধ্যমে বিনামূল্যে এই সকল টিকা দেয়া হয়।

ইপিআই কার্যক্রমের মাধ্যমে টিকা দিয়ে যে আটটি রোগ প্রতিরোধ করা যায় সেগুলো হলো- ধনুষ্টঙ্কার, ডিপথেরিয়া, হুপিংকাশি, পোলিও, হাম, যক্ষ্মা, হেপাটাইটিস-বি ও হেমোফাইলাস ইনফ্লুয়েঞ্জা। বর্তমানে আরও দুটি টিকা যুক্ত হয়েছে। সেগুলো হলো- নিউমোকক্কাল-জনিত নিউমোনিয়া ও রুবেলা টিকা। এই সব কটি রোগই সংক্রামক এবং বাংলাদেশে বিদ্যমান। এক বছরের কম বয়সের শিশুদের এগুলো অত্যন্ত মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে ফেলে। এই সবকটি রোগই টিকাদানের মাধ্যমে প্রতিরোধ করা সম্ভব।

তবে কখন কোন টিকা, একসঙ্গে এতগুলো টিকা দেওয়া ঠিক কি না, শিশু অসুস্থ থাকা অবস্থায় টিকা দেয়া যায় কি না, কোনো কারণে তারিখ পেরিয়ে গেলে কী করতে হবে এসব বিষয় নিয়ে বাবা-মা ও পরিবারের সদস্যদের ভাবনার অন্ত নেই।

শিশুর টিকা কখন দেবে

সাধারণত একটি দেয়ার মাঝে ২৮ দিনের ব্যবধান থাকতে হয়। শিশুর জন্মের পর থেকে ১৪ দিনের মধ্যে শিশুকে বিসিজি এবং পোলিও টিকার প্রথম ডোজ দিতে হয়। দেড় মাস বয়স থেকে ডিপিটি, পোলিও এবং হেপাটাইটিস বি এর টিকা শুরু করতে হবে। ৪ থেকে ৬ সপ্তাহ পর পর ৩ বার এই টিকা দিতে হবে। পোলিও টিকা মুখে খাওয়ানো হয়। টিকা খাওয়ানোর আধা ঘণ্টা পর্যন্ত মুখে কোনো খাবার দেয়া উচিত নয়। এই সময়ের মধ্যে কোনো খাবার দিলে পোলিও টিকা ঠিকমতো কাজ করে না। যেহেতু বিসিজি টিকার দাগ সারাজীবন থেকে যায় সেজন্য অনেক মায়েরা চান ঊরুতে টিকা দিতে, বিশেষ করে শিশু যদি মেয়ে হয়। বিসিজি টিকা দিতে হয় বাম বাহুতে এবং টিকা দেয়ার স্থানে ৭ দিন তেল, সাবান বা লোশন লাগাবেন না। কিন্তু গোসল করা যাবে।

বিসিজি টিকা দেয়ার ৩ মাসের মধ্যে যদি কোনো ঘা বা দাগ না হয় তাহলে বুঝতে হবে টিকা কাজ করেনি। এমন হলে আবার টিকা নিতে হবে। ডিপিটি টিকা দিতে হয় ঊরুতে। প্রথমটি বামে এবং দ্বিতীয়টি ডানে, তৃতীয়টি আবার বাম ঊরুতে। টিকা দেবার পরে ১-২ দিন সামান্য জ্বর হতে পারে বা শিশু ব্যথায় কান্নাকাটি করতে পারে। এরকম হলে শিশুকে প্যারাসিটামল ড্রপ ১০-১২ ফোঁটা দিনে ৩ বার করে দেয়া যেতে পারে। ইনজেকশনের স্থানে সামান্য লাল হতে পারে বা ফুলে যেতে পারে। সেখানে স্যাঁক দেয়া যেতে পারে। যদি ফোঁড়া হয়ে যায় তাহলে ডাক্তারকে জানান। কোনো কারণে যদি দেড় মাসে প্রথম টিকা দিয়ে দ্বিতীয় বা তৃতীয় টিকাটি না দিতে পারেন তাহলে আবার নতুন করে টিকা শুরু করার প্রয়োজন নেই। যখন সম্ভব তখনই পরবর্তী টিকা দিতে হবে। তবে অবশ্যই এক বছরের মধ্যে। ৯ মাস পুরো হলে হামের টিকা শেষ করতে হবে।

সময়মতো টিকা না দিলে কী হয়?

