• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • রোববার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬

কিছুটা মানসিক চাপ স্বাস্থ্যের জন্য ভালো

কিছুটা মানসিক চাপ স্বাস্থ্যের জন্য ভালো

স্বাস্থ্য ডেক্স১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১১:১০এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

মানসিক চাপ কী? এই প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে আমেরিকান ইউনিভার্সিটির মনোবিজ্ঞান বিষয়ের প্রফেসর ক্যাথলিন গুন্থার্ট মন্তব্য করেন, “মানসিক চাপ তখন সৃষ্টি হয় যখন একটি চ্যালেঞ্জ এবং তা মোকাবেলা করার মত যোগানের মধ্যে ভারসাম্যের তারতম্য ঘটে।”

এই মানসিক চাপকে বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই নেতিবাচকভাবে দেখা হয়। কিন্তু সহনশীল মাত্রার মানসিক চাপ অনেক সময় আমাদের জন্য ইতিবাচক। ২০১৩ সালে সাইকোনিউরো এনডোক্রিনোলোজি জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণার ফলাফলে এমন তথ্য উঠে এসেছে।

প্রকাশিত ওই গবেষণাপত্রে বলা হয়েছে, অল্পমাত্রার মানসিক চাপের কিছুটা ইতিবাচক প্রভাব রয়েছে। প্রতিদিনের সহনশীল মাত্রার মানসিক চাপ (ইউস্ট্রেস) বয়স বেড়ে যাওয়া এবং বিভিন্ন রোগের অনুঘটক হিসেবে পরিচিত ‘অক্সিডেটিভ ডেমেজ’এর বিরুদ্ধে কাজ করে।

গবেষকরা দুই ধরণের মানসিক চাপ চিহ্নিত করেছেন- একটি হলো নেতিবাচক মানসিক চাপ বা ডিস্ট্রেস (যেমন ব্রেক আপ) এবং অন্যটি ইতিবাচক মানসিক চাপ বা ইউস্ট্রেস (নতুন চাকরী শুরু করা)। অল্পমাত্রার মানসিক চাপের কিছু অপ্রত্যাশিত সুফল রয়েছে। তা হলো-

মানসিক চাপ কর্ম প্রেরণা বৃদ্ধি করে
প্রচণ্ড মানসিক চাপ যেমন আপনার কর্ম উদ্যম ধ্বংস করে দিতে পারে, ঠিক তেমনি সহনশীল মাত্রার মানসিক চাপের ফল হতে পারে উল্টো। অর্থাৎ ইউস্ট্রেস আপনার মধ্যে জাগিয়ে তুলবে কর্মক্ষুধা। আবার, মাঝারি মাত্রার মানসিক চাপ আমাদের উদ্যমী করে তোলে। যেমন, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে কোনো কাজ শেষ করার তাগিদের ফলে সৃষ্ট মানসিক চাপ মানুষকে আরও বেশি কাজে মনোনিবেশ করতে সাহায্য করে।

মানসিক চাপ সম্পর্ক গড়ে তুলতে সাহায্য করে
সব থেকে আশ্চর্যজনক ব্যাপার হলো, মানসিক চাপ আমাদেরকে আন্তঃ ব্যক্তিগত সম্পর্ক গড়ে তুলতে সাহায্য করে, যা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়- মানসিক চাপের জন্য মানুষ যখন সাহায্য কেন্দ্রে গিয়ে নিজেদের ব্যাপারে একে অন্যের সঙ্গে কথা বলেন তখন তাদের মধ্যে সুন্দর সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ফলে একে অন্যের প্রতি সহমর্মিতার সৃষ্টি হয় এবং মস্তিষ্কে একটি বিশেষ ইতিবাচক হরমোনের ক্ষরণ ঘটে।

এছাড়াও বন্ধু-বান্ধব ও পরিবার-পরিজনের কাছে নিজের মানসিক চাপের কথা ভাগ করে নেয়ার মধ্য দিয়ে সম্পর্কগুলো আরও মজবুত হয়ে ওঠে। মনোবিজ্ঞান গুন্থার্ট এ বিষয়ে মন্তব্য করেন যে, “আমরা যদি কঠিন সময়গুলিতে পরস্পরের পাশে না দাঁড়াতাম, তাহলে আমাদের বন্ধু বা পরিবারের সঙ্গে সম্পর্কগুলো এতো সুন্দর হতো না।”

