• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • বৃহস্পতিবার, ০২ জুলাই ২০২০, ১৮ আষাঢ় ১৪২৭

নিষ্ক্রিয় জীবনযাপনে শিশুদের স্বাস্থ্যঝুঁকি বেশি

নিষ্ক্রিয় জীবনযাপনে শিশুদের স্বাস্থ্যঝুঁকি বেশি

স্বাস্থ্য ডেস্ক০৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ১০:২২এএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

বিশ্বব্যাপী শিশুরা খুবই নিষ্ক্রিয় (ক্রিয়াহীন বা অলস) জীবনযাপন করছে। ফলে তাদের যথাযথ স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও বিকাশ হচ্ছে না। শারীরিকভাবে নিষ্ক্রিয় শিশুরা মারাত্মক শারীরিক, মানসিক, সামাজিক ও বুদ্ধিভিত্তিক স্বাস্থ্যঝুঁকি নিয়ে বেড়ে উঠছে।

সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়া ভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ‘অ্যাক্টিভ হেলথি কিডস গ্লোবাল এলায়েন্স’ এর এক গবেষণা প্রতিবেদনে এসব তথ্য ওঠে এসেছে।

সংস্থাটির চেয়ারম্যান ও কানাডার অটোয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর মার্ক ট্রিম্বলে বলেন, শারীরিকভাবে সক্রিয় জীবনযাপন না করায় ভবিষ্যতে এই প্রজন্মের শিশুদেরকে জলবায়ু পরিবর্তন, বিশ্বায়ন ও প্রযুক্তির বিকাশের প্রভাবসহ বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে।

ফিজিক্যাল অ্যাক্টিভিটি অ্যান্ড হেলথ জার্নালে প্রকাশিত গবেষণায় ৬টি মহাদেশের ৪৯টি উন্নত ও উন্নয়নশীল দেশের শিশুদের শারীরিক সক্রিয়তা নিয়ে বিশ্লেষণ করা হয়েছে।

ফলাফলে দেখা যায়, স্লোভেনিয়া, জিম্বাবুয়ে ও জাপানের শিশু-কিশোরদের শারীরিক সক্রিয়তা সবচেয়ে বেশি।

এছাড়া গবেষণায় দেখা যায়, প্রতিদিন গড়ে অন্তত এক ঘণ্টা শারীরিকভাবে সক্রিয় জীবনযাপন করেন এমন শিশুদের সংখ্যা মাত্র ৪১.৭ ভাগ।

গবেষকরা বলেন, একটি সক্রিয় জীবনযাপনের ফলেই শিশুদের শারীরিক সক্রিয়তা বৃদ্ধি পায় যা তাদের দৈনন্দিন জীবন যাপনের জন্য অপরিহার্য।

শিশুদের ভবিষ্যৎ স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও বিকাশের জন্য প্রতিটি সমাজেই শিশুদের শারীরিক সক্রিয়তা বাড়াতে হবে। এজন্য শিশুদের গতিশীলতা বাড়াতে সামাজিক নিয়ম-কানুন ও জীবনযাপনের অভ্যাসের পরিবর্তন করার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

এদিকে এই প্রথমবারের মত বৈশ্বিক কোন গবেষণায় বাংলাদেশের শিশুদের জীবনযাপনের বিষয়টি ওঠে এসেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, শিশুদের যথাযথ বৃদ্ধি ও বিকাশের জন্য প্রতিদিন পর্যাপ্ত পরিমাণ শারীরিক কর্মকান্ড করা প্রয়োজন। অথচ বাংলাদেশের প্রতি পাঁচ শিশুর তিনজনই এটা করছে না।

শিশুদের এই নিষ্ক্রিয় জীবনযাপন বাংলাদেশের শিশুদের সুস্থভাবে বেড়ে ওঠার ক্ষেত্রে মারাত্মক প্রভাব ফেলছে। তাই বাংলাদেশের শিশুদের সক্রিয়তা বাড়াতে বেশি বেশি খেলাধুলা ও শারীরিক কর্মকান্ড বাড়ানো উচিত বলে গবেষকরা মনে করছেন।

একই সঙ্গে প্রতিবেদনে বাংলাদেশের শিশুদের সক্রিয় জীবনযাপনকে গুরুত্ব দিয়ে একটি কার্যকর জাতীয়নীতি প্রণয়ন ও বাস্তবায়নের পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

 

 টাইমস/এএইচ/জিএস

‘হীনমন্যতায় প্রতি রাতেই কেঁদেছি, অবশেষে পররাষ্ট্র ক্যাডার’

‘হীনমন্যতায় প্রতি রাতেই কেঁদেছি, অবশেষে পররাষ্ট্র ক্যাডার’

আমি সফল কেউ নই। অন্তত এখনো নই। তাই সফলতার গাঁথা

হুছাইন মুহাম্মদের সফল হওয়ার গল্প

হুছাইন মুহাম্মদের সফল হওয়ার গল্প

হুছাইন মুহাম্মদ। ৩৮ তম বিসিএসে প্রশাসন ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছেন। মেধাক্রম

উপহাস জয় করে কোচিং ছাড়াই বিসিএস ক্যাডার ইডেন ছাত্রী!

