আমের মুকুল ঝরা প্রতিরোধের উপায়

আমাদের দেশে আমকে বলা হয় ফলের রাজা। এই আম একটি গ্রীষ্মকালীন ফল। সাধারণত মার্চ মাসের দিকে আম গাছে মুকুল আসা শুরু করে। আমের মুকুলের মধ্যে থাকে হাজার হাজার ফুল। এই মুকুল থেকেই আমের গুঁটি জন্মায়। কিন্তু আম গাছে গুটি আসার পর নানা কারণে তা ঝরে যায়। তাই এসব কারণ ও প্রতিকার সম্পর্কে চাষিদের জেনে রাখা দরকার।

চলুন জেনে নিই মুকুল ঝড়ে পরার কারণ

  • প্রাকৃতিক কারণ যেমন বৃষ্টি, ঝড়, বন্যা, শিলা বৃষ্টির জন্য মুকুল ঝড়ে পরে।
  • মাটিতে রসের অভাব হলে আমের মুকুল ঝড়ে পরে যায়।
  • হপার পোকার আক্রমণ মুকুল ঝড়ে পরার একটি অন্যতম কারণ।
  • আমের মুকুলে অ্যানথ্রাকনোজ রোগ হয়ে থাকে। এই রোগের ফলেও আমের মুকুল ঝড়ে পড়ে।

এবার জেনে নিন, আমের মুকুল ঝড়ে পরা রোধে করণীয়

  • আমবাগান পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন, আগাছামুক্ত ও খোলামেলা অবস্থায় রাখতে হবে। মরা ডালপালা ছেঁটে ফেলতে হবে। রোগাক্রান্ত ডাল, পাতা পুড়িয়ে ফেলতে হবে। এছাড়া গাছের নিচ থেকে মরা পাতা কুড়িয়ে তা পুড়িয়ে ফেলতে হবে।
  • শীতের পর গরম শুরু হয়। এই সময়টাতে আম গাছের প্রচুর পানির প্রয়োজন পরে। তাই গাছের গোঁড়া যেন পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পায়, তা লক্ষ্য রাখতে হবে।
  • ফুল থেকে যখন ফল মটর দানার মতো হবে তখন হপার পোকা দমনের জন্য স্প্রে করতে হবে। সাধারণত মুকুল আসার আগে হপার পোকার জন্য স্প্রে করতে হয়। হপার পোকার জন্য ডায়াজিনন ৬০ ইসি বা লেবাসিড ৫০ ইসি চা-চামচের ৪ চামচ ৮.৫ লিটার পানিতে মিশিয়ে ১৫ দিন পর পর দু’বার স্প্রে করতে হবে। অথবা ম্যালাথিয়ন বা এমএসটি ৫৭ ইসি উপরোক্ত মাত্রায় স্প্রে করতে হবে।
  • সালফার জাতীয় কীটনাশক আমের গুটিতে স্প্রে করতে হবে, যাতে ছত্রাক আক্রান্ত করতে না পারে। অথবা প্রতি লিটার পানিতে ২ গ্রাম হারে ম্যানক্রোজেন নামক ছত্রাকনাশক মিশেয়ে স্প্রে করতে হবে।
  • আম যখন মারবেলের মতো ছোট ফল হবে তখন প্রতি লিটার পানিতে ২০ গ্রাম হারে ইউরিয়া সার মিশিয়ে স্প্রে করতে হবে।

লক্ষ্য রাখতে হবে, গাছে যখন ৫০% ফল ধরবে তখন কোনো প্রকার স্প্রে করা যাবে না। আম গাছে মুকুল আসার আগে স্প্রে করা যেমন জরুরি না, তেমনি মুকুল ফোটার পর স্প্রে করার জরুরি নয়। কেননা এই সময় অনেক উপকারী পোকারা পরাগায়নের জন্য আসে।

 

টাইমস/জিএস

Share this news on:

সর্বশেষ

img
নিউ নর্মালে সশরীর পরীক্ষা অনুষ্ঠিত চবির যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগে Sep 20, 2021
img
রাশিয়ায় বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বন্দুক হামলা, নিহত ৮ Sep 20, 2021
img
রাশিয়ার ক্ষমতায় আবার পুতিন! Sep 20, 2021
img
অস্ত্র মামলায় স্বাস্থ্যের মালেকের ৩০ বছর কারাদণ্ড Sep 20, 2021
img
নির্বাচনি সহিংসতায় কক্সবাজারে প্রাণহানি Sep 20, 2021
img
চ্যাম্পিয়ন হওয়ার ঘোষণা দিয়ে ২০২৩ বিশ্বকাপে যেতে চাই: তামিম Sep 20, 2021
ধর্মীয় দৃষ্টিভঙ্গি ও বিতর্ককে সঙ্গে নিয়েই বাড়ছে ট্যাটু করার প্রবণতা Sep 20, 2021
img
বাংলাদেশ থেকে থাই ভিসা আবেদনের স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার Sep 20, 2021
img
আফগানিস্তানে নারীবিষয়ক মন্ত্রণালয় বন্ধ করায় নারীদের বিক্ষোভ Sep 20, 2021
img
১৬০ ইউপিতে ভোট চলছে, বিনা ভোটে নির্বাচিত ৪৪ Sep 20, 2021