মানসিক চাপ অর্থপূর্ণ জীবনের অংশ
মানসিক চাপহীন জীবন যে খুব ভালো হবে তেমন কোনো কথা নেই। সহজ কথায় বলতে গেলে তাগিদ না থাকলে ভালো কিছু করা যায় না। উদাহরণ হিসেবে ছাত্র জীবনের কথা বলা যেতে পারে। পড়াশুনার চাপ, পরীক্ষার চাপ, কোর্স ওয়ার্কের চাপ প্রভৃতি বিভিন্ন চাপের ফলে সৃষ্ট মানসিক চাপ প্রত্যেকটা শিক্ষার্থীকেই অনুভব করতে হয়। এই মানসিক চাপ তাদেরকে প্রতিযোগিতায় আরও ভাল ফলাফল করতে সাহায্য করে এবং জীবনে বড় কিছু অর্জনে সক্ষম করে তোলে।

এ বিষয়ে মনোবিজ্ঞান গুন্থার্ট মন্তব্য করেন, “সব শেষে আমরা যখন ভালো কিছু অর্জন করি, তখন আমরা গর্ববোধ করি। জীবনে আমরা সেসব বিষয় নিয়েই সব থেকে বেশি গর্ব করে থাকি, যেসব অর্জন করা তুলনামূলকভাবে কঠিন। আমরা যদি জীবন থেকে মানসিক চাপ মুছে ফেলি তাহলে একইসঙ্গে জীবনের অনেক অর্থই মুছে যাবে।”

 

টাইমস/এনজে/জিএস

চাঁদাবাজ, দুর্নীতিবাজ, সন্ত্রাসীদের নির্মূল করা হবে: ওবায়দুল কাদের

চাঁদাবাজ, দুর্নীতিবাজ, সন্ত্রাসীদের নির্মূল করা হবে: ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ আর দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান শুধু ঢাকায় নয়; পর্যায়ক্রমে সারাদেশেই চলবে। এই অভিযানের মাধ্যমে টেন্ডারবাজ, চাঁদাবাজ, দুর্নীতিবাজ ও সন্ত্রাসীদের নির্মূল করা হবে। যত বড় মাস্তান, যত বড় নেতা, আর যত বড় প্রভাবশালীই হোক না কেন, কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না। শনিবার বিকালে স্থানীয় পর্যটন গলফ মাঠে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত প্রতিনিধি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

ধূমপান কীভাবে ছাড়বেন

ধূমপান কীভাবে ছাড়বেন

সবাই জানেন, ধূমপান স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। সিগারেটের প্যাকেটের গায়েও বেশ বড় বড় করে লেখা থাকে ‘ধূমপান ফুসফুস ক্যানসারের কারণ’। তারপরও ধূমপায়ীরা এই সিগারেটের নেশাটা ছাড়তে পারেন না। ধূমপান ছাড়তে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ ব্যক্তিও ‘আজকেই শেষ’, ‘এটাই শেষ’ বলতে বলতে সিগারেট খেতেই থাকেন।

নিদ্রাহীনতা দূর করার উপায়

নিদ্রাহীনতা দূর করার উপায়

বিভিন্ন সমস্যার কারণে মানুষের ঘুম কম হতে পারে। আবার কখনো কখনো মাঝরাতে ঘুম ভেঙ্গেও যায়। কখনো অনেকক্ষণ ঘুমের উদ্দেশ্যে বিছানায় শুয়ে থাকলেও ঘুম আসে না। এসব সমস্যা যদি দু-একদিনের জন্য হয়, তাহলে এটাকে নিদ্রাহীনতা ধরা হয় না।

উক্তি প্রতিদিন

“মানুষের গোপন  দুঃখের খবর জগৎ পায় না”

“মানুষের গোপন দুঃখের খবর জগৎ পায় না”

আমেরিকার কবি ও অধ্যাপক হেনরি ওয়ার্ডসওয়ার্থ লংফেলো। ১৮০৭ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি আমেরিকার পোর্টল্যান্ডের মেইনে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন তাঁর সময়ের বিখ্যাত কবি। তিনিই প্রথম আমেরিকান হিসেবে ইটালিয়ান কবি দান্তের মহাকাব্য ‘ডিভাইন কমেডি’র ভাষানুবাদ করেন।

লাইফস্টাইল

জেনে নিন, কী কারণে চুল পড়ছে?

জেনে নিন, কী কারণে চুল পড়ছে?

মানুষের সৌন্দর্যের অলংকার হলো তার চুল। তাই চুল ঝরে পড়তে থাকলে যে কেউ দুশ্চিন্তাগ্রস্ত হয়ে পড়েন। চুল পড়া, চুল উঠে যাওয়া বা চুল পাতলা হয়ে যাওয়া নিয়ে যেন চিন্তার অন্ত নেই। ছেলেমেয়ে সবাই এর শিকার।

ইতিহাস

কাশ্মীর যেভাবে ভারত-পাকিস্তানের অংশ হলো

কাশ্মীর যেভাবে ভারত-পাকিস্তানের অংশ হলো

১৯৪৭ সাল থেকে শুরু হয়ে এখন পর্যন্ত মুসলিম অধ্যুষিত কাশ্মীর অঞ্চল নিয়ে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে বিরোধ চলছে। হিমালয়ের পার্বত্য অঞ্চলে অবস্থিত ৮৬,০০০ বর্গ মাইলের এই এলাকাটি এক সময় স্বাধীন রাজ্য হিসেবে বিবেচিত হতো। বর্তমানে অঞ্চলটি ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে বিভক্ত আর উভয়েই কাশ্মীরকে নিজেদের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ বলে দাবি করছে।

জাতীয়

যুবলীগ নেতা জি কে শামীমের ১০ দিনের রিমান্ড

যুবলীগ নেতা জি কে শামীমের ১০ দিনের রিমান্ড

আলোচিত যুবলীগ নেতা জি কে শামীমের বিরুদ্ধে তিনটি মামলার মধ্যে দুটি মামলার ইতোমধ্যে শুনানি সম্পন্ন হয়েছে। মামলার বিচারক ছিলেন মহানগর হাকিম মাহমুদা আখতার। তিনি শুনানি শেষে শামীমকে অস্ত্র মামলায় ৫ দিন এবং মাদক মামলায় ৫ দিনসহ মোট ১০ দিন রিমান্ড মঞ্জুর করেন। একই আদালত জি কে শামীমের ৭ দেহরক্ষীর প্রত্যেককে অস্ত্র মামলায় ৪ দিনের রিমান্ড দেন।

রাজনীতি

কৃষক লীগ নেতা শফিকুল ১০ দিনের রিমান্ডে

কৃষক লীগ নেতা শফিকুল ১০ দিনের রিমান্ডে

জুয়ার আখড়া বন্ধে র‌্যাবের অভিযানে গ্রেপ্তার কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের সভাপতি ও কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য শফিকুল ইসলাম ফিরোজের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদক আইনে দায়ের দুটি মামলায় ৫ দিন করে মোট ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। র‌্যাবের করা দুই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে শনিবার বিকালে ফিরোজকে ঢাকার আদালতে পাঠায় ধানমন্ডি থানা পুলিশ। অস্ত্র আইনের মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই নুরউদ্দিন এবং মাদক মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই আশিকুর রহমান আসামি ফিরোজকে ১০ দিন করে ২০ দিন হেফাজতে চেয়ে আবেদন করেন।

জাতীয়

প্রথা ভেঙে বিয়ে: কনে বিয়ে করতে এল বরের বাড়িতে

প্রথা ভেঙে বিয়ে: কনে বিয়ে করতে এল বরের বাড়িতে

বর তার আত্মীয়-স্বজন নিয়ে কনের বাড়িতে গিয়ে বিয়ের কার্য সম্পাদন করে এটা বাংলাদেশে প্রচলিত নিয়ম। তবে এই প্রথা ভাঙলেন চুয়াডাঙ্গার খাদিজা আক্তার খুশি। কনে তার আত্মীয়-স্বজন নিয়ে শনিবার হাজির হন মেহেরপুরের গাংনী পৌরসভার চৌগাছা গ্রামে বরে বাড়িতে। কনে খাদিজা চুয়াডাঙ্গার হাজরাহাটি গ্রামের কামরুজ্জামানের মেয়ে। কুষ্টিয়া ইসলামিয়া কলেজে অনার্স পড়ছেন খাদিজা আর বর গাংনীর চৌগাছার কমরেড আব্দুল মাবুদের ছেলে তরিকুল ইসলাম জয় একজন ব্যবসায়ী।