• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • রোববার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

লেনিন: বলশেভিক বিপ্লবের প্রবাদ পুরুষ

লেনিন: বলশেভিক বিপ্লবের প্রবাদ পুরুষ

ফিচার ডেস্ক১৫ নভেম্বর ২০১৮, ০৮:৩৭পিএম, ঢাকা-বাংলাদেশ।

ভ্লাদিমির ইলিচ উলিয়ানভ লেনিন। একজন রাশিয়ান বিপ্লবী। বলশেভিক বিপ্লবের প্রবাদ পুরুষ। তিনিই হলেন সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের প্রথম রাষ্ট্রনায়ক। তার নেতৃত্বেই ১৯১৭ সালে রাশিয়ায় কমিউনিস্ট সরকারের গোড়াপত্তন হয়।

তার প্রতিষ্ঠিত কমিউনিজম লেলিনবাদ হিসেবে পরিচিত। লেনিন ১৮৭০ সালে রাশিয়ান সাম্রাজ্যের সিমবিরস্ক শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি অত্যন্ত মেধাবী ছিলেন এবং শৈশবেই ল্যাটিন ও গ্রিক ভাষা শিখেছিলেন।

রাশিয়ার সম্রাটের (জার) বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় ১৮৮৭ সালে তাকে কেজান স্টেট ইউনিভার্সিটি থেকে বের করে দেয়া হয়। এরপর তিনি বাসায় নিজ উদ্যোগে পড়াশোনা করতে লাগলেন। ১৮৯১ সালে তিনি আইনজীবী হিসেবে কাজ করার লাইসেন্স পেয়ে যান।

একই বছরে রুশ সম্রাট আলেকজান্ডার তৃতীয়কে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে লেনিনের ভাই আলেক্সান্ডারকে ফাঁসি দেয়া হয় এবং তার বোন আনাকে তাতারস্তানে নির্বাসনে পাঠানো হয়। পরে ভাই হত্যার প্রতিশোধ নেয়ার অঙ্গীকার করেন লেনিন।

সেন্ট পিটার্সবার্গে আইন অধ্যয়ন করার সময় তিনি জার্মান দার্শনিক কার্ল মার্কস ও ফ্রেডরিক এঞ্জেলসের লেখা দ্বারা প্রভাবিত হন। পুঁজিবাদকে উৎখাত করে একটি সাম্যবাদী কমিউনিস্ট সমাজ প্রতিষ্ঠার সংকল্প করেন লেনিন।

তিনি বিদ্যমান পুঁজিবাদী সমাজকে অন্তর্নিহিতভাবে অবিচার হিসেবে বর্ণনা করেছেন। মার্কসবাদের সমর্থন ও পুঁজিবাদের সমালোচনা করায় তাকে গ্রেপ্তার করে সাইবেরিয়ার কারাগারে পাঠানো হয়।

১৮৯৯ সালে কারাগারে থাকাকালে তিনি “দ্য ডেভেলাপমেন্ট অফ ক্যাপিটালিজম ইন রাশিয়া” নামে বই লিখেন। ১৯০০ সালে লেনিন কারাগার থেকে মুক্তি পান। এরপর তিনি ইউরোপ ভ্রমণে বের হন এবং মার্ক্সবাদের সমর্থনে “ইস্করা” নামে একটি পত্রিকা প্রকাশ করেন। তিনি রাশিয়ান সোশ্যাল ডেমোক্র্যাটিক লেবার পার্টির গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হয়ে উঠেন।

এ সময় পার্টির আরেকজন নেতা জুলিয়াস মার্টোভের সাথে লেনিন বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন। এতে দলটি দু’ভাগে বিভক্ত হয়ে যায়। একটি শাখা লেনিনের নেতৃত্বে যার নাম ‘বলশেভিক’। এই দলটি চূড়ান্ত ক্ষমতা সরকারের হাতে দিতে চেয়েছিল।

প্রথম বিশ্বযুদ্ধ শুরু হলে লেনিনের নেতৃত্বে মার্কসবাদী বলশেভিক নেতারা বিশ্বযুদ্ধের বিরোধিতা করেছিলেন।

১৯১৭ সালে লেনিনের বিরুদ্ধে গুজব ছড়ায় যে তিনি জার্মানির কাছ থেকে অর্থ নিয়েছেন। এতে চরম বিব্রতকর অবস্থায় পড়েন লেনিন। তিনি গ্রেপ্তার ও হত্যার ভয়ে ফিনল্যান্ডে পালিয়ে যান। সেখানে থেকেই তিনি তার কমিউনিজম নিয়ে আন্দোলন অব্যাহত রাখেন।

