• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • রোববার, ০৭ জুন ২০২০, ২৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

সব সময় ক্লান্ত? জেনে নিন কেন এমন হচ্ছে

সব সময় ক্লান্ত? জেনে নিন কেন এমন হচ্ছে

ফিচার ডেস্ক০৮ নভেম্বর ২০১৯, ০৯:১৬এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

স্বাস্থ্যকর খাবার, ব্যায়াম এবং যথেষ্ঠ ঘুম আমাদের সতেজ রাখে। কিন্তু সব কিছু ঠিকভাবে করার পরও অনেকেই ক্লান্ত ও অবসন্ন ভাব অনুভব করে থাকেন। অনেকে একে বেশি একটা গুরুত্ব না দিলেও এনিয়ে কিন্তু বেশ ভাবার কারণ রয়েছে। যদি এমনটা হয়ে থাকে তাহলে বুঝতে হবে হয়তো আপনার দেহে কিছু ঘটে চলেছে, যাতে আপনার নিয়ন্ত্রণ নেই। তাই আপনার ব্যস্ততম সময়ের মধ্যেও ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করার পরিকল্পনা করে নিন।

আসুন জেনে নিই, যেসব কারণে ক্লান্তি ভাব অনুভব হয়ে থাকে-

পর্যাপ্ত ঘুম হচ্ছে তো?


ঘুম কম হওয়া ক্লান্ত লাগার অন্যতম কারণ। সুতরাং দেখে নিন আপনি ঠিক মতো এবং পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমচ্ছেন কি না। যদি সকালে অ্যালার্ম বাজার পরেও আপনার ক্লান্ত অনুভূত হয় তাহলে খুব সম্ভবত আপনার ঘুমের ঘাটতি রয়েছে। একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের প্রতিদিন ৭ থেকে ৯ ঘণ্টা ঘুমের প্রয়োজন। যদি দিনে আপনার ঝিমুনি ভাব লেগে থাকে, তাহলে বুঝতে হবে আপনার রাতের ঘুম ঠিক মতো হচ্ছে না। আপনাকে আপনার রুটিন বদলাতে হবে।

জেনে নিন আপনার অ্যানিমিয়া আছে কি না


যখন খাদ্যাভ্যাসে আয়রনের ঘাটতি দেখা দেয় তখন দেহে অ্যানিমিয়া (রক্তশূন্যতা) সৃষ্টি হয়। অ্যানিমিয়া আক্রান্ত লোকেরা সব সময় ক্লান্তি অনুভব করে। কারণ দেহের সব অংশে রক্ত পর্যাপ্ত অক্সিজেন বহন করতে পারে না। একজন অ্যানিমিয়া আক্রান্ত ব্যক্তি একইসঙ্গে বিরক্তি অনুভব করেন। যেহেতু আপনি নিজে সেটা বের করতে পারবেন না তাই উত্তম হলো ডাক্তারের পরামর্শ নেয়া।

থাইরয়েড সমস্যা


অ্যানিমিয়ার মতো থাইরয়েডের সমস্যার কারণেও আপনি সব সময় ক্লান্তি অনুভব করতে পারেন। থাইরয়েড গ্ল্যান্ড বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ হরমোনের নিঃসরণ ঘটায়। এর কর্মক্ষমতা কমে গেলে যে সমস্যার সৃষ্টি হয় তাকে হাইপো-থাইরয়েডিজম বলে। ক্লান্তি অনুভব করা ছাড়াও এর ফলে মানুষ কোষ্ঠকাঠিন্য আক্রান্ত হয়ে থাকে।

মানসিক চাপ ও অবসাদ


মানসিক চাপ স্বাস্থ্য ভেঙ্গে দেয়ার জন্য দায়ী। এমনকি এর ফলে আপনার রাতের ঘুম নষ্ট হয় এবং অন্যান্য অনেক স্বাস্থ্য সমস্যা দেখা দিতে পারে। ফলে আপনি সকালে বিছানা থেকে উঠতে পারবেন না।

হৃদরোগ


হৃদপিণ্ড আমাদের দেহে রক্ত সঞ্চালনের কাজটি করে থাকে। কিন্তু যদি এটি ঠিক মতো কাজ না করে তাহলে দেহের কোষগুলিতে ঠিকমতো রক্ত পৌছায় না। ফলে দেহ দুর্বল হয়ে পড়ে। যদি এমন কিছু সন্দেহ হয় তাহলে ডাক্তারের শরণাপন্ন হতে দেরি করবেন না।

এছাড়াও আরও অনেক শারীরিক সমস্যার কারণে দুর্বলতা অনুভূত হতে পারে। আপনার দৈনন্দিন জীবনের কাজ কর্মের সঙ্গেও এটি সম্পর্কযুক্ত হতে পারে। জীবনাচরণ খাদ্যাভ্যাস এবং অন্ত্রের সমস্যার কারণেও এটি হতে পারে। তথ্যসূত্র: দ্যা ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

 

টাইমস/এনজে/জিএস

ঘরে বসেই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর মাসিক বেতন ৮৬ হাজার টাকা!

ঘরে বসেই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর মাসিক বেতন ৮৬ হাজার টাকা!

ঘরে বসেই ৮৬ হাজার টাকা বেতনে চাকরি করছেন ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের

করোনাভাইরাসে আরেক শিল্পপতি আজমত মঈনের মৃত্যু

করোনাভাইরাসে আরেক শিল্পপতি আজমত মঈনের মৃত্যু

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন দেশের আরেক শিল্পপতি আজমত মঈন।

করোনার ‘হটস্পট’ ভিত্তিক লকডাউন আসছে

করোনার ‘হটস্পট’ ভিত্তিক লকডাউন আসছে

এবার নতুন করে করোনা সংক্রমণের ‘হটস্পট’ বা এলাকা ভিত্তিক লকডাউনের

স্বাস্থ্য

আয়রন সমৃদ্ধ সাতটি খাবার সম্পর্কে জেনে নিন

আয়রন সমৃদ্ধ সাতটি খাবার সম্পর্কে জেনে নিন

আমাদের দেহ সুস্থ রাখতে এবং দেহের বিভিন্ন দরকারি জৈবিক কার্য সম্পাদন করতে আয়রন অতি প্রয়োজনীয় একটি খনিজ। এটি রক্তে অক্সিজেন পরিবহনের জন্য হিমোগ্লোবিনকে সর্বোত্তম কার্য সম্পাদন করতে সহায়তা করে। রক্তাল্পতার অন্যতম প্রধান কারণ আয়রনের ঘাটতি। দেহের লোহিত রক্তকণিকায় আয়রনের ঘাটতি দেখা দিলে কোষগুলিতে অক্সিজেনের পরিবহণ ব্যাহত হয়।

স্বাস্থ্য

উচ্চ রক্তচাপের রোগীর করোনায় মৃত্যুঝুঁকি বেশি

উচ্চ রক্তচাপের রোগীর করোনায় মৃত্যুঝুঁকি বেশি

উচ্চ রক্তচাপজনিত সমস্যায় ভোগা করোনায় আক্রান্ত রোগীদের মৃত্যুঝুঁকি বেশি। সম্প্রতি ইউরোপিয়ান হার্ট জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণায় এমন তথ্য উঠে এসেছে। ইন্টারন্যাশনাল টিম অব রিসার্চারের এই গবেষণার নেতৃত্ব দিয়েছেন চীনের জিজিয়াং হাসপাতালের কার্ডিওলজি বিভাগের ফেই লি এবং লিং তাও। করোনার উৎপত্তিস্থল চীনের উহানের ২ হাজার ৮৬৬ জন রোগীর ওপর গবেষণা চালিয়ে তারা এমন দাবি করেন।

স্বাস্থ্য

ঘরবন্দি শিশুদের মানসিকতায় পড়ছে নেতিবাচক প্রভাব

ঘরবন্দি শিশুদের মানসিকতায় পড়ছে নেতিবাচক প্রভাব

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে মানুষ এখন ঘরবন্দি। শিশু-কিশোরদেরও বন্দিদশা। স্কুল-কলেজ বন্ধ। বাইরে যাওয়া বারণ। বন্ধুদের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাৎ নেই। ফলে তাদের মানসিকতায় নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। অভিভাবকদের পাশাপাশি মনরোগ বিশেষজ্ঞরাও এই কথা বলছেন। কলকাতার এই সময় এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য জানায়। এই সময়ের প্রতিবেদনে বলা হয়, শিশু-কিশোরদের অনেকেরই তাদের পড়াশোনায় একদম মন বসছে না।

স্বাস্থ্য

শৈশবের স্থূলতা মূত্রথলি ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়

শৈশবের স্থূলতা মূত্রথলি ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়

পৃথিবীব্যাপী দেখা দেয়া বিভিন্ন ধরনের ক্যান্সারের মধ্যে সংখ্যায় নবম স্থানে রয়েছে মূত্রথলির ক্যান্সার রোগী। এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার পর ফিরে আসার হার যেমন বেশি, তেমনি ৬৫ বছরের বেশি বয়সের মানুষকেই রোগটি বেশি আক্রমণ করে। গবেষণা বলছে শৈশবে যেসব শিশুর অতিরিক্ত ওজন থাকে, পরিণত বয়সে তাদের মূত্রথলিতে ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকি অন্যদের তুলনায় বেশি থাকে।

স্বাস্থ্য

করোনা চিকিৎসায় ভেষজ ওষুধের পরীক্ষা চালাচ্ছে ভারত

করোনা চিকিৎসায় ভেষজ ওষুধের পরীক্ষা চালাচ্ছে ভারত

বিশ্বজুড়ে চলছে করোনাভাইরাসের প্রকোপ। এরই মধ্যে প্রতিবেশী দেশ ভারতে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্তের নিরিখে ইতিমধ্যে ভারত ইতালিকে হটিয়ে পঞ্চম স্থানে উঠে এসেছে। আমেরিকা, ব্রাজিল, রাশিয়া, ব্রিটেন, স্পেনের পরেই এখন দেশটির অবস্থান। দিন যত যাচ্ছে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের প্রকোপ ততোই বাড়ছে। যার নেই কোনো ওষুধ, নেই প্রতিষেধক। এ পরিস্থিতিতে করোনা রোগীদের চিকিৎসায় ভেষজ ওষুধ নিয়ে পরীক্ষা চালাচ্ছে ভারতের একটি ওষুধ কোম্

স্বাস্থ্য

কিছু মানুষকে আক্রান্ত করার ক্ষমতা নেই করোনার

কিছু মানুষকে আক্রান্ত করার ক্ষমতা নেই করোনার

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলছে। একই সঙ্গে প্রতিদিনই পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যারও। তবে এ মহামারীর মধ্যেও কিছু মানুষ কখনও করোনায় আক্রান্ত হবেন না। সম্প্রতি সেল জার্নালে প্রকাশিত এক নতুন গবেষণায় এমন দাবি করা হয়েছে। গবেষণায় বলা হয়, সব মানুষের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঘটানোর সক্ষমতা নেই। কিছু মানুষের শরীরে এমন ধরনের ‘টি সেল’ (এর টিকা নিউজের শেষে দেয়া আছে) রয়েছে, যার কারণে তারা কখনও এই ভাইরাসে আক্রান্ত হবেন না।