• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
বিড়াল পুষলে যেসব উপকার পাবেন

বিড়াল পুষলে যেসব উপকার পাবেন

প্রাণী পোষা অনেকেরই প্রিয় একটি শখ। কেউ কবুতর, কেউ টিয়া, কেউ ময়নাসহ নানা পাখি পোষে। আবার কেউ কেউ কুকুর, বিড়াল কিংবা খরগোশসহ নানান চতুষ্পদ প্রাণীও পোষে থাকেন। আর আপনার যদি প্রাণী পোষার শখ থাকে, তবে আপনি বিড়াল পুষতে পারেন। কারণ বিভিন্ন গবেষণায় বিড়াল পোষার বেশ কিছু উপকারিতা পাওয়া গেছে। এটা কেবল আপনাকে আনন্দই দেবে না, আপনার ঘরের নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্য সুরক্ষায় ভূমিকা রাখতে সাহায্য করবে।

বিস্তারিত
হৃদকম্পন নির্ণয় করবে অ্যাপল ওয়াচ অ্যাপ

হৃদকম্পন নির্ণয় করবে অ্যাপল ওয়াচ অ্যাপ

অস্বাভাবিক হৃদকম্পন নির্ণয় করার মাধ্যমে মানুষের জীবন বাঁচাতে সাহায্য করবে অ্যাপল ওয়াচ অ্যাপ। অস্বাভাবিক হৃদকম্পন হচ্ছে- এমন একটি স্বাস্থ্য পরীক্ষা, যা হার্টের অ্যাট্রিয়াল ফাইব্রিলেশন (এএফআইবি) পরিস্থিতি সনাক্ত করে।  এএফআইবি এমন একটি অবস্থা, অধিকাংশ সময়ই যার কোনো উপসর্গ দেখা যায় না বলে এটা আগে থেকে সনাক্ত করা সম্ভব হয় না। অথচ বিশ্বব্যাপী লাখ লাখ লোক এই রোগে মারা যাচ্ছে। বিখ্যাত অ্যাপল প্রতিষ্ঠানের অর্থায়নে পরিচালিত এক গবেষণায় এ তথ্য ওঠে এসেছে।

বিস্তারিত
অতিরিক্ত গরম চা পানে ক্যান্সারের ঝুঁকি

অতিরিক্ত গরম চা পানে ক্যান্সারের ঝুঁকি

চা বিশ্বের অধিকাংশ দেশেই খুব জনপ্রিয় একটি পানীয়। সকাল, দুপুর কিংবা রাত সব সময়ই আমাদের সঙ্গে আছে চা। মন খারাপ, ভালো লাগছে না, মাথা ধরা, কাজ করতে করতে ক্লান্তসহ নানান পরিস্থিতিতে এক কাপ গরম চা না হলে যেন আমাদের চলেই না। এমন কি আমাদের অনেকেরই দিনের শুরুটাই হয় এক কাপ গরম চা দিয়ে। তবে এই গরম চা পানে যেমন উপকারিতা আছে, তেমনই ক্ষতিও রয়েছে।

বিস্তারিত
গোল্ডেন ব্লাড: অর্ধশত ব্যক্তির আছে এই রক্ত

গোল্ডেন ব্লাড: অর্ধশত ব্যক্তির আছে এই রক্ত

বিশ্বের অধিকাংশ লোকই আট ধরনের রক্তের গ্রুপের সঙ্গে পরিচিত। কারণ অনেকের শরীরেই এইসব রক্তের অস্তিত্ব রয়েছে। কিন্তু এই আট প্রকারের বাইরেও কিছু বিরল রক্তের গ্রুপ রয়েছে, যা আমাদের জানা নেই। প্রায় ৮০০ কোটি মানুষের এই বিশ্বে ৫০ জনেরও কম মানুষের দেহে এমনই এক বিরল রক্তের অস্তিত্ব রয়েছে। এই বিরল রক্তকে বলা হয় ‘গোল্ডেন ব্লাড’। কারণ এই বিরল রক্ত আরএইচ সিস্টেমে থাকা মাত্র একজন ব্যক্তির সঙ্গে ভাগাভাগি করা যেতে পারে।

বিস্তারিত
কিডনি রোগের সতর্কবার্তা

কিডনি রোগের সতর্কবার্তা

প্রতিদিন দুই কোয়ার্ট বর্জ্য ও অতিরিক্ত পানি অপসারণ করতে আমাদের কিডনিকে প্রায় ২০০ কোয়ার্ট রক্ত প্রক্রিয়া করতে হয়। এটা আমাদের দেহের সার্বিক তারল্যের ভারসাম্য রক্ষা করে এবং বিভিন্ন হরমোন উৎপাদনে ভূমিকা রাখে। যা লাল রক্ত তৈরি করে, অস্থির স্বাস্থ্য উন্নত করে এবং রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে। এই কাজগুলোর জন্য আমাদের কিডনিকে প্রতিদিন কাজ করতে হয় এবং বর্জ্য পদার্থ অপসারণ করতে গিয়ে বিভিন্ন বিষাক্ত পদার্থের মুখোমুখি হতে হয়। এত করে কিডনিতে বিভিন্ন ধরণের সমস্যা ও জটিলতার সৃষ্টি হয়

