• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭

টানা বর্ষণে চট্টগ্রামে জলাবদ্ধতা, দুর্ভোগে নগরবাসী

টানা বর্ষণে চট্টগ্রামে জলাবদ্ধতা, দুর্ভোগে নগরবাসী

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম১১ জুলাই ২০১৯, ১২:০৮পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতায় রীতিমত ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে বন্দরনগরী চট্টগ্রাম। ভারী বর্ষণে পানিতে ডুবে গেছে নগরীর অধিকাংশ ব্যস্ততম এলাকা। ফলে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে নগরবাসীর।

বৃহস্পতিবার ভোর থেকেই তুমুল বৃষ্টিপাত শুরু হয়। এর আগে সোমবারে এই মৌসুমের দীর্ঘ ভারি বর্ষণ শুরু হয়। এতে নগরীর সবচেয়ে বেশি এলাকা পানির নিচে তলিয়ে যায়। জলজটের কারণে কয়েকদিন ধরেই চরম দুর্ভোগের মধ্যেই আছে নগরীর হাজার হাজার মানুষ।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার ভোর ছয়টা পর্যন্ত গেলো ২৪ ঘণ্টায় ১৪৯ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। টানা বৃষ্টি আরো কয়েকদিন অব্যাহত থাকবে এবং এতে নগরীতে পাহাড় ধসের আশঙ্কা রয়েছে। সতর্কতার প্রেক্ষিতে নগরীর বিভিন্ন পাহাড় থেকে প্রায় শতাধিক পরিবারকে সরিয়ে নিয়েছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন।

বৃষ্টির মাত্রা না কমায় জলাবদ্ধতায় দুর্ভোগে পড়েছে নগরবাসী। ভোর রাত থেকে বৃষ্টিতে ডুবে যায় বেশ কিছু নিম্নাঞ্চল ও সড়ক। বাকলিয়া, হালিশহর, মুরাদপুর ও ষোলশহর এলাকা হাঁটু থেকে কোমর পানিতে তলিয়ে যায়। এসময় সড়কে পানি উঠায় দুর্ভোগে পড়েন কর্মস্থলগামী মানুষ ও শিক্ষার্থীরা।

জলাবদ্ধতার কারণে কোথাও যানবাহন চলাচল করতে পারছে না, আর যেসব সড়কে পানি নেই, সেসব সড়কে যানজটের কারণে যানবাহন চলাচল প্রায় বন্ধ রয়েছে। ফলে সাধারণ মানুষ অসহায় হয়ে পড়েছে।

তবে সকাল সাড়ে আটটায় ভাটার কারণে আবারো পানি কমতে শুরু করে। এদিকে ভারি বৃষ্টিতে তিন পার্বত্য জেলা ও কক্সবাজারের সাথে সড়ক যোগাযোগও ব্যাহত হচ্ছে। তিন নম্বর সতর্ক সংকেতের কারণে সাগর উত্তাল থাকায় ছয় দিন ধরে বন্ধ রয়েছে চট্টগ্রাম বন্দরের বর্হিনোঙ্গরের কার্যক্রম। খোলা পণ্য নিয়ে খালাসের অপেক্ষায় প্রায় ৫৫ টি বিদেশি জাহাজ।

আবহাওয়াবিদ উজ্জ্বল কান্তি পাল বলেন, মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে বৃষ্টিপাত অব্যাহত রয়েছে। তবে শুক্রবার থেকে বৃষ্টি কমে যেতে পারে।

 

