• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৭

প্রথমবার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা পদক পেলেন যারা

প্রথমবার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা পদক পেলেন যারা

নিজস্ব প্রতিবেদক২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৬:৪৭পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

প্রথমবারের মতো ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা পদক’ পেলেন বিশিষ্ট তিন নাগরিক। মাতৃভাষা সংরক্ষণ, পুনরুজ্জীবন, বিকাশ, চর্চা ও প্রচার-প্রসারে অবদান রাখায় তাদের এ পুরস্কার দিয়েছে সরকার।

পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন- জাতীয় অধ্যাপক মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, মথুরা বিকাশ ত্রিপুরা, উজবেকিস্তানের গবেষক ইসমাইলভ গুলম মিরজায়েভিচ ও লাতিন আমেরিকার আদি ভাষা নিয়ে কাজ করা বলিভিয়ার অনলাইন অ্যাক্টিভিজমো লেংকুয়াস।

রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে পুরস্কারপ্রাপ্ত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের কাছে এই সম্মাননা পদক তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে আয়োজিত অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী।

জানা গেছে, জাতীয় পর্যায়ে মাতৃভাষা সংরক্ষণ, পুনরুজ্জীবন ও বিকাশে অবদানের স্বীকৃতিসরূপ জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলামকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা পদক দেয়া হয়েছে। এছাড়া জাতীয় পর্যায়ে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর ভাষা সংরক্ষণে অবদানের স্বীকৃতিসরূপ খাগড়াছড়ির জাবারাং কল্যাণ সমিতির নির্বাহী পরিচালক মথুরা বিকাশ ত্রিপুরা এই পদকে ভূষিত হয়েছে।

অপরদিকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে মাতৃভাষার মর্যাদা সমুন্নত রাখতে অবদানের স্বীকৃতি স্বরুপ উজবেকিস্তানের গবেষক ইসমাইলভ গুলম মিরজায়েভিচ এ পদক পেয়েছেন। একই সঙ্গে প্রতিষ্ঠান হিসেবে লাতিন আমেরিকার আদি ভাষাগুলো নিয়ে কাজ করায় বলিভিয়ার অনলাইন উদ্যোগ ‘অ্যাক্টিভিজমো লেংকুয়াস’ প্রথমবারের মতো ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা পদক’ পেয়েছেন।

 

টাইমস/এসএন

ছাত্রসমাজকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে : শিক্ষামন্ত্রী

ছাত্রসমাজকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে : শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, একটি চিহ্নিত মহল দেশকে অস্থিতিশীল

ভ্যাকসিন নিয়েও করোনায় আক্রান্ত ত্রাণ সচিব

ভ্যাকসিন নিয়েও করোনায় আক্রান্ত ত্রাণ সচিব

ভ্যাকসিন নেয়ার ১২ দিন পর করোনা আক্রান্ত হয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা

রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ, চট্টগ্রামে যুবক গ্রেপ্তার

রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ, চট্টগ্রামে যুবক গ্রেপ্তার

চট্টগ্রামে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ভিকটিমের

আন্তর্জাতিক

জামাল খাশোগি হত্যায় ফেঁসে যাচ্ছেন সৌদি যুবরাজ

জামাল খাশোগি হত্যায় ফেঁসে যাচ্ছেন সৌদি যুবরাজ

বিশ্বব্যাপী আলোচিত ২০১৮ সালে সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাÐের একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করতে যাচ্ছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ। প্রতিবেদনে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে খাশোগি হত্যাকাণ্ডের নির্দেশদাতা হিসেবে উপস্থাপন করা হতে পারে।

জাতীয়

শাহবাগে বিক্ষোভ : জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০ শিক্ষার্থী আটক

শাহবাগে বিক্ষোভ : জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০ শিক্ষার্থী আটক

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থগিত হওয়া সকল পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে শাহবাগে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা। এসময় বিক্ষোভ থেকে অন্তত ১০ শিক্ষার্থীকে আটক করেছে পুলিশ।

জাতীয়

পুলিশের হাত থেকে পালিয়ে ইয়াবাসহ যুবক ভাইরাল (ভিডিও)

পুলিশের হাত থেকে পালিয়ে ইয়াবাসহ যুবক ভাইরাল (ভিডিও)

ইয়াবাসহ পুলিশের হাতে ধরা পড়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার এক যুবক। তবে ধরা পড়ার আগে পুলিশকে ফাঁকি দিয়ে দৌড়ে পালিয়ে গিয়েছিলেন নূরনবী নামের ওই যুবক। তার এই পালিয়ে যাওয়ার একটি ভিডিও এরই মধ্যে ভাইরাল হয়েছে।

আন্তর্জাতিক

তেল-গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি : মমতার অভিনব প্রতিবাদ (ভিডিও)

তেল-গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি : মমতার অভিনব প্রতিবাদ (ভিডিও)

পেট্রোল, ডিজেল ও রান্নার গ্যাসের দাম বেড়ে যাওয়ায় অভিনব প্রতিবাদ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। জ¦ালানির দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় তিনি ইলেকট্রিক মোটরসাইকেলে চেপে অফিস নবান্নে গেছেন। একই মোটরসাইকেলে করে তিনি বাসায় ফিরবেন।

জাতীয়

মাকে আনতে গিয়ে সড়কে নিহত জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র

মাকে আনতে গিয়ে সড়কে নিহত জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র

মাকে আনতে গিয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) লোকপ্রশাসন বিভাগের ছাত্র আবদুল্লাহ আল মাহমুদ শাফি। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের (৪৭তম ব্যাচ) এবং আল-বেরুনী হলের আবাসিক ছাত্র ছিলেন। তার বাড়ি নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার সোনাপুর গ্রামে।

অর্থনীতি

সীমানা পেরিয়ে বিদেশে যাচ্ছে ঝিনাইদহের সবজি

সীমানা পেরিয়ে বিদেশে যাচ্ছে ঝিনাইদহের সবজি

ঝিনাইদহে মাঠের পর মাঠ সবজি ক্ষেত। সময়ের চাহিদার সাথে পাল্লা দিয়ে সবজি চাষে আগ্রহী হয়ে উঠছে কৃষক। পান, কলা এ জেলার প্রধান অর্থকরী ফসল হলেও প্রান্তিক কৃষকরা এখন ঝুঁকে পড়ছে সবজি চাষে। বদলে গেছে এ অঞ্চলের সবজি চাষের পদ্ধতি। কৃষি বিভাগের জৈব কৃষি ও জৈবিক বালাই দমন ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে বিষমুক্ত সবজি উৎপাদন করা হচ্ছে। যে কারনে বাণিজ্যিক ভাবে অনেকেই এখন সবজি চাষ শুরু করেছেন। এসব সবজি দেমের সীমানা পেরিয়ে রপ্তানী করা হচ্ছে দূর পরবাসে।