সময়সূচী অনুযায়ী সব টিকা নিলে শিশু ওপরে লেখা রোগগুলো থেকে রক্ষা পাবে। সময়মতো টিকা না নিলে মারাত্মক সংক্রামক রোগগুলোর বিরুদ্ধে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি না-ও হতে পারে। এতে শিশুর স্বাভাবিক বৃদ্ধি ও মানসিক বিকাশ বাধাগ্রস্ত হয়। এমনকি অনেক সময় মৃত্যুর ঝুঁকি তৈরি হতে পারে।

টিকা নেয়ার ব্যবধান কত দিনের?

একই টিকার দুটি ডোজের মধ্যে কমপক্ষে ২৮ দিনের বিরতি থাকা উচিত। ২৮ দিনের আগেই একই টিকার ২য় ডোজ গ্রহণ করলেও তা প্রথম ডোজ হিসেবেই গণ্য হবে। একই দিনে একাধিক টিকা দেওয়াতে কোনো সমস্যা নেই। কোনো কারণে তারিখ পার হয়ে গেলে পোলিও, ডিপিটি, হেপাটাইটিস বি তারিখের অনেক পরে এমনকি এক বছর পরে দিতেও সমস্যা নেই। পোলিও টিকা মুখে খেতে হয় বলে ওই সময়ে ডায়রিয়া থাকলে শিডিউলের ডোজ খাওয়ানোর পরও ২৮ দিন বিরতিতে একটি অতিরিক্ত ডোজ খাওয়ানো হয়।

কখন টিকা দেয়া যাবে না?

ছোটখাটো অসুস্থতা যেমন জ্বর, সর্দি-কাশি, বমি, ডায়রিয়া ইত্যাদি কারণে টিকা নিতে কোনো বাধা নেই। মারাত্মক অসুস্থ শিশু, খিঁচুনি হচ্ছে এমন শিশু এবং রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল যেমন- কেমোথেরাপি গ্রহণকারী বা এইচআইভি আক্রান্ত শিশুকে টিকা না দেওয়াই উচিত। যেসব শিশুর স্নায়ুরোগ আছে, তাদের ডিপিটি না দিয়ে ডিটি দেওয়াই ভালো। শিশুর অসুস্থতার জন্য যদি তাকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয় তাহলেই শুধু টিকা দেয়া যাবে না।

কোথায় টিকা দিবেন?

বাংলাদেশের সর্বত্র টিকাদান কার্যক্রম চলছে সরকারিভাবেই। নিকটস্থ সদর হাসপাতাল, উপজেলা হাসপাতাল, কমিউনিটি ক্লিনিক অথবা ক্ষেত্রবিশেষ কোনো কোনো বেসরকারি ক্লিনিকে খোঁজ নিলেই জেনে নিতে পারবেন কখন কখন সেখানে টিকা দেওয়া হয়। টিকাদান কর্মসূচি-সংবলিত সাইনবোর্ড ও ব্যানারে টিকাদান কর্মীর নাম, মোবাইল নম্বর ও টিকাদানের তারিখ লেখা থাকে। টিকার মেয়াদ ঠিক আছে কি না, সেটা জেনে নেবেন।

 

টাইমস/এসই/এইচইউ

দেশবরেণ্য সুরকার আলাউদ্দিন আলী আর নেই

দেশবরেণ্য সুরকার আলাউদ্দিন আলী আর নেই

দেশবরেণ্য সুরকার ও গীতিকার আলাউদ্দিন আলী মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি

ফেইসবুকে স্ট্যাটাসের পর দুই বন্ধুর একসঙ্গে চিরবিদায়

ফেইসবুকে স্ট্যাটাসের পর দুই বন্ধুর একসঙ্গে চিরবিদায়

আল মোহাইমিন সিয়াম ও সাজিউর রহমান সাজিদ বাল্যবন্ধু। সিয়ামের পড়াশোনা

মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল ক্রিকেটার নাঈমের

মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল ক্রিকেটার নাঈমের

এবার মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মারা গেছেন ক্রিকেটার এমদাদ হোসেন নাঈম। শনিবার

জাতীয়

হাসপাতালে অভিযান নয়, অনুসন্ধান হয়: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

হাসপাতালে অভিযান নয়, অনুসন্ধান হয়: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

হাসপাতালে ‘অভিযান’ শব্দটি নিয়ে আপত্তি তুলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, হাসপাতালে অভিযান হয় না, অভিযান হয় চট্টগ্রামের পাহাড়ি এলাকায়। হাসপাতালে অনিয়ম অনুসন্ধান (ইনকোয়ারি) করা হয়।

জাতীয়

বালু তুলতে গিয়ে সাবমেরিন ক্যাবলের ক্ষতি, বিঘ্নিত ইন্টারনেটে সেবা

বালু তুলতে গিয়ে সাবমেরিন ক্যাবলের ক্ষতি, বিঘ্নিত ইন্টারনেটে সেবা

পটুয়াখালীতে বালু তুলতে গিয়ে দেশের দ্বিতীয় সাবমেরিন কেবল লাইন মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় দেশজুড়ে ইন্টারনেট সেবা বিঘ্নিত হচ্ছে। গ্রাহকেরা ইন্টারনেটের ধীরগতির সমস্যায় পড়ছেন। রোববার দুপুরে বালু তোলার সময় এক্সকাভেটর ব্যবহার করতে গিয়ে সাবমেরিন তারের (এসইএ-এমই-ডব্লিউই-৫) পাওয়ার সাপ্লাই ও অপটিক্যাল ফাইবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

আন্তর্জাতিক

ক্রিকেটার শামির স্ত্রীকে ধর্ষণ ও খুনের হুমকি

ক্রিকেটার শামির স্ত্রীকে ধর্ষণ ও খুনের হুমকি

ভারতের অয্যোধ্যায় বিতর্কিত স্থানে রামমন্দির স্থাপন নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের পেসার মোহাম্মদ শামির স্ত্রী হাসিন জাহান। এই স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফরম ইনস্টাগ্রামে ধর্ষণ ও খুনের হুমকি দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন হাসিন জাহান।

খেলাধুলা

এবার করোনায় আক্রান্ত ক্রিকেটার মোশাররফ হোসেন

এবার করোনায় আক্রান্ত ক্রিকেটার মোশাররফ হোসেন

এবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ক্রিকেটার মোশাররফ হোসেন রুবেল। অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটারের বাবাও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। রোববার বাঁহাতি এই স্পিনার নিজেই গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জাতীয়

দেশে করোনায় আরও ৩৪ জনের মৃত্যু

দেশে করোনায় আরও ৩৪ জনের মৃত্যু

মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। ফলে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল তিন হাজার ৩৯৯ জনে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত হয়েছে আরও দুই হাজার ৪৮৭ জনের। এতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা হল দুই লাখ ৫৭ হাজার ৬০০ জন।

স্বাস্থ্য

পুষ্টির ভান্ডার বাতাবি লেবু

পুষ্টির ভান্ডার বাতাবি লেবু

প্রচুর ভিটামিন সি, বিটা ক্যারোটিন, ভিটামিন বি, ফলিক অ্যাসিড, পটাশিয়ামসহ শরীরের প্রয়োজনীয় সব পুষ্টি উপাদান আছে এতে। তাই রোগ প্রতিরোধে, রোগ নিরাময়ে, এবং শরীরের ঘাটতি পূরণে জাম্বুরা খুবই কার্যকর একটি ফল। যকৃত, দাঁত ও মাড়ি সুরক্ষাতেও বাতাবি লেবু অতুলনীয়।