টাইমস/এইচইউ

ঈদের ছুটিতে পানিতে ও নৌকা ডুবে প্রাণ গেল ৪৬ জনের

ঈদের ছুটিতে পানিতে ও নৌকা ডুবে প্রাণ গেল ৪৬ জনের

ঈদের ছুটিতে পানিতে ও নৌকা ডুবে নারী ও শিশুসহ প্রাণ

দেশে করোনায় প্রাণ গেল আরও ৫০ জনের

দেশে করোনায় প্রাণ গেল আরও ৫০ জনের

দেশে মহামারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৫০

মেজর সিনহার মাকে ফোন দিয়ে বিচারের আশ্বাস প্রধানমন্ত্রীর

মেজর সিনহার মাকে ফোন দিয়ে বিচারের আশ্বাস প্রধানমন্ত্রীর

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের গুলিতে নিহত অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা সিনহা রাশেদ

জাতীয়

চট্টগ্রাম সিটির প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ পেলেন খোরশেদ আলম সুজন

চট্টগ্রাম সিটির প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ পেলেন খোরশেদ আলম সুজন

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন। চসিকের নির্বাচিত মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের মেয়াদ শেষ হওয়ার একদিন আগে এ দায়িত্ব পেলেন তিনি।

জাতীয়

আটকের পর জরিমানা দিয়ে ছাড়া পেলেন ঢাকা উত্তর ছাত্রলীগ সভাপতিসহ ৪৩ জন

আটকের পর জরিমানা দিয়ে ছাড়া পেলেন ঢাকা উত্তর ছাত্রলীগ সভাপতিসহ ৪৩ জন

করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতিতে সুন্দরবনে সব ধরনের পর্যটনসহ সর্বসাধারণের প্রবেশ নিষিদ্ধ করেছে সরকার। কিন্তু ওই নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে লঞ্চ নিয়ে উচ্চস্বরে গান বাজিয়ে সুন্দরবনে অনুপ্রবেশ করেছিলেন ঢাকা মহানগর উত্তরের ছাত্রলীগ সভাপতি মো. ইব্রাহীম হোসেনসহ ৪৩ নেতাকর্মী। পরে সুন্দরবনে অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে তাদেরকে আটক করা হয়। এরপর অনুপ্রবেশ করার জন্য লিখিতভাবে ভুল স্বীকার করে জরিমানা পরিশোধ করায় ছাড়া পান আটক ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

জাতীয়

ঢাবির সাবেক অধ্যাপক এম সাইফুল্লাহ মারা গেছেন

ঢাবির সাবেক অধ্যাপক এম সাইফুল্লাহ মারা গেছেন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সাবেক অধ্যাপক এম সাইফুল্লাহ ভূঁইয়া মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৮ বছর।

জাতীয়

রিমান্ড নামঞ্জুর করে টিকটক ‘অপু ভাইকে’ কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ

রিমান্ড নামঞ্জুর করে টিকটক ‘অপু ভাইকে’ কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ

সড়কে মারামারির ঘটনায় জনপ্রিয় ভিডিও অ্যাপ টিকটকের বাংলাদেশি টিকটকার ‘টিকটক অপু’ ওরফে ‘অপু ভাই’ এর রিমান্ড আবেদন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদাল

জাতীয়

সাবেক সেনা কর্মকর্তা নিহতের ঘটনায় তদন্ত শুরু

সাবেক সেনা কর্মকর্তা নিহতের ঘটনায় তদন্ত শুরু

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের গুলিতে অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা সিনহা রাশেদ খান নিহতের ঘটনায় তদন্তে মাঠে নেমেছে এ বিষয়ে গঠিত তদন্ত কমিটি।

স্বাস্থ্য

রোগ প্রতিরোধে আমড়া

রোগ প্রতিরোধে আমড়া

পুষ্টিগুণে ভরপুর টক-মিষ্টি স্বাদের জনপ্রিয় দেশি ফল আমড়া। কাঁচা আমড়া কাঁচা তো খাওয়া যায়-ই, আবার রান্না করেও খাওয়া যায়। পাকা আমড়াও আচার, মোরব্বা, সালাদ, চাটনি তৈরিতে ব্যবহার হয়। মুখরোচক ফল হিসেবে একটি আমড়ায় প্রায় তিনটি আপেলের সমান পুষ্টি থাকে।