এসময় ‘ফেব্রুয়ারি বিপ্লবে’র ফলে রাশিয়ার জার নিকোলাস দ্বিতীয়র পতন হয়। এতে জার্মানির সহযোগিতায় লেনিন রাশিয়ায় ফিরে আসেন। তিনি সরকারবিরোধীদের ঐক্যবদ্ধ করেন এবং কমিউনিস্ট সমাজ প্রতিষ্ঠার আন্দোলন চালিয়ে যান।

১৯১৭ সালের অক্টোবরে লেনিনের নেতৃত্বে বলশেভিক বিপ্লবীরা কেরোনস্কি সরকারকে উৎখাত করে পেট্রোগ্রাদসহ (সেন্ট পিটার্সবার্গ) রাশিয়ার গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলো দখল করে নেয়। ইতিহাসে এটি ‘অক্টোবর বিপ্লব’ নামে পরিচিত।

সফল বিপ্লবের পর লেনিন রাশিয়াকে কমিউনিস্ট রাষ্ট্র হিসেবে ঘোষণা করেন এবং তিনি এর প্রধান নেতা নিযুক্ত হন। লেনিন ১৯১৮ সালের জানুয়ারিতে জার্মানির সাথে চুক্তি করে যুদ্ধের ইতি টানেন। যদিও এই যুদ্ধে অনেক ভূখণ্ড হারিয়ে রাশিয়াকে চরম মূল্য দিতে হয়েছে।

জার্মানির সাথে রাশিয়ার এই চুক্তির ফলে মিত্রশক্তি বৃটেন ও ফ্রান্স ক্ষুব্ধ হয়ে যায়। তাদের আশংকা রাশিয়ায় কমিউনিস্টদের উত্থান সমগ্র ইউরোপে ছড়িয়ে পড়বে। তাই তারা রাশিয়ার লেনিনবিরোধীদের সমর্থন দিতে থাকে। ফলে রাশিয়ায় গৃহ যুদ্ধ দেখা দেয়।

এ সময় বিরোধীদের দমন করতে বিশেষ খাদ্যনীতি চালু করেন তিনি। এর ফলে রাশিয়ার অসংখ্য সাধারণ নাগরিক দুর্ভিক্ষ ও রোগে মারা যায়। এক পর্যায়ে গৃহযুদ্ধের অবসান ঘটে এবং লেনিনের বলশেভিক দল বিজয়ী হয়।

যুদ্ধ শেষ হলে লেনিন নতুন অর্থনৈতিক সংস্কার কর্মসূচি চালু করেন। তিনি সীমিত আকারে ব্যক্তিখাতে উদ্যোক্তাদের সুযোগ দেন।

১৯২৪ সালে ২১ জানুয়ারি স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে এই বলশিভিক নেতা মারা যান। মস্কোর রেড স্কয়ারে তার নামে ‘লেনিন মিউজিয়াম’ প্রতিষ্ঠা করা হয় এবং এখানেই লেনিনের মরদেহ সংরক্ষণ করা হয়েছে।

তার স্মৃতির সম্মানে ১৯২৪ সালে পেট্রোগ্রাদের (সাবেক সেন্ট পিটার্সবার্গ) নাম পরিবর্তন করে লেনিনগ্রাদ রাখা হয়। তার মৃত্যুর পর রাশিয়ার ক্ষমতায় আসেন আরেক বিপ্লবী নেতা স্ট্যালিন।

