• ঢাকা, বাংলাদেশ
  • শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০১৯, ৪ শ্রাবণ ১৪২৬

ইতিহাস

রাজার স্থান রাজশাহী

রাজার স্থান রাজশাহী

রাজশাহী বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলের একটি জেলা। আর এর প্রাণকেন্দ্র হচ্ছে পদ্মার তীরে অবস্থিত প্রায় ৯৭ বর্গকিলোমিটার আয়তনের বিভাগীয় শহর রাজশাহী। রাজশাহী বাংলাদেশের অন্যতম প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী শহর। প্রাচীনকালে এই শহরের আশেপাশে বিভিন্ন শাসকরা তাদের রাজধানী গড়ে তুলেছিল। এদের মাঝে লক্ষণৌতি বা লক্ষণাবতী, পুণ্ড্র ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য। আকর্ষণীয় রেশমীবস্ত্র, আম, লিচু এবং মিষ্টান্ন সামগ্রীর জন্য প্রসিদ্ধ রাজশাহী রেশমনগরী নামেও পরিচিত। বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলে রাজশাহী বিভাগের...

রাজার স্থান রাজশাহী

রাজার স্থান রাজশাহী

রাজশাহী বাংলাদেশের উত্তরবঙ্গের একটি শহর। রাজশাহী বাংলাদেশের অন্যতম প্রাচীন ও ঐত্যিহবাহী শহর। রাজশাহী শহর বিখ্যাত পদ্মা নদীর তীরে অবস্থিত। যা রাজশাহী বিভাগের বিভাগীয় শহর। রাজশাহী শহরের নিকটে প্রাচীন বাংলার বেশ কয়েকটি রাজধানী শহর অবস্থিত। এদের মাঝে লক্ষণৌতি বা লক্ষনাবতি, পুণ্ড্র ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য। রাজশাহী তার আকর্ষণীয় রেশমীবস্ত্র, আম, লিচু এবং মিষ্টান্নসামগ্রীর জন্য প্রসিদ্ধ। রেশমীবস্ত্রের কারণে রাজশাহীকে রেশমনগরী নামে ডাকা হয়।

চট্টগ্রামের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস

চট্টগ্রামের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস

দেশের বাণিজ্যিক রাজধানী চট্টগ্রামের রয়েছে হাজার বছরের পুরাতন সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য। বারো আউলিয়ার পুণ্যভূমি, প্রাচ্যের রাণী বীর প্রসবিনী, আধ্যাত্মিক রাজধানী, বন্দরনগরী, আন্তর্জাতিক পর্যটন নগরী, কল্যাণময় নগরী এমন অসংখ্য নামে পরিচিত এই চট্টগ্রাম।

সিলেটের গৌরবময় ইতিহাস

সিলেটের গৌরবময় ইতিহাস

মহান সাধক হযরত শাহজালাল (র.) ও হযরত শাহপরান (র.) সহ ৩৬০ আউলিয়ার পুণ্যভূমি সিলেট একটি প্রাচীন জনপদ। চীনা পরিব্রাজক হিউয়েন সাঙ-এর ৬৪০ খ্রিস্টাব্দের ভ্রমণবিবরণী থেকে এ জেলা সম্পর্কে বহু তথ্য পাওয়া যায়। দশম শতাব্দীতে মহারাজা শ্রীচন্দ্র কর্তৃক উৎকীর্ণ পশ্চিমভাগ তাম্রলিপি থেকে জানা যায় যে, তিনি এ জেলা জয় করেছিলেন।

ঐতিহ্যবাহী ময়মনসিংহ জিলা স্কুল

ঐতিহ্যবাহী ময়মনসিংহ জিলা স্কুল

ময়মনসিংহ জিলা স্কুল ঊনবিংশ শতাব্দীর মাঝামাঝি ভাগে তৎকালীন ভারতের সর্ববৃহৎ জেলা ময়মনসিংহে প্রতিষ্ঠিত একটি প্রসিদ্ধ হাই স্কুল। এটি বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি। কেবল ছেলেদের জন্য প্রতিষ্ঠিত এ স্কুলের অবস্থান ময়মনসিংহ শহরের কেন্দ্রস্থলে। এই সরকারি স্কুলটিতে ৩য় থেকে ১০ম শ্রেণী পর্যন্ত পাঠদান করা হয়।

খুলনা নামের ইতিহাস

খুলনা নামের ইতিহাস

বিবর্তনের বিভিন্ন পর্যায় অতিক্রম করে বাংলাদেশ আজকের রূপ লাভ করেছে। প্রাচীনকালে বাংলাদেশ নামে কোন ভূখণ্ড ছিলনা। এখানে ছিলো নাম না জানা ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র জনপদ। তার মধ্যে অন্যতম ছিল পুণ্ড্রবর্ধন, বরেন্দ্র, বঙ্গ, গৌড়, সমতট, রাঢ়, হরিকেল, চন্দ্রদ্বীপ, সপ্তগাঁও আরও অসংখ্য জনপদ।