উপহাস জয় করে কোচিং ছাড়াই বিসিএস ক্যাডার ইডেন ছাত্রী!

তৃপ্তি অনার্স পাস করেছেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে। এজন্য তাকে অবজ্ঞা

চাকরি

৩৮তম বিসিএসে পুলিশ ক্যাডারে ১৭তম বুয়েটের সনদ বড়ুয়া

৩৮তম বিসিএসে পুলিশ ক্যাডারে ১৭তম বুয়েটের সনদ বড়ুয়া

চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল থেকে এসএসসি পাস করার পর ভর্তি হন চট্টগ্রাম কলজে। সেখানেও কৃতিত্বের সঙ্গে এইচএসসি পাস করেন তিনি।

স্বাস্থ্য

এবার করোনায় হলি ফ্যামিলি মেডিকেল চিকিৎসকের মৃত্যু

এবার করোনায় হলি ফ্যামিলি মেডিকেল চিকিৎসকের মৃত্যু

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও এক চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। তিনি হলেন হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের

চাকরি

সংসার সামলে প্রথম বিসিএসেই এএসপি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী!

সংসার সামলে প্রথম বিসিএসেই এএসপি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী!

নুসরাত ইয়াছমিন তিসা। পড়াশোনা করেছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগে। দ্বিতীয় বর্ষেই তাকে বিয়ে দিয়ে দেয়া হয়।

চাকরি

শাবিতে পড়াশোনা, একসঙ্গে বিসিএস ক্যাডার হওয়ার গল্প দুই বোনের

শাবিতে পড়াশোনা, একসঙ্গে বিসিএস ক্যাডার হওয়ার গল্প দুই বোনের

ফাতেমাতুজ জুহরা চাঁদনী ও সাদিয়া আফরিন তারিন পড়াশোনা করেছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে। ৩৮তম বিসিএসে তারা দুই বোনই

আন্তর্জাতিক

ভার্চুয়াল নিলামে ৭০৫ কোটি টাকায় ফ্রান্সিস বেকনের পেইন্টিং বিক্রি!

ভার্চুয়াল নিলামে ৭০৫ কোটি টাকায় ফ্রান্সিস বেকনের পেইন্টিং বিক্রি!

সবাইকে অবাক করে দিয়ে ভার্চুয়াল নিলামে ফ্রান্সিস বেকনের একটি ট্রিপটিক পেইন্টিং বিক্রি হলো ৮৪ মিলিয়ন ডলারে, যার মূল্য বাংলাদেশি টাকায় (প্রতি ডলার ৮৪ টাকা হিসেব করলে) দাঁড়াচ্ছে ৭০৫ কোটি টাকা! কোভিড-১৯ মহামারীর ফলে ধুকতে থাকা আর্ট মার্কেটের জন্য এটি খুবই ইতিবাচক হিসেবে মনে করা হচ্ছে। উল্লেখ্য, ট্রিপটিক পেইন্টিং হলো- পাশাপাশি সম্পর্কযুক্ত তিনটি ছবি, যা সাধারণত একসাথেই টানানো হয়ে থাকে।

স্বাস্থ্য

স্ট্রেস আমাদের দেহের প্রতিরোধ ব্যবস্থা ধ্বংস করে দিতে পারে

স্ট্রেস আমাদের দেহের প্রতিরোধ ব্যবস্থা ধ্বংস করে দিতে পারে

স্ট্রেস মানব জীবনের অঙ্গ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ক্যারিয়ার বা কাজের চাপ থেকে শুরু করে ব্যক্তিগত-সামাজিক ইস্যু, হালের মহামারীসহ একাধিক কারণে স্ট্রেস বা মানসিক চাপ সৃষ্টি হতে পারে। স্ট্রেস বা মানসিক চাপ নানাভাবে আমাদের দেহের উপর বিরূপ প্রভাব ফেলে। তবে, অনেকে স্ট্রেসের নেতিবাচক প্রভাব সম্পর্কে সচেতন নয়, ফলে সময়মতো প্রতিকার বা চিকিৎসা গ্রহণ করেন না।