চট্টগ্রামে গ্যাস পাইপলাইনে বিস্ফোরণে নিহত ৭

চট্টগ্রামে গ্যাস পাইপলাইনে বিস্ফোরণে নিহত ৭

চট্টগ্রামে দুর্ঘটনায় ৭ জন মারা গেছে। আহত হয়েছে আরো কমপক্ষে

চট্টগ্রামে এসেছে ১৯৮ টন পেঁয়াজ

চট্টগ্রামে এসেছে ১৯৮ টন পেঁয়াজ

বিদেশ থেকে আমদানি করা ১৯৮ টন পেঁয়াজ চট্টগ্রাম বন্দরে এসেছে।

কচু শাকে পুষ্টিগুণে ভরপুর

কচু শাকে পুষ্টিগুণে ভরপুর

বর্ষার শেষভাগে যখন অন্যান্য সবজি বেশী পরিমাণে পাওয়া যায় না

জাতীয়

পেঁয়াজ বিমানে উঠে গেছে, চিন্তার কারণ নেই: প্রধানমন্ত্রী

পেঁয়াজ বিমানে উঠে গেছে, চিন্তার কারণ নেই: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিমানের কার্গোতে করে আমরা পেঁয়াজ আমদানি করে নিয়ে আসছি। পেঁয়াজ বিমানে উঠে গেছে, চিন্তার আর কোনো কারণ নেই। শনিবার স্বেচ্ছাসেবক লীগের তৃতীয় জাতীয় কাউন্সিল উদ্বোধনের পর প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে এ কথা বলেন। রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে এ কাউন্সিলের উদ্বোধন করেন তিনি।

উক্তি প্রতিদিন

“যদি তুমি কথা বলতে ভালোবাসো তবে নিম্ন স্বরে কথা বল।”

“যদি তুমি কথা বলতে ভালোবাসো তবে নিম্ন স্বরে কথা বল।”

সক্রেটিস ছিলেন একজন গ্রিক দার্শনিক। বিশ্বে যত বড় বড় দার্শনিকের জন্ম হয়েছে তাদের মধ্যে তিনি অন্যতম। তিনি ৪৭০ খ্রিষ্টপূর্বে গ্রীসের রাজধানী এথেন্সে জন্মগ্রহণ করেন।

রাজনীতি

স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন দায়িত্বে নির্মল-বাবু

স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন দায়িত্বে নির্মল-বাবু

স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন সভাপতি হয়েছেন নির্মল রঞ্জন গুহ, আর সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন আফজালুর রহমান বাবু। শনিবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে কাউন্সিল অধিবেশনে তাদের নাম ঘোষণা করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এর আগে সকালে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সম্মেলন উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা।

জাতীয়

খেজুরের গুড়ে ভেজাল না দেওয়ার শপথ

খেজুরের গুড়ে ভেজাল না দেওয়ার শপথ

ব্র্যান্ডিং পণ্য ঐতিহ্যবাহী খেজুরের গুড় ও পাটালি উৎপাদনে ভেজাল না দেওয়ার শপথ করেন যশোরের গাছিরা। এই ঐতিহ্যবাহী গুড়-পাটালি এই জেলাকে অন্য জেলার থেকে আলাদাভাবে পরিচিত করেছে। শনিবার দুপুরে জেলার বাঘারপাড়া উপজেলার দরাজ হাট ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে এই শপথবাক্য পাঠ করানো হয়। অনলাইন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ‘কেনারহাট ডট কম’ এর আয়োজনে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ শপথ বাক্য পড়ান। এতে যশোরের ৬০ জন গাছি অংশ নেন।

রাজনীতি

দুর্নীতিবাজ, চাঁদাবাজদের না বলুন: ওবায়দুল কাদের

দুর্নীতিবাজ, চাঁদাবাজদের না বলুন: ওবায়দুল কাদের

দুর্নীতিবাজ, চাঁদাবাজ এবং টেন্ডারবাজদের না বলার জন্য নেতাকর্মীদের আহবান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। শনিবার রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বেচ্ছাসেবক লীগের তৃতীয় জাতীয় সম্মেলনে তিনি এ আহ্বান জানান। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বাংলাদেশ দারিদ্র্য ও ভিক্ষুকমুক্ত দেশে পরিণত হয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মানে তিনি জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন।

বিনোদন

পরিচালক বলেছিলেন নগ্ন হতে, জেনিফারের প্রশ্ন ‘কী দেখতে চান?’

পরিচালক বলেছিলেন নগ্ন হতে, জেনিফারের প্রশ্ন ‘কী দেখতে চান?’

হলিউড থেকে প্রথমে শুরু হয়েছিল ‘মি টু’ আন্দোলন। তারপর সেই আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ে বলিউডেও। এরপর বলিউডে শুরু হয় একের পর এক অভিযোগ। এতে নামিদামি অনেক প্রযোজক থেকে শুরু করে পরিচালক, এমনকি নায়কই জড়িয়ে পড়ে অভিযুক্তদের তালিকায়। অন্যদিকে হলিউডে এই নিয়ে অনেক তারকা অভিযোগ করলেও চুপ ছিলেন নামকরা তারকারা। যৌন হেনস্তার কথা গণমাধ্যমে প্রকাশ না করলেও সেই অনাখাঙ্খিত অভিজ্ঞতা নিয়ে সামনে এগিয়ে যাচ্ছিলেন তারা।