বিস্তারিত
বাইপাস সার্জারির প্রয়োজনীয়তা ও ঝুঁকি

বাইপাস সার্জারির প্রয়োজনীয়তা ও ঝুঁকি

মনে করুন আপনি কোনো মহাসড়কে গাড়িতে আছেন। হঠাৎ কোনো স্থানে দুর্ঘটনার কারণে প্রচণ্ড যানজট লেগে গেল। রাস্তা দিয়ে আর গাড়ি চলাচল করতে পারছে না। এমন সময় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা অন্য একটি রাস্তা বের করে দিল, যাতে যানবাহনগুলো চলাচল করতে পারে। তখন আপনি সহজেই আপনার গন্তব্যে পৌঁছাতে পারলেন।

বিস্তারিত
স্বাস্থ্যকর ঘুমের কৌশল

স্বাস্থ্যকর ঘুমের কৌশল

সাধারণত স্বাস্থ্যকর ঘুমের কৌশল বলতে এমন একটি ঘুমের অভ্যাসকে বুঝায়, যাতে আমাদের মেরুদণ্ডের স্বাভাবিক বাঁক ঠিক থাকে এবং ঘুমানোর সময় ঘাড়, মেরুদণ্ড ও নিতম্বের স্বাভাবিক অবস্থান সমতলে থাকে। তাই এসব সমস্যা দূর করত একটি স্বাস্থ্যকর ঘুমের কৌশল অনুসরণ করতে হবে।

বিস্তারিত
ব্রেস্ট ক্যান্সারের জন্য দায়ী জিন সনাক্ত

ব্রেস্ট ক্যান্সারের জন্য দায়ী জিন সনাক্ত

অস্ট্রেলিয়ার গবেষকরা জানিয়েছেন, তারা মারাত্মক ব্রেস্ট ক্যান্সারের জন্য দায়ী একটি অধরা জিন সনাক্ত করতে পেরেছেন, যা এ রোগের থেরাপিভিত্তিক চিকিৎসায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। যুক্তরাষ্ট্রের আলবার্ট আইনস্টাইন কলেজ অব মেডিসিন এবং অস্ট্রেলিয়ার ইউনিভার্সিটি অব কুইন্সল্যান্ডের একদল গবেষক ব্রেস্ট ক্যান্সারের জন্য দায়ী এই অধরা জিন খুঁজতে এই গবেষণাটি করেন।

বিস্তারিত
টিভি দেখলে স্মৃতিশক্তি হ্রাস পায়

টিভি দেখলে স্মৃতিশক্তি হ্রাস পায়

ব্যস্ত জীবন শেষে পড়ন্ত শেষ বয়সে একটু বিনোদন কে না চায়? তাইতো বয়স্কদের জন্য শেষ বয়সে সময় কাটানোর এক অন্যতম সঙ্গী টেলিভিশন। কিন্তু গবেষণা বলছে দীর্ঘসময় টেলিভিশন দেখলে বয়স্কদের ভার্বাল স্মৃতিশক্তি হ্রাস পাবার ঝুঁকি রয়েছে। এর আগেও বেশ কিছু গবেষণায় দেখা গেছে যে, টেলিভিশন দেখার কারণে শিশুদের দূরদর্শিতা, স্মৃতিশক্তি ও মনোযোগ হ্রাস পায়।

বিস্তারিত
মৃত সন্তান প্রসবের পর দ্রুত গর্ভধারণে ঝুঁকি নেই

মৃত সন্তান প্রসবের পর দ্রুত গর্ভধারণে ঝুঁকি নেই

মৃত সন্তান জন্ম দেয়া নারীদের জন্য একটি মারাত্মক স্বাস্থ্য সমস্যা। অনেক সমাজেই একটি প্রচলিত ধারণা হয়ে গেছে যে, মৃত সন্তান প্রসবের পর দ্রুত সময়ের ব্যবধানে পুনরায় গর্ভধারণ করা উচিত নয়। এজন্য অনেক চিকিৎসক অন্তত একবছর অপেক্ষা করতে বলেন, যাতে মায়ের জরায়ু পুনরায় গর্ভধারণে প্রস্তুত হতে পারে। কিন্তু সাম্প্রতিক একটি গবেষণা বলছে, মৃত সন্তান প্রসবের পরপরই দ্রুত সময়ের ব্যবধানে পুনরায় গর্ভধারণ নিরাপদ এবং এতে কোনো ঝুঁকি নেই।

বিস্তারিত