• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ২২ আষাঢ় ১৪২৭

হোলি আর্টিজান হামলার রায় ২৭ নভেম্বর

হোলি আর্টিজান হামলার রায় ২৭ নভেম্বর

নিজস্ব প্রতিবেদক১৭ নভেম্বর ২০১৯, ০৭:৩৩পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

আগামী ২৭ নভেম্বর গুলশানের হোলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলা মামলার রায় ঘোষণা করা হবে। রোববার বিকালে আদালত এই মামলার রায় ঘোষণার তারিখ ধার্য করেন।

নৃশংস এই হামলার ঘটনায় অভিযুক্ত আট জঙ্গির মৃত্যুদণ্ড চেয়ে ৭ নভেম্বর যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ করে রাষ্ট্রপক্ষ। যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের শেষ দিনে রাষ্ট্রপক্ষ সব আসামির মৃত্যুদণ্ড চায়।

রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি (পিপি) গোলাম সারওয়ার খান আসামিদের সর্বোচ্চ শাস্তি হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন। অপরদিকে চার আসামির আইনজীবী মো. দেলোয়ার হোসেন বলেছেন, তারা ন্যায়বিচার চান।

২০১৬ সালের ১ জুলাই রাতে হোলি আর্টিজানে হামলা চালায় জঙ্গিরা। তারা অস্ত্রের মুখে দেশি-বিদেশি অতিথিদের জিম্মি করে। ওই রাতে অভিযান চালাতে গিয়ে পুলিশের দুই কর্মকর্তা নিহত হন। পরদিন সকালে সেনা কমান্ডোদের অভিযানে পাঁচ জঙ্গিসহ ছয়জন নিহত হন। পরে পুলিশ ১৮ বিদেশিসহ ২০ জনের লাশ উদ্ধার করে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান একজন রেস্তোরাঁ কর্মী। হামলার আড়াই বছরের মাথায় গত বছরের ২৩ জুলাই আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয় পুলিশ। এরপর ওই বছরের ২৬ নভেম্বর আট আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে শুরু হয় মামলার বিচারকাজ।

আট আসামি হলেন- রাশেদ ওরফে র‍্যাশ, রাকিবুল ইসলাম ওরফে রিগ্যান, জাহাঙ্গীর আলম ওরফে রাজীব গান্ধী, মিজানুর রহমান ওরফে বড় মিজান, হাদিসুর রহমান ওরফে সাগর, আবদুস সবুর খান ওরফে সোহেল মাহফুজ ওরফে হাতকাটা মাহফুজ, শরিফুল ইসলাম খালেদ ও মামুনুর রশিদ।

 

টাইমস/এসআই

বন্ধুকে বাঁচিয়ে পানিতে ডুবে গেল তিন মেধাবী ছাত্র!

বন্ধুকে বাঁচিয়ে পানিতে ডুবে গেল তিন মেধাবী ছাত্র!

বিলে গোসলে গিয়েছিলেন বন্ধুরা। এসময় এক বন্ধু পানিতে তলিয়ে যাচ্ছিল।

'মগজ খেকো' অ্যামিবার সন্ধান পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা

'মগজ খেকো' অ্যামিবার সন্ধান পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে এক ধরনের বিরল 'মগজ খেকো' (ব্রেন ইটিং)

আর্কটিক অঞ্চলে হাজার হাজার মরণ ভাইরাস

আর্কটিক অঞ্চলে হাজার হাজার মরণ ভাইরাস

পৃথিবীর সর্ব উত্তরে অবস্থিত আর্কটিক অঞ্চলের বরফ গলার কারণে বিশ্বে

জাতীয়

অনলাইনে লতিফুর রহমানের মিলাদ মাহফিল

অনলাইনে লতিফুর রহমানের মিলাদ মাহফিল

ট্রান্সকম গ্রুপের প্রয়াত চেয়ারম্যান লতিফুর রহমানের আত্মার শান্তি কামনা করে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে আজ রোববার অনলাইনে তাঁর স্মরণসভা ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এতে শুরুতে লতিফুর রহমানের স্বজন ও বন্ধুস্থানীয় ব্যক্তিরা তাকে স্মরণ করেন। এরপর দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। সবাই তার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন।

আন্তর্জাতিক

ইরানে পারমাণবিক কেন্দ্রে আগুনে 'ব্যাপক' ক্ষয়ক্ষতি

ইরানে পারমাণবিক কেন্দ্রে আগুনে 'ব্যাপক' ক্ষয়ক্ষতি

কয়েক সপ্তাহ ধরে ইরানের পরমাণু ও সামরিক স্থাপনাসহ একাধিক স্থাপনায় বিস্ফোরণ ও অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে দেশটির একটি গুরুত্বপূর্ণ পারমাণবিক কেন্দ্রে আগুন লেগে 'ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি' হয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির পারমাণবিক কর্তৃপক্ষের একজন মুখপাত্র।

খেলাধুলা

আফ্রিদির পেটানো দেখে নাকি ভারতীয় বোলাররা ক্ষমা চাইতেন

আফ্রিদির পেটানো দেখে নাকি ভারতীয় বোলাররা ক্ষমা চাইতেন

করোনাভাইরাসের কবল থেকে সদ্যই মুক্ত হয়েছেন পাকিস্তানের ক্রিকেট সাবেক তারকা শহিদ আফ্রিদি। সুস্থ হয়েই শুরু করেছেন ভারত নিয়ে খোঁচাখুঁচি। এবার তিনি দাবি করেছেন যে, ভারতের বিপক্ষে খেলার সময় বোলারদের এমনভাবে পেটাতেন যে, শেষে ভারতীয় বোলাররা এসে নাকি তার কাছে ক্ষমা চাইতে বাধ্য হতেন।

জাতীয়

দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা দুই হাজার ছাড়াল

দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা দুই হাজার ছাড়াল

দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৫৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা দাড়াল ২ হাজার ৫২ জন।

আন্তর্জাতিক

লাদাখ সীমান্তের দুই পারেই চলছে যুদ্ধের প্রস্তুতি

লাদাখ সীমান্তের দুই পারেই চলছে যুদ্ধের প্রস্তুতি

ভারত-চীন সীমান্তের কাছে যুদ্ধবিমান দিয়ে মহড়া চালিয়েছে ভারতীয় বিমান বাহিনী। তাদের দাবি, যুদ্ধের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত তারা। চীনকে ক্ষমতা প্রদর্শনের অংশ হিসেবে সীমান্তের খুব কাছে অবস্থিত ভারতীয় বিমান ঘাঁটি থেকে অনবরত আকাশ দাপিয়ে বেড়াচ্ছে রাশিয়ার তৈরি শক্তিশালী বোমারু বিমান এসইউ-৩০ এবং এমকেআই আর মিগ-২৯।

স্বাস্থ্য

মাস্কে অস্বস্তি এড়ানোর কৌশল

মাস্কে অস্বস্তি এড়ানোর কৌশল

বিশ্বের বহু দেশেই করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকানোর একটি জনপ্রিয় ব্যবস্থা হচ্ছে মাস্ক ব্যবহার। বিশেষ করে চীনে, যেখান থেকে শুরু হয়েছে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ঘটনা, সেখানেও মানুষ বায়ুর দূষণের হাত থেকে বাঁচতে হরহামেশা নাক আর মুখ ঢাকা মুখোশ পরে ঘুরে বেড়ায়। কিন্তু, অনেকক্ষণ ধরে মাস্ক ব্যবহার করলে কিংবা একাধিক মাস্ক একসঙ্গে একটির ওপর আরেকটি রেখে ব্যবহার করলে অক্সিজেনের ঘাটতি